বাজারের ইতিবাচক আচরণে আশাবাদী বিনিয়োগকারীরা

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের নেতিবাচক প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন লেনদেনের শুরুতে সূচকের মিশ্র প্রবণতা থাকলেও শেষ ঘন্টার সেল প্রেসারে টানা নামতে থাকে সূচক। আজ মঙ্গলবার সূচকের পাশাপাশি কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। তবে টাকার অংকে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। আজ দিন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৬৪ কোটি টাকা। যা গত এক মাসের সর্বোচ্চ।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ৩০ এপ্রিল, ২০১৮ ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হয়েছিলো ছিলো ৫৯২ কোটি ৭৬ লাখ ২১ হাজার টাকা টাকা।

আজ দিন শেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৭ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৫৪০৯ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১২৫৩ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ৫ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ২০০৬ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৩৪টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৩৮টির, কমেছে ১৫১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৫টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ৫৬৪ কোটি ৩৫ লাখ ৩৩ হাজার টাকা।

এর আগের কার্যদিবস অর্থাৎ সোমবার ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৩৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৫৪১৭ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১২৫৭ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ১১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ২০১১ পয়েন্টে। আর ওইদিন লেনদেন হয়েছিল ৪৩১ কোটি ৬৫ লাখ ৯০ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ১৩২ কোটি ৬৯ লাখ ৪৩ হাজার টাকা।

এদিকে, দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সাধারণ মূল্য সূচক সিএসইএক্স ৬১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১০ হাজার ১২৪ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২২৩টি কোম্পানির ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৪৮টির, কমেছে ১৫৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৭টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ২২ কোটি ৭০ লাখ ৩৯ হাজার টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top