বলিউডের বিতর্কিত যত ঘটনা

binodanশেয়ারবাজার ডেস্ক: বলিউড আর কনট্রোভার্সি যে হাত ধরাধরি করে চলে এ আর নতুন করে বলার কি আছে! কিন্তু তার মধ্যেই এমন কিছু স্ক্যান্ডাল বলিউডের রাজবাড়িতে ঘটেছিল যা রীতিমতো হইচই ফেলে দিয়েছিল। তবে শুধু স্ক্যান্ডাল না বলে সেক্স স্ক্যান্ডাল বলাই ভালো। যে দেশ এখনো মনে প্রাণে সাবালক হয়ে উঠতে পারেনি… যে দেশে সেক্স কথাটা জনসমক্ষে বলাও অপরাধের পর্যায়ে পৌঁছে যায়, সেই দেশেরই সিনেমা জগতে ছড়িয়ে রয়েছে এমনই দৃষ্টান্ত।

শাইনি আহুজার জীবনে সূর্যাস্ত : শুরুতেই তার অভিনয় তাক লাগিয়ে দিয়েছিল, কিন্তু একটি পদস্খলনেই হয়ে গেল সব মাটি। স্ত্রীর অবর্তমানে বাড়ির পরিচারিকার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। পরে অবশ্য সেই পরিচারিকা অভিযোগ করেন যে তাকে ধর্ষণ করেছিলেন নায়ক। আর তাতেই সূর্যাস্ত হলো শাইনির ক্যারিয়ারে।

বিপাশা সংবাদ : না কোনো অভিনেতা নন, তার নাম জড়িয়েছিল রাজনীতিবীদ অমর সিং-এর সঙ্গে। ফোনে যৌন আলোচনারত দুই হাই প্রোফাইল ব্যক্তির রেকর্ডিং ফাঁস হয়ে যায় খোলা বাজারে!

শক্তিনামা : চিরকাল ছবিতে চরিত্রহীনের চরিত্রেই অভিনয় করে এসেছেন। কথায় বলে না সঙ্গ দোষে লোহা ভাসে… এক্ষেত্রেও ঘটেছিল ঠিক তাই। একটি স্টিং অপারেশনে ধরা পড়লেন হাতে নাতে! একটি উঠতি নায়িকাকে ছবিতে সুযোগ করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের প্রস্তাব দিতে দেখা যায় তাকে সেই টেপে!

মধুর ছিল না সেই স্মৃতি : পরিচালক মধুর ভান্ডরকর যখন তার ছবির সাফল্যের আলোয় ঝলমল করছেন, তখনই তার বিরুদ্ধে উঠল এই গুরুতর অভিযোগ। তিনি নাকি টানা তিন বছর ধরে প্রীতি জৈন নামক এক উঠতি নায়িকার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক রেখে এসেছেন শুধু তার ছবিতে নায়িকা করবেন এই লোভ দেখিয়ে!

শাহিদ-করিনা চুম্বন : হ্যাঁ, চুম্বনরত লাভ বার্ডস-এর এমএমএস-এ ছেয়ে গিয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ইন্টারনেট! যদিও সে সবই এখন অতীত, তবুও সেই এমএমএস-টি নিঃসন্দেহে বেশ শোরগোল ফেলে দিয়েছিল।

 

শেয়ারবাজার/অ

আপনার মন্তব্য

Top