ডিএসইর নোটিশের প্রেক্ষিতে যা বললো রহিমা ফুড

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত খাদ্য ও আনুষাঙ্গিক খাতের কোম্পানি রহিমা ফুড কর্পোরেশন লিমিটেড ব্যবসার বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জকে (ডিএসই) জানিয়েছে। গত ২৪ এপ্রিল ডিএসই কোম্পানিকে নোটিশ পাঠায়, এর জবাবে কোম্পানিটি ডিএসইকে ব্যবসার বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে জানিয়েছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

জানা যায়, ২০১৩ সালের ১৩ জুন থেকে রহিমা ফুডের উৎপাদন বন্ধ রয়েছে। কোম্পানিটি এখনও উৎপাদন চালু করতে পারেনি।

কোম্পানির নারিকেল তেল উৎপাদনের প্রকল্পটি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। কোম্পানি আশা করছে প্রয়োজন অনুযায়ী গ্যাস এবং বিদ্যুৎ পুন:সংযোগ হলে আগামী এক বছরের মধ্যে এই প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন হবে।

ডিএসই তথ্যানুযায়ী দেখা যায়, রহিমা ফুডের শেয়ার দর গত কয়েক কার্যদিবস ধরে বেড়েই চলেছে। গত ১২ এপ্রিল কোম্পানির শেয়ার দর ১৪২.৭০ টাকা ছিল। যা গত ২৪ এপ্রিল বেড়ে দাড়ায় ১৮৩.২০ টাকা। যা ডিএসইর কাছে অস্বাভাবিক মনে হয়।

এদিকে, কোম্পানির সর্বশেষ প্রান্তিক অনুযায়ী লোকসান থেকে মুনাফায় অবস্থান করছে কোম্পানিটি। এর কারণে হিসেবে জমি বিক্রয়ের উপর মূলধনি আয় সংযোজন করায় কোম্পানিটির বড় মুনাফা হয়েছে বলে কোম্পানি জানায়।

তৃতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮.৮৯ টাকা (জমি বিক্রয়ের উপর মূলধন লাভ)। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.১৩ টাকা।

এদিকে, ৯ মাসে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮.৫৩ টাকা (জমি বিক্রয়ের উপর মূলধন লাভ)। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.৩৯ টাকা।

এছাড়া আলোচিত সময় শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর অর্থ প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৩৫ টাকা ঋণাত্মক। গত অর্থবছরের একই সময়ে যা ছিল ৫.৪৪ টাকা ঋণাত্মক। আর শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১১.৩৫ টাকা। যা ৩০ জুন ২০১৭ সালে গত অর্থবছরের একই সময়ে যা ছিল ২.৮২ টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মন্তব্য

Top