দাম দিয়ে মিলছে না ৯ কোম্পানির শেয়ার

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক একচেঞ্জে (ডিএসই) তালিকাভূক্ত ৭ কোম্পানি শেয়ার ক্রয় করতে ক্রেতা দেখা গেলেও বিক্রেতার ঘরে শেয়ার বিক্রয় করতে বিক্রেতার কোন দেখা পাওয়া যায়নি। এর ফলে লেনদেনের দেড় ঘন্টায় কোম্পানিগুলো বিক্রেতার সংকটে হল্টেড হয়। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, দুপুর ১২টার দিকে ইউনাইটেড এয়ারের ক্রেতার ঘরে ১৮ লাখ ৮২ হাজার ৩২১টি শেয়ার ৪.৪০ টাকায় কেনার আবেদন থাকলেও বিক্রয়ের ঘরে কাউকে দেখা যায়নি। এমনকি কোম্পানিটি আজ সার্কিট ব্রেকার স্পর্শ করেছে। আলোচিত সময়ে কোম্পানির ১৫ লাখ ২১ হাজার ১৫২টি শেয়ার ৩১৫ বার লেনদেন হয়। এ সময় কোম্পানির শেয়ার দর ১০ শতাংশ বেড়ে সর্বশেষ ৪.৪০ টাকায় লেনদেন হয়।

কেডিএস এক্সসরিজের ক্রেতার ঘরে ১ লাখ ৭৮ হাজার ৫২১টি শেয়ার ১০৭.১০ টাকায় কেনার আবেদন থাকলেও বিক্রয়ের ঘরে কাউকে দেখা যায়নি। আলোচিত সময়ে কোম্পানির ৩০ লাখ ১৫ হাজার ৪৯২টি শেয়ার ২ হাজার ৩৩ বার লেনদেন হয়। এ সময় কোম্পানির শেয়ার দর ৯.৯৫ শতাংশ বেড়ে সর্বশেষ ১০৭.১০ টাকায় লেনদেন হয়।

ইমাম বাটনের ক্রেতার ঘরে ৩৩ হাজার ৭৯৫টি শেয়ার ৩৩.৩০ টাকায় কেনার আবেদন থাকলেও বিক্রয়ের ঘরে কাউকে দেখা যায়নি। আলোচিত সময়ে কোম্পানির ২৭ হাজার ৮৭০টি শেয়ার ৭০ বার লেনদেন হয়। এ সময় কোম্পানির শেয়ার দর ৯.৯০ শতাংশ বেড়ে সর্বশেষ ৩৩.৩০ টাকায় লেনদেন হয়।

দুলামিয়া কটনের ক্রেতার ঘরে ৯ হাজার ৯০৪টি শেয়ার ৩৫.৯০ টাকায় কেনার আবেদন থাকলেও বিক্রয়ের ঘরে কাউকে দেখা যায়নি। আলোচিত সময়ে কোম্পানির ১১ হাজার ১৮৬টি শেয়ার ৩৬ বার লেনদেন হয়। এ সময় কোম্পানির শেয়ার দর ৯.৭৮ শতাংশ বেড়ে সর্বশেষ ৩৫.৯০ টাকায় লেনদেন হয়।

সোনারগাঁও টেক্সটাইলের ক্রেতার ঘরে ৮৭ হাজার ৭০৫টি শেয়ার ২০.৩০ টাকায় কেনার আবেদন থাকলেও বিক্রয়ের ঘরে কাউকে দেখা যায়নি। আলোচিত সময়ে কোম্পানির ১ লাখ ১ হাজার ৯৩৩টি শেয়ার ১০৩ বার লেনদেন হয়। এ সময় কোম্পানির শেয়ার দর ৯.৭৩ শতাংশ বেড়ে সর্বশেষ ২০.৩০ টাকায় লেনদেন হয়।

ইবনে সিনার ক্রেতার ঘরে ১ লাখ ৪২ হাজার ১২৪টি শেয়ার ২৮৬.৭০ টাকায় কেনার আবেদন থাকলেও বিক্রয়ের ঘরে কাউকে দেখা যায়নি। আলোচিত সময়ে কোম্পানির ২ লাখ ৮৭ হাজার ৭৫২টি শেয়ার ৪৭৩ বার লেনদেন হয়। এ সময় কোম্পানির শেয়ার দর ৮.৭২ শতাংশ বেড়ে সর্বশেষ ২৮৬.৭০ টাকায় লেনদেন হয়।

রেনউইক যঞ্জেশ্বরের ক্রেতার ঘরে ৮ হাজার ৪৭৩টি শেয়ার ৮৬০.৭০ টাকায় কেনার আবেদন থাকলেও বিক্রয়ের ঘরে কাউকে দেখা যায়নি। আলোচিত সময়ে কোম্পানির ১৩ হাজার ১৮৬টি শেয়ার ২০৭ বার লেনদেন হয়। এ সময় কোম্পানির শেয়ার দর ৭.৪৯ শতাংশ বেড়ে সর্বশেষ ৮৬০.৭০ টাকায় লেনদেন হয়।

এ্যাম্বি ফার্মার ক্রেতার ঘরে ১০ হাজার ৫৬৪টি শেয়ার ৭১২ টাকায় কেনার আবেদন থাকলেও বিক্রয়ের ঘরে কাউকে দেখা যায়নি। আলোচিত সময়ে কোম্পানির ৪১ হাজার ৩৪৯টি শেয়ার ৩৪৪ বার লেনদেন হয়। এ সময় কোম্পানির শেয়ার দর ৭.৪৮ শতাংশ বেড়ে সর্বশেষ ৭১২ টাকায় লেনদেন হয়।

ইস্টার্ন লুব্রিকেন্টসের ক্রেতার ঘরে ১৮ হাজার ৮২৮টি শেয়ার ১৬৩৬.১০ টাকায় কেনার আবেদন থাকলেও বিক্রয়ের ঘরে কাউকে দেখা যায়নি। আলোচিত সময়ে কোম্পানির ১৩ হাজার ৩৪১টি শেয়ার ১৯১ বার লেনদেন হয়। এ সময় কোম্পানির শেয়ার দর ৬.২৪ শতাংশ বেড়ে সর্বশেষ ১৬৩৬.১০ টাকায় লেনদেন হয়।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মন্তব্য

Top