পাইপলাইনে ২৫ কোম্পানির আইপিও: বাজার থেকে তুলবে ১৭০০ কোটি টাকা

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: বুক বিল্ডিং ও ফিক্সড প্রাইস পদ্ধতিতে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির পাইপলাইনে রয়েছে ২৫ কোম্পানির আইপিও। এসব কোম্পানি তাদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে (বিএসইসি) আইপিও অনুমোদনের জন্য জমা দিয়েছে। বিএসইসির অনুমতি পাওয়ার পরপরই কোম্পানিগুলো তাদের পরবর্তী কার্যক্রম শুরু করবে। বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে বাজারে জন্য অপেক্ষা করছে ১৩ কোম্পানি। এই ১৩ কোম্পানি বাজার থেকে মোট ১ হাজার ৪০৭ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। এছাড়া ফিক্সড প্রাইস পদ্ধতিতে পাইপলাইনে রয়েছে ১২ কোম্পানির আইপিও। এই ১২ কোম্পানি বাজার থেকে ৩০১ কোটি ২৯ লাখ টাকা উত্তোলন করবে।

এ ব্যাপারে বিএসইসির একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা শেয়ারবাজারনিউজ ডটকমকে জানান, প্রতিটি কোম্পানির আইপিও অনুমোদনের জন্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। যেসব কোম্পানি বিএসইসির কমপ্লায়েন্স শতভাগ পূরণ করতে পারছে সেগুলোকেই ধারাবাহিকভাবে আইপিও’র জন্য অনুমোদন দেয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

বুক বিল্ডিং পদ্ধতি

অনেক আগেই বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে আইপিওতে আসার অপেক্ষায় রয়েছে এসটিএস হোল্ডিংস (অ্যাপোলো হাসপাতাল) লিমিটেড। কোম্পানিটি বাজার থেকে ৭৫ কোটি টাকা টাকা উত্তোলন করবে। একই পদ্ধতিতে রানার অটোমোবাইলস ১০০ কোটি টাকা উত্তোলনের অপেক্ষায় রয়েছে। এছাড়া পপুলার ফার্মাসিউটিক্যালস ৭০ কোটি টাকা, ডেল্টা হসপিটাল ৫০ কোটি টাকা, ইনডেক্স এগ্রো ইন্ডাস্টিজ ৪০ কোটি টাকা, শামসুল আলামিন রিয়েল স্টেট ৮০ কোটি টাকা টাকা, এস্কয়ার নিট কম্পোজিট ১৫০ কোটি টাকা, এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন ১৫০ কোটি টাকা, এডিএন টেলিকম ৫৭ কোটি টাকা, লুব-রেফ বাংলাদেশ ১৫০ কোটি টাকা, বারাকা পতেঙ্গা পাওয়ার লিমিটেড ২২৫ কোটি টাকা, স্টার সিরামিকস ৬০ কোটি টাকা এবং মর্ডান ষ্টীল মিলস পুঁজিবাজার থেকে ২০০ কোটি টাকা উত্তোলনের জন্য রোড শো সম্পন্ন করেছে। উল্লেখিত কোম্পানিগুলোর এস্কয়ার নিট কম্পোজিট বিডিংয়ের অনুমোদন পেয়েছে।

ফিক্সড প্রাইস পদ্ধতি

এদিকে ফিক্সড প্রাইস পদ্ধতিতে বা ফেসভ্যালু ১০ টাকায় বাজার থেকে অর্থ উত্তোলনের জন্য ১২ কোম্পানি অপেক্ষা করছে। এর মধ্যে কাট্টালি টেক্সটাইল ৩৪ কোটি টাকা, ভিএফএস থ্রেড ডায়িং ২২ কোটি টাকা, এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স ২৬ কোটি ৭৯ লাখ টাকা, সিলভা ফার্মাসিউটিক্যালস ৩০ কোটি টাকা, এমএল ডাইং ২০ কোটি টাকা, জেনেক্স ইনফোসিস ২০ কোটি টাকা, নিউ লাইন ক্লোথিং ৩০ কোটি টাকা, সিলকো ফার্মাসিউটিক্যালস ৩০ কোটি টাকা, ইলেক্ট্রো ব্যাটারি কোম্পানি সাড়ে ২২ কোটি টাকা, এসএস স্টিল ২৫ কোটি টাকা, মোহাম্মদ ইলিয়াস ব্রাদার্স পয় মেন্যুফ্যাকচারিং ২৫ কোটি টাকা এবং দেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স পুঁজিবাজার থেকে ১৬ কোটি টাকা উত্তোলনের অপেক্ষায় রয়েছে। উল্লেখিত কোম্পানিগুলোর মধ্যে ভিএফএস থ্রেড ডায়িং আইপিও অনুমোদন পেয়েছে কিন্তু কনসেন্ট লেটার না পায়নি।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

One Comment;

  1. Ayub said:

    Maximum company’s IPO could not fulfill their commitment. BSEC’s prime responsibility is protect interest of the investors regarding IPO process.

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top