হতাশায় ১২ খাতের বিনিয়োগকারীরা: গেল বছর কোন খাতে কি পরিমাণ লেনদেন হলো দেখে নিন

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: ২০১৭-১৮ অর্থবছরে পুঁজিবাজারের লেনদেনে সবচেয়ে বেশি অবদান রেখেছে ব্যাংক খাত। এর পরের অবস্থানে রয়েছে প্রকৌশল, টেক্সটাইল, ওষুধ ও রসায়ন, ফিন্যান্সিয়াল ইন্সটিউট, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, খাদ্য ও আনুষঙ্গিক, বিবিধ, টেলিযোগাযোগ, আইটি, বীমা, সিমেন্ট, সিরামিক, চামড়া, মিউচ্যুয়াল ফান্ড, সেবা ও আবাসন, ভ্রমণ ও অবকাশ, পাট, কাগজ ও মুদ্রণ এবং বন্ড। ডিএসই’র এই ২০ খাতের মধ্যে ৮ খাতে লেনদেন বাড়লেও কমেছে ১২ খাতে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, গেল বছর ব্যাংক খাতে মোট ৩৯ হাজার ৪০ কোটি ১২ লাখ ৯৯ হাজার ২৪১ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ২৪.৫৪ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে ব্যাংক খাতে লেনদেন হয়েছিল ২৪ হাজার ৭৪৬ কোটি ৫২ লাখ ৫৬ হাজার ৩৯৭ টাকা যা মোট লেনদেনের ১৩.৭১ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর ব্যাংক খাতে লেনদেন বেড়েছে ১০.৮৩ শতাংশ।

প্রকৌশল খাতে মোট ২০ হাজার ১৬০ কোটি ৩৫ লাখ ৮ হাজার ৯২৬ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ১২.৬৭ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে প্রকৌশল খাতে লেনদেন হয়েছিল ২৭ হাজার ৪২৬ কোটি ২৩ লাখ ৮৪ হাজার ৪২০ টাকা যা মোট লেনদেনের ১৫.১৯ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর প্রকৌশল খাতে লেনদেন কমেছে ২.৫২ শতাংশ।

টেক্সটাইল খাতে মোট ১৮ হাজার ২০৮ কোটি ৭৯ লাখ ২৬ হাজার ৯৬৭ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ১১.৪৫ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে টেক্সটাইল খাতে লেনদেন হয়েছিল ২১ হাজার ৯৪৭ কোটি ৭৬ লাখ ১০ হাজার ৯৯৪ টাকা যা মোট লেনদেনের ১২.১৬ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর টেক্সটাইল খাতে লেনদেন কমেছে ০.৭১ শতাংশ।

ওষুধ ও রসায়ন খাতে মোট ১৬ হাজার ৫৮৯ কোটি ৯৯ লাখ ৭৮ হাজার ৯৭৭ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ১০.৪৩ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ২২ হাজার ৯০১ কোটি ৯৪ লাখ ৮৩ হাজার ৫৮২ টাকা যা মোট লেনদেনের ১২.৬৯ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর ওষুধ ও রসায়ন খাতে লেনদেন কমেছে ২.২৬ শতাংশ।

ফিন্যান্সিয়াল ইন্সটিটিউট খাতে মোট ১২ হাজার ৬৩১ কোটি ৭৫ লাখ ৮৭ হাজার ৯৭৮ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ৭.৯৪ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ১৭ হাজার ৯৩ কোটি ৮৬ লাখ ৯৬ হাজার ১৪৪ টাকা যা মোট লেনদেনের ৯.৪৭ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর ফিন্যান্সিয়াল ইন্সটিটিউটে লেনদেন কমেছে ১.৫৩ শতাংশ।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে মোট ১১ হাজার ৬৯৪ কোটি ৯৯ লাখ ৯২ হাজার ৯৫৩ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ৭.৩৫ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ২০ হাজার ৮০৪ কোটি ৭ লাখ ৫৭ হাজার ৬৫৬ টাকা যা মোট লেনদেনের ১১.৫২ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন কমেছে ৪.১৭ শতাংশ।

খাদ্য ও আনুষঙ্গিক খাতে মোট ৬ হাজার ৭৩২ কোটি ৩ লাখ ৯২ হাজার ৪৬৭ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ৪.২৩ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ৬ হাজার ৪৪৯ কোটি ৭৯ লাখ ৪৭ হাজার ৪৬৫ টাকা যা মোট লেনদেনের ৩.৫৭ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন বেড়েছে ০.৬৬ শতাংশ।

বিবিধ খাতে খাতে মোট ৬ হাজার ৫৬০ কোটি ৮৫ লাখ ৭৭ হাজার ১৪২ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ৪.১২ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ৯ হাজার ৮৭৬ কোটি ৪৩ লাখ ৪৯ হাজার ৮৬৩ টাকা যা মোট লেনদেনের ৫.৪৭ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন কমেছে ১.৩৫ শতাংশ।

টেলিযোগাযোগ খাতে মোট ৪ হাজার ২৩৩ কোটি ৬৯ লাখ ২১ হাজার ১৯৩ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ২.৬৬ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ২ হাজার ৬৯০ কোটি ৫৩ লাখ ৯৪ হাজার ২২ টাকা যা মোট লেনদেনের ১.৪৯ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন বেড়েছে ১.১৭ শতাংশ।

আইটি খাতে মোট ৩ হাজার ৮১১ কোটি ৪৮ লাখ ৫১ হাজার ৮৮৯ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ২.৪০ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ৩ হাজার ৯৯৩ কোটি ২৪ লাখ ৩৪ হাজার ৫১৭ টাকা যা মোট লেনদেনের ২.২১ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন কমেছে ০.১৯ শতাংশ।

বীমা খাতে মোট ৩ হাজার ৬৯৮ কোটি ৬৪ লাখ ৪৮ হাজার ২৮৩ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ২.৩২ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ৩ হাজার ৪৮২ কোটি ৫১ লাখ ৪০ হাজার ২৮৩ টাকা যা মোট লেনদেনের ১.৯৩ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন কমেছে ০.৩৯ শতাংশ।

সিমেন্ট খাতে মোট ৩ হাজার ৩৪৫ কোটি ৬৩ লাখ ৬৩ হাজার ৫২৩ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ২.১০ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ৫ হাজার ২৪১ কোটি ৯ লাখ ৯৪ হাজার ৫৮১ টাকা যা মোট লেনদেনের ২.৯০ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন কমেছে ০.৮০ শতাংশ।

সিরামিক খাতে মোট ২ হাজার ৮৫১ কোটি ৫২ লাখ ১৮ হাজার ৭৮৯ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ১.৭৯ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৮২০ কোটি ৬০ লাখ ৫৫ হাজার ৬০৯ টাকা যা মোট লেনদেনের ১.০১ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন বেড়েছে ০.৭৮ শতাংশ।

চামড়া খাতে মোট ২ হাজার ৮০৬ কোটি ৯০ লাখ ৩১ হাজার ৯০৫ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ১.৭৬ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ২ হাজার ২০৩ কোটি ৬৫ লাখ ৬১ হাজার ৭৯৭ টাকা যা মোট লেনদেনের ১.২২ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন বেড়েছে ০.৫৪ শতাংশ।

মিউচ্যুয়াল ফান্ড খাতে মোট ২ হাজার ২৬৮ কোটি ১৯ লাখ ৪২ হাজার ১৩৮ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ১.৪৩ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ৩ হাজার ২৩ কোটি ৫৮ লাখ ৪২ হাজার ৫৯৯ টাকা যা মোট লেনদেনের ১.৬৭ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন কমেছে ০.২৪ শতাংশ।

সেবা ও আবাসন খাতে মোট ১ হাজার ৮৬৬ কোটি ৭২ লাখ ৯ হাজার ৬৯৪ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ১.১৭ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ৩ হাজার ৮১৭ কোটি ৩ লাখ ১১ হাজার ৪৬০ টাকা যা মোট লেনদেনের ২.১১ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন কমেছে ০.৯৪ শতাংশ।

ভ্রমণ ও অবসান খাতে মোট ১ হাজার ৫১৭ কোটি ৯৮ লাখ ২৯ হাজার ৭২২ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ০.৯৫ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ২ হাজার ৩৪৩ কোটি ৩২ লাখ ২৩ হাজার ৬৫০ টাকা যা মোট লেনদেনের ১.৩০ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন কমেছে ০.৩৫ শতাংশ।

পাট খাতে মোট ৬৯৯ কোটি ৩৯ লাখ ৭২ হাজার ১১১ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ০.৪৪ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ৩০৫ কোটি ৯৭ লাখ ৮৯ হাজার ২৩৭ টাকা যা মোট লেনদেনের ০.১৯ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন বেড়েছে ০.২৫ শতাংশ।

কাগজ ও মুদ্রণ খাতে মোট ৩০৭ কোটি ২ লাখ ৯৯ হাজার ৮০২ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ০.১৯ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ২৭৫ কোটি ৭৮ লাখ ১৪ হাজার ৪৯৪ টাকা যা মোট লেনদেনের ০.১৫ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন বেড়েছে ০.০৪ শতাংশ।

সর্বশেষ বন্ড খাতে মোট ৫৯ কোটি ৫ লাখ ৬২ হাজার ৭৪১ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে যার মোট লেনদেনের ০.০৪ শতাংশ। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ বছরে এ খাতে লেনদেন হয়েছিল ৩৩ কোটি ২০ লাখ ২৫ হাজার ৩০৭ টাকা যা মোট লেনদেনের ০.০২ শতাংশ। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ বছর লেনদেন বেড়েছে ০.০২ শতাংশ।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

Top