গুজবে প্রাথমিকভাবে লাভবান হলেও তা ধরে রাখা যায় না

শেয়ারবাজার ডেস্ক: পুঁজিবাজারে যে কোন সিকিউরিটিজ লেনদেন করার জন্য বাজার সম্পর্কে ধারণা থাকা জরুরী। ব্যবসায়ে ঝুঁকির পাশাপাশি এর ফলাফল সম্পর্কেও জানা জরুরী। বিবেচিত ঝুঁকি অনুযায়ী বিনিয়োগ করলে ক্ষতি হবার সম্ভাবনা কম থাকে। বাজারের সার্বিক সূচক দেখে নয় বরং ভালো সিকিউরিটিজ মূল্যায়ন এবং তার আর্থিক প্রতিবেদন যাচাই বাছাই করে বিনিয়োগ করতে হবে৷ পুঁজিবাজারে গুজবের বর্শবর্তী হয়ে হয়ত প্রাথমিকভাবে লাভবান হওয়া যায় কিন্তু সেই লাভ ধরে রাখা যায় না। আর শেয়ারবাজারে নিয়মিত লাভ করতে হলে যে বিষয়টি সবচেয়ে বেশী প্রয়োজন তা হলো শিক্ষা। আর শিক্ষিত বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণের মাধ্যমে সুষ্ঠু বাজার তৈরী হয়। ডিএসই’র ট্রেনিং একাডেমি কর্তৃক আয়োজিত ৫ দিনব্যাপী (৫-৯ আগস্ট ২০১৮ তারিখ) “Valuation of Securities” শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী দিনে (৯ আগস্ট, ২০১৮ তারিখে) প্রশিক্ষনার্থীদের মাঝে সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে ডিএসই’র পরিচালক মিনহাজ মান্নান ইমন এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, একজন বিনিয়োগকারীর বিনিয়োগের ক্ষেত্রে শেয়ারের ভ্যালুয়েশন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তুলনামূলক কম ঝুঁকি গ্রহণ করে অধিক মুনাফা অর্জনের জন্য সিকিউরিটিজ ভ্যালুয়েশনের মাধ্যমে শেয়ারে বিনিয়োগের কোন বিকল্প নেই। সব সিকিউরিটিজে বিনিয়োগ করলেই যে লাভবান হওয়া যাবে, তার কোনো নিশ্চয়তা নেই। সিকিউরিটিজ সমূহের মধ্যে মৌলভিত্তি সম্পন্ন সিকিউরিটিজে দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগ করলে লাভবান হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।

আর এই বিষয় গুলো জানানোই হলো এ প্রশিক্ষণ কর্মশালার মূখ্য উদ্দেশ্য। আমি আশা করি এই প্রশিক্ষণ কর্মশালাটি আপনাদের জ্ঞানকে আরও সমৃদ্ধ করবে যা ভবিষ্যতে আপনাদের কর্মক্ষেত্রে সহায়তা করবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন রির্সোস পার্সন অধ্যাপক মোহাম্মদ মুসা এবং ডিএসইর উপ-মহাব্যবস্থাপক ও ট্রেনিং একাডেমীর ইনচার্জ হোসনে আরা পারভীন।

শেয়ারবাজার‌নিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

Top