তৃতীয় প্রান্তিকে ইপিএসে শীর্ষে রয়েছে যারা

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত জুন ক্লোজিং হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে অধিকাংশই তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারী’১৮–মার্চ’১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এর মধ্যে বেশিরভাগ কোম্পানি আগের বছরের তুলনায় শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে। সবচেয়ে বেশি ও ভাল ইপিএস দিয়েছে ২০ কোম্পানি। কোম্পানিগুলো হলো- মুন্নু সিরামিক, ফার্মা এইডস, বিডি থাই অ্যালুমিনিয়াম, আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ, মেঘনা সিমেন্ট, মুন্নু জুট স্ট্যাফলার্স, স্টাইল ক্রাফট, হামিদ ফেব্রকিস, এস আলম কোল্ড‌রোল্ড ষ্টীলস্ , রহিম টেক্সটাইল, আজিজ পাইপস, ইস্টার্ন কেবলস, বিএসআরএম লিমিটেড, ম্যাকসন্স স্পিনিং, বিবিএস ক্যাবলস, ড্রাগণ সোয়েটার অ্যান্ড স্পিনিং, এইচআর টেক্সটাইল, মেঘনা পেট্রোলিয়াম এবং বিডি ল্যাম্পস লিমিটেড। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্রে মতে, কোম্পানিগুলোর মধ্যে আগের বছরের তুলনায় সবচেয়ে বেশি ইপিএস বেড়েছে মুন্নু সিরামিকের। তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩০ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.০২ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.২৮ বা ১৪০০ শতাংশ।

মুন্নু জুট স্ট্যাফলার্স শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৪৩ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.২৩ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ১.২০ টাকা বা ৫২১.৭৩ শতাংশ।

রহিম টেক্সটালের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৪৩ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.৭৬ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ২.৬৭ টাকা বা ৩৫১.৩১ শতাংশ।

ইস্টার্ন কেবলসের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪৬ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.১১ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.৩৫ টাকা বা ৩১৮.১৮ শতাংশ।

আজিজ পাইপসের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.২৫ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.০৬ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.১৯ টাকা বা ৩১৬.৬৬ শতাংশ।

ড্রাগণ সোয়েটার অ্যান্ড স্পিনিংয়ের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৬৬ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.১৬ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.৫০ টাকা বা ৩১২.৫০ শতাংশ।

ম্যাকসন্স স্পিনিংয়ের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.১৫ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.০৫ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.১০ টাকা বা ২০০ শতাংশ।

হামিদ ফেব্রকিসের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫২ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.১৮ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.৩৪ টাকা বা ১৮৮.৮৮ শতাংশ।

বিবিএস ক্যাবলসের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৩১ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.৮৬ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ১.৪৫ টাকা বা ১৬৮.৬০ শতাংশ।

মেঘনা সিমেন্টের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৮ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.৩৪ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.৫৪ টাকা বা ১৫৮.৮২ শতাংশ।

বিএসআরএম লিমিটেডের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৭৮ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ১.৫৬ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ২.২২ টাকা বা ১৪২.৩০ শতাংশ।

তৃতীয় প্রান্তিকে ফার্মা এইডসের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪.২৯ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল  ২.২৭ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ২.০২ টাকা বা ৮৮.৯৮ শতাংশ।

স্টাইল ক্রাফটের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১২.১৮ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৬.৬৭ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ৬.৫১ টাকা বা ৮২.৬০ শতাংশ।

বিডি থাই অ্যালুমিনিয়ামের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.১৬ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.০৯ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.০৭ টাকা বা ৭৭.৭৭ শতাংশ।

এস আলম কোল্ড‌রোল্ড ষ্টীলসের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৭৪ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় ছিল ০.৪২ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.৩২ টাকা বা ৭৬.১৯ শতাংশ।

এইচআর টেক্সটাইলের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৩ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.৩৩ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.২০ টাকা বা ৬০.৬০ শতাংশ।

আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৬ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.৫৪ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.৩২ টাকা বা ৫৯.২৫ শতাংশ।

বিডি ল্যাম্পসের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৭০ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.৪৫ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.২৫ টাকা বা ৫৫.৫৫ শতাংশ।

মেঘনা পেট্রোলিয়ামের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬.৩৫ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৪.১৯ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ২.১৬ টাকা বা ৫১.৫৫ শতাংশ।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মন্তব্য

*

*

Top