এসকে ট্রিমস থেকে ৩২৪ শতাংশ মুনাফা পেয়েছে বিনিয়োগকারীরা

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: লেনদেন শুরুর প্রথম দিনে শেয়ারবাজারে সদ্য তালিকাভুক্ত হওয়া এসকে ট্রিমস অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ার থেকে ৩২৪ শতাংশ মুনাফা পেয়েছে বিনিয়োগকারীরা। আজ সকাল সাড়ে ১০টায় দেশের উভয় শেয়ারবাজারে আনুষ্ঠিানিকভাবে শুরু হয় এ কোম্পানির লেনদেন। এদিন ‘এন’ ক্যাটাগরির আওতায় লেনদেন শুরু করা  এসকে ট্রিমসের ট্রেডিং কোড- “SKTRIMS”।  ডিএসইতে কোম্পানি কোড-99642। আর সিএসইতে কোম্পানি কোড হবে 32023।

জানা গেছে, কোম্পানিটির ওপেনিং শেয়ার দর ১০ টাকা হলেও ৪৫ টাকা দিয়ে লেনদেন শুরু হয়। প্রথম দিনে কোম্পানিটির শেয়ার দর সর্বনিম্ন ৩৫.৩০ টাকায় এবং সর্বোচ্চ ৫৫ টাকায় লেনদেন হয়েছে। তবে দিন শেষে কোম্পানিটির শেয়ার দর দাঁড়ায় ৪২.৪০ টাকা। অর্থাৎ প্রথম দিনে কোম্পানিটির শেয়ার দর থেকে ৩২.৪০ টাকা বা ৩২৪ শতাংশ মুনাফা পেয়েছে বিনিয়োগকারীরা।

ডিএসইতে আজ কোম্পানিটির মোট ৮১ লাখ ৯৬ হাজার ১১৮টি শেয়ার ১৫ হাজার ১৭৩ বার হাত বদল হয়েছে। যার বাজার দর ৩৩ কোটি ২২ লাখ ১০ হাজার টাকা।

এদিকে চট্টগ্রাম স্টক একচেঞ্জে (সিএসই) এসকে ট্রিমসের ২৩ লাখ ৩৫ হাজার ৮৪৬টি শেয়ার মোট ৫ হাজার ৯৯২ বার হাত বদল হয়। কোম্পানিটির শেয়ার দর সর্বনিম্ন ৩৬ টাকায় এবং সর্বোচ্চ ৪৫ টাকায় লেনদেন হয়েছে। তবে দিন শেষে কোম্পানিটির শেয়ার দর দাঁড়ায় ৩৯.৮০ টাকা। অর্থাৎ প্রথম দিনে কোম্পানিটির শেয়ার দর থেকে ২৯.৮০ টাকা বা ২৯৮ শতাংশ মুনাফা পেয়েছে বিনিয়োগকারীরা।

এর আগে এসকে ট্রিমসের আইপিও লটারিতে বরাদ্দ পাওয়া শেয়ার সিডিবিএলের মাধ্যমে গত রোববার (৮ জুলাই) বিনিয়োগকারীদের নিজ নিজ বিও হিসাবে জমা হয়। আর গত ১২ জুন সকাল সাড়ে ১০ টায় ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউট, আইইবি মিলিনায়তন, রমনা, ঢাকায় কোম্পানিটির লটারির ড্র’র অনুষ্ঠিত হয়। আইপিওতে এ কোম্পানির ৩০ গুনের বেশি আবেদন জমা পড়েছে বলে জানা গেছে।

জানা যায়, গত ১৪ মে থেকে ২২ মে পর্যন্ত এ কোম্পানির আইপিওতে বিনিয়োগকারীরা আবেদন করেন। এর আগে গত ২০ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার বিএসইসির ৬২২তম কমিশন সভায় এর অনুমোদন দেয়া হয়। সভায় কোম্পানিকে ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ৩ কোটি শেয়ার ইস্যু করার অনুমোদন দিয়েছে কমিশন।

কোম্পানিটি আইপিওর মাধ্যমে ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ৩ কোটি শেয়ার ইস্যু করে পুঁজিবাজার থেকে ৩০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। উত্তোলিত অর্থ কোম্পানিটি যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জাম ক্রয়, ভবন নির্মাণ এবং আইপিও খাতে খরচ করবে।

৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ১২.৭৯ টাকা । এছাড়া, বিগত তিন বছরের অার্থিক প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) গড় হারে হয়েছে ১.৩১ টাকা।কোম্পানিটি যন্ত্রপাতি ক্রয়, ভবন নির্মান এবং আইপিওর খরচ বাবদ এ টাকা ব্যয় করবে।

এসকে ট্রিমস অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ তৈরি পোশাক খাতের জন্য সুতা, ইলাস্টিক, পলি, কার্টন, ফটো কার্ড, ব্যাক বোর্ড, বার কোড, হ্যাং ট্যাগ, টিস্যু পেপার, গাম টেপ ইত্যাদি উৎপাদন ও রফতানি করে। গাজীপুরের টঙ্গীতে অবস্থিত কারখানায় ২০১৪ সালের জুনে বাণিজ্যিক উৎপাদনে যায় তারা।

উল্লেখ্য, কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে ইম্পেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড এবং বিএমএসএল ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top