সুদহারের ব্যবধান ৪ শতাংশে নামিয়ে আনার নির্দেশ

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: ঋণের সুদহার কমিয়ে স্প্রেড (ব্যাংক ঋণ এবং আমানতের সুদহারের মধ্যে ব্যবধান) ৪ শতাংশ নামিয়ে আনতে ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বুধবার সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো এক সার্কুলারে এ নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

২০১৫ সালের ২৮ ডিসেম্বর জারি করা সার্কুলারে কার্ড ও ভোক্তাঋণ ছাড়া অন্যান্য খাতে ঋণ এবং আমানতের গড়ভারিত সুদ হারের ব্যবধান (স্প্রেড) ৫ শতাংশের মধ্যে সীমিত রাখার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছিল।

বুধবার সেই সার্কুলার পরিবর্তন করে বলা হয়েছে, সাম্প্রতিক সময়ে লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, ব্যাংকগুলো বিভিন্ন প্রকার ঋণের সুদহার ক্রমাগতভাবে বৃদ্ধি করছে। ঋণের সুদহার অযৌক্তিক মাত্রায় বৃদ্ধি করা হচ্ছে যা উদ্বেগজনক।

“এ প্রেক্ষিতে উৎপাদনশীল খাতসহ বিভিন্ন খাতে ঋণের সুদহার যৌক্তিক পর্যায়ে নির্ধারণের লক্ষ্যে ক্রেডিট কার্ড ও ভোক্তাঋণ ছাড়া অন্যান্য খাতে ঋণ এবং আমানতের গড়ভারিত সুদ হারের ব্যবধান ৪ শতাংশের মধ্যে সীমিত রাখার জন্য আপনাদেরকে নির্দেশনা দেয়া যাচ্ছে।”

ব্যাংকগুলোর সুদহার স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি।বিশেষ করে নতুন ব্যাংকগুলো বেশি সুদে ঋণ বিতরণ করছে।

এপ্রিল মাসে বেসরকারি ব্যাংক মালিকদের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যাংক ব্যাংক ঋণের সুদহার কমানোর কথা বলেছিলেন।

ঋণ বিতরণে সুদ হার এক অংকে নামিয়ে রাখতে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে নির্দেশনা দেওয়া হলেও তা মানছে না বেশিরভাগ ব্যাংক। স্প্রেড নির্ধারণেও ব্যাংকগুলো নির্দেশনা মানছে না।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্যে দেখা যায়, নতুন বাণিজ্যিক ব্যাংকের মধ্যে সর্বোচ্চ স্প্রেড রাখছে মধুমতি ব্যাংক। ব্যাংকটি ৭ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ হারে আমানত সংগ্রহ করে বিতরণ করছে ১২ দশমিক ৯১ শতাংশ হারে। স্প্রেড হার ৫ দশমিক ৮২ শতাংশ পয়েন্ট।

এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক ৮ দশমিক ৯৮ শতাংশ হারে আমানত সংগ্রহ করে ১৩ দশমিক ৬৩ শতাংশ হারে বিতরণ করছে; স্প্রেড হার ৪ দশমিক ৬৫ শতাংশ।

এনআরবি ব্যাংক ৬ দশমিক ৮৭ শতাংশ হারে সংগ্রহ করে বিতরন করছে ১১ দশমিক ৮১ শতাংশ হারে, স্প্রেড ৪ দশমিক ৯৪ শতাংশ হারে।

ইউনিয়ন ব্যাংক ৮ দশমিক ৫৫ শতাংশ হারে সংগ্রহ করে ১২ দশমিক ৪২ শতাংশ বিতরন করে; স্প্রেড হার ৩ দশমিক ৮৭ শতাংশ।

আলোচিত ফারমার্স ব্যাংক ৮ দশমিক ৫৩ শতাংশ হারে সংগ্রহ করে বিতরণ ১৩ দশমিক ২৬ শতাংশ হারে; স্প্রেড হার ৪ দশমিক ৭৩ শতাংশ।

মিডল্যান্ড ব্যাংক ৭ দশমিক ৪৭ শতাংশ হারে সংগ্রহ করে বিতরণ করছে ১১ দশমিক ৫ শতাংশ হারে; স্প্রেড হার ৪ দশমিক শুন্য ৩ শতাংশ।

মেঘনা ব্যাংক ৭ দশমিক ৬৪ শতাংশ হারে সংগ্রহ করে বিতরণ করছে ১২ দশমিক ৬৫ শতাংশ হারে; স্প্রেড হার ৫ দশমিক শুন্য ১ শতাংশ।

সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার ব্যাংক ৭ দশমিক ৬৬ শতাংশ হারে সংগ্রহ করে বিতরন করছে ১২ দশমিক ৬৪ শতাংশ হারে; স্প্রেড হার ৪ দশমিক ৯৪ শতাংশ।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top