৪০ কোটি টাকা উত্তোলনে আইপিও-তে আসতে চায় আইআইডিএফসি

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: আর্থিক প্রতিষ্ঠান ইন্ডাস্ট্রিয়াল এন্ড ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট ফিন্যান্স কোম্পানি লি: (আইআইডিএফসি) প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে ৪০ কোটি টাকা সংগ্রহে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হতে চায়।

এর জন্য ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে এএএ ফাইন্যান্স এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লি: এর সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়েছে। এএএ ফাইন্যান্সের পক্ষে এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওবায়দুর রহমান এবং কোম্পানির পক্ষে ব্যবস্থপনা পরিচালক গোলাম সরোয়ার ভুইয়া চুক্তি স্বাক্ষর করেন।

এ সময় এএএ ফাইন্যান্সের চেয়ারম্যান খাজা আরিফ আহমেদ, পরিচালক ও সিওও মোহাম্মদ ফেরদৌস মজিদ, আইআইডিএফসি’র প্রধন অর্থ কর্মকর্তা ও সচিব শামিম আহমেদ সহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে গোলাম সরোয়ার বলেন, রেগুলেটরি রিকয়্যারমেন্ট পূরণের জন্য আমরা আইপিও’র মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে ৪০ কোটি টাকা সংগ্রহ করতে চাই। এর জন্য ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান এএএ ফাইন্যান্সের সঙ্গে চুক্তি করেছি। পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির ফলে আমাদের ভ্যালু বাড়বে। পুঁজিবাজারের সহায়তায় আশা করি আমরা শীর্ষ আর্থিক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হতে পারবো।

তিনি আরো বলেন, আমাদের কোম্পানিতে বিনিয়োগ করে বিনিয়োগকারীরা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন না। কারণ আমাদের মালিকানায় ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বীমা কোম্পানি রয়েছে। তাদেরই প্রতিনিধিরা এখানে বোর্ড অব ডিরেক্টর্স হিসেবে আছেন। তাই ব্যবসায়িক দিক থেকে আমাদের পর্ষদ বেশ শক্ত অবস্থায় রয়েছে। আশা করছি আগামী ২০১৯ সালের মধ্যে আমাদের আইপিও বাজারে আসতে পারবে।

এএএ ফাইন্যান্সের চেয়ারম্যান খাজা আরিফ বলেন, শেযারবাজারে এএএ ফাইন্যান্স সব সময় ভাল কোম্পানি এনেছে। আমাদের হাত ধরে যারা এসেছে তারা বেশ ভাল সুনামের সঙ্গে রয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আইআইডিএফসি’র সঙ্গে চুক্তি করেছি আমরা। কারণ কোম্পানিটির আর্থিক সক্ষমতা বিশেষ করে এর ব্যবস্থাপনা ও মালিকানার ভিত অত্যন্ত ভাল অবস্থানে আছে।

এএএ ফাইন্যান্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওবায়দুর রহমান বলেন, আমরা শেয়ারবাজারে সবসময় ভাল ইস্যু আনতে চাই। আর এ বিষয়ে এএএ সুনামের সঙ্গে কাজ করছে। আইআইডিএফসি একটি ভাল কোম্পানি। শেয়ারবাজারে কোম্পানিটি ভাল সুনাম তৈরি করবে।

আইআইডিএফসি’র নিরীক্ষা প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ২০১৭ বছর শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৮০ টাকা এবং এককভাবে ইপিএস ১.৪৪ টাকা। কোম্পানিটির রিটার্ন অন অ্যাভারেজ ইক্যুইটি ১০.৫৬ শতাংশ। রিটার্ন অন অ্যাসেট (আরওএ) ১ শতাংশ এবং রিটার্ন অন ইনভেস্টমেন্ট (আরওআই) ১১.২০ শতাংশ।

কোম্পানিটির ‍দুটি সাবসিডিয়ারি প্রতিষ্ঠান আইআইডিএফসি ক্যাপিটাল মার্চেন্ট ব্যাংক হিসেবে এবং আইআইডিএফসি সিকিউরিটিজ ব্রোকারেজ হাউজ হিসেবে পুঁজিবাজারে ব্যবসা করছে।

কোম্পানিটির মালিকানায় রয়েছে, জনতা ব্যাংক, সোনালী ব্যাংক, মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, দ্যা সিটি ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া, ওয়ান ব্যাংক, সাউথইস্ট ব্যাংক, আইসিবি, ইস্টল্যান্ড ইন্স্যুরেন্স, ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স এবং প্রগতি ইন্স্যুরেন্স।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top