যে খাবারগুলো প্রতিদিন আপনাকে করে তুলবে স্মার্ট

khabarশেয়ারবাজার ডেস্ক: স্মার্টনেস কী? নিঃসন্দেহে স্মার্টনেস হচ্ছে সেই বস্তু যা অন্যের চোখে আপনাকে করে তোলে ব্যক্তিত্ববান ও আকর্ষণীয়। স্মার্টনেস কি কেবল সুন্দর পোশাক-পরিচ্ছদেই আসে? একদম নয়। বরং আপনার স্মার্টনেস লুকিয়ে আছে আপনার মস্তিষ্কে। নিজের বুদ্ধিমত্তার সঠিক ব্যবহার ও প্রয়োগই করে তোলা আপনাকে ব্যক্তিত্ববান ও আকর্ষণীয়। আর এই দারুণ বুদ্ধিমত্তা ও সচল মস্তিষ্কের রহস্য লুকিয়ে আছে আপনার প্রতিদিনের খাবারে!

আমরা মস্তিষ্ককে যতোটা কার্যক্ষম রাখবো ততোটাই আমাদের মস্তিস্ক সচল থাকবে। এবং মস্তিষ্কের জন্য জরুরী হলো সঠিক খাবার।

এমন কিছু খাবার রয়েছে যা আমাদের মস্তিষ্ককে সচল রাখতে বিশেষ ভাবে কার্যকর। মস্তিষ্ক সঠিক ভাবে পরিচালনা এবং বুদ্ধিমত্তা বাড়ানোর জন্যও রয়েছে অনেক খাবার। চলুন তবে চিনে নেয়া যাক বুদ্ধিমত্তা বাড়াতে কার্যকর ৮ টি খাবারকে।

মাছ: মাছ মস্তিষ্ক সচল রাখতে বিশেষভাবে কার্যকরী একটি খাবার। গবেশনায় দেখা যায় যারা প্রায়ই খাদ্যতালিকায় মাছ রাখেন তাদের মস্তিষ্কের নিউরন বেশ কর্মক্ষম থাকে। তাই বুদ্ধিমত্তা বাড়াতে খাদ্যতালিকায় রাখুন মাছ।

ওটস: ওটস খেতে বেশি ভালো না লাগলেও এটি বেশ ভালো একটি সকালের নাস্তা। ওটস অনেকটা সময় ধরে মস্তিস্ককে সঠিকভাবে কার্যক্ষম রাখতে সক্ষম। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা অনেকেই মস্তিষ্কের উন্নতির জন্য সকালের নাস্তায় ওটস রাখার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

বাদাম: অনেকেই সকালের নাস্তার পর কিংবা বিকালের নাস্তায় নানান ধরণের স্নাকস খেয়ে থাকেন যার বেশীরভাগই থাকে স্বাস্থ্যের জন্য হানিকারক। এই অস্বাস্থ্যকর স্নাকস এর পরিবর্তে ১ মুঠো বাদাম খেয়ে নিন। বাদামের ফ্যাট আপনার চিন্তা করার ক্ষমতা বাড়ায়।

চকলেট: ডেজার্ট হিসেবে অনেকেই চকলেট এবং চকলেটের তৈরি খাবার খেয়ে থাকেন। কিন্তু এই চকলেট শুধু সুস্বাদু খাবারই নয়, এটি আমাদের মস্তিষ্কের জন্য বেশ ভালো একটি খাদ্য উপাদান।

চকলেট খেলে আমাদের দেহ ও মস্তিষ্কে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পায়। ফলে আমাদের মস্তিষ্ক থাকে সচল। তবে চকলেটের ক্ষেত্রে ডার্ক চকলেট যেগুলোতে কোকোর মাত্রা বেশি থাকে সেগুলো খাওয়া ভালো।

ডিম: ডিম আমাদের দেহে প্রোটিনের ঘাটতি পূরণ করে তা আমরা অনেকেই জানি। এছাড়াও ডিমে রয়েছে আমাদের মস্তিষ্কের উন্নয়নে কার্যকর উপাদান ক্লোরিন। এই উপাদানটি আমাদের মস্তিস্ককে সচল এবং স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধিতে অনেক বেশি কার্যকর।

গ্রিন টি ও কফি: সকালে ঘুম থেকে উঠে অনেকেই চা পান করেন। কিন্তু সাধারন চায়ের বদলে গ্রিন টি পান করার অভ্যাস আপনার বুদ্ধিমত্তা বাড়াতে সাহায্য করবে।

গ্রিন টির অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট মস্তিষ্কের নতুন নিউরন তৈরিতে সহায়ক। এছাড়া কফিও পান করতে পারেন। কফির ক্যাফেইন আমাদের মস্তিস্ককে সতেজ রাখতে বেশ কার্যকর। এতে করে আমাদের মস্তিস্ক স্মৃতিবিচ্যুতির যেকোনো রোগ থেকে দূরে থাকে।

পানি: পানি পান করা আমাদের দেহের জন্য অনেক বেশি জরুরী। পানির অভাবে আমাদের মস্তিষ্ক স্বাভাবিক কাজ করার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে। ডিহাইড্রেশন আমাদের মস্তিষ্কের জন্য অনেক বেশি ক্ষতিকর। তাই প্রতিদিন নিয়মিত ৬-৮ গ্লাস পানি পান করুন।

সবুজ শাকসবজি: পালং শাক, বাঁধাকপি, পাতাকপি, ব্রকলি ইত্যাদি সবুজ শাকসবজি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ যা মস্তিষ্ককে উদ্দীপিত করতে বিশেষভাবে কার্যকর। এতে মস্তিষ্ক থাকে সচল। তাই প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় রাখুন প্রচুর পরিমানে সবুজ শাকসবজি।

লেখাটি পছন্দ হইলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

নিয়মিত সুন্দর সুন্দর টিপস পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ এ অ্যাক্টিভ থাকুন।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/তু/অ/মু

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top