বাজাজ মোটর সাইকেলের যন্ত্রাংশ বাজারজাত করবে রানার

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: বাংলাদেশে এখন থেকে বাজাজ মোটরসাইকেলের যন্ত্রাংশ বাজারজাত করবে দেশীয় প্রতিষ্ঠান রানার অটোমোবাইলসের সহযোগী প্রতিষ্ঠান রানার ট্রেডপার্ক। মোটরসাইকেলের পাশাপাশি এলপিজি ও ডিজেলচালিত থ্রি হুইলারের আসল যন্ত্রাংশও বাংলাদেশে বাজারজাত করবে প্রতিষ্ঠানটি।

রানার অটোমোবাইলসের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ সব তথ্য জানিয়ে বলা হয়েছে, গত ফেব্রুয়ারিতে এ বিষয়ে দুই প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি হয়েছে। এই চুক্তির আওতায় রানার ট্রেড পার্ক লিমিটেডের মাধ্যমে সারা দেশে বাজাজের আসল যন্ত্রাংশ পাওয়া যাবে। এরই মধ্যে রানারের ওয়্যারহাউজে এসব যন্ত্রাংশ এসে গেছে।

রানার গ্রপ অফ কোম্পানিজের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান খান বলেন, ভারতের শীর্ষ অটোমেটিভ ব্র্যান্ড বাজাজের সঙ্গে বাংলাদেশের শীর্ষ অটোমোবাইল ম্যানুফ্যাকচারিং ব্র্যান্ডের এই সম্পর্ক দুই প্রতিষ্ঠানের ব্যবসায়িক প্রবৃদ্ধি ও বাজার সম্প্রসারণে ভূমিকা রাখবে। এ দেশের রাস্তায় ১০ লাখের বেশি মোটরসাইকেল ও থ্রি হুইলার চলাচল করে যেখানে উন্নতমানের বিক্রয়োত্তর সেবায় আসল যন্ত্রাংশের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। রানার ট্রেড পার্ক লিমিটেড সেই চাহিদা পূরণে চেষ্টা করবে।

রানার ট্রেড পার্ক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুকেশ শর্মা বলেন, আগামী ৫ থেকে ৬ মাসের মধ্যে রানার সারা দেশের প্রত্যেকটি প্রান্তে বাজাজ মোটরসাইকেলের ‘জেনুইন পার্টস’ পৌছে দেবে। এক্ষেত্রে রানার নানা উদ্ভাবনী পদ্ধতি অবলম্বন করবে। ডিস্ট্রিবিউশন চ্যানেল ছাড়াও এসব পার্টস গ্রাহকরা মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমেও কিনতে পারবেন। এসব পার্টের ডেলিভারি সর্বোচ্চ ২৪ ঘন্টার মধ্যে দেওয়া হবে।

বাজাজের তিন চাকার মালমাল পরিবহন যান ও চার চাকার যাত্রী পরিবহন গাড়ি ‘কিউট’ বাজারে আনে রানার অটোমোবাইলস। বাজাজের নতুন এসব যানবাহনে জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা যাবে তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাস (এলপিজি) ও ডিজেল।

উল্লেখ্য, আজ শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি রানার অটোমোবাইলকে বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে ১০০ কোটি টাকা তোলার জন্য বিডিংয়ের অনুমোন দিয়েছে।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

Top