শেয়ার কারসাজিতে ডোরিন পাওয়ার: কঠোর অবস্থানে বিএসইসি

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিদ্যুৎ জ্বালানী খাতের কোম্পানি ডোরিন পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড সিস্টেমসের বিরুদ্ধে অ্যাকশন নিয়েছে নিয়ন্ত্রণ সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিজি অ্যান্ড একচেঞ্জে কমিশন (বিএসইসি) মূল্য সংবেদনশীল তথ্য প্রকাশের পূর্বে এবং নিষিদ্ধ সময়ে মধ্যে শেয়ার ক্রয়বিক্রয় করে সিকিউরিটজ  আইন অমান্য করায় কোম্পানিকে সর্তক কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদকে জরিমানা করেছে বিএসইসি আজ মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত কমিশনের  ৬৫৫তম সভায় জরিমানা করে নিয়ন্ত্রণ সংস্থা

জানা যায়, ডোরিন পাওয়ার জেনারেশনের কোম্পানির মূল্য সংবেদনশীল তথ্য এবং নিষিদ্ধ সময়ের মধ্যে শেয়ার ক্রয়বিক্রয় করে সিকিউরিটজ অ্যান্ড একচেঞ্জে কমিশন বিধিমালা ১৯৯৫ এর বিধি ()() ভঙ্গ করেছে। সিকিউরিটজ আইন আইন লঙ্গনের জন্য কমিশন সমৃক্ত ব্যাক্তিবর্গকে জরিমানা করেছে

এর মধ্যে ডোরিন পাওয়ার জেনারেশনের সাবসিডিয়ারী প্রতিষ্ঠান ঢাকা নর্দান পাওয়ার জেনারশেন  লি: ডিজিএম ওয়াহিদুজ্জামান খানকে ১০ লক্ষ্য টাকা, ডোরিন পাওয়ার জেনারেশনের পরিচালক মোস্তফা ময়িনের স্ত্রী চৌধূরী ফারাহ নাজ সামিয়াকে ১০ লক্ষ টাকা, সিএফও আফলোজ আলমকে ১ লক্ষ টাকা, স্বতন্ত্র পরিচালক মাহতাব বিন আহমেদকে ১ লক্ষ টাকা, সহকারী মহাব্যবস্থাপক ও কোম্পানির সচিব মাসুদুর রহমান ভূইয়াকে ১ লক্ষ টাকা, কোম্পানির মহাব্যবস্থাপক ইকবাল হোসেনকে ১ লক্ষ টাকা, সিনিয়র মহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ ফজলে এলাহি খানকে ১ লক্ষ টাকা করে জরিমানা করেছে বিএসইসি।

এছাড়া ডোরিন পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড সিস্টেমস লিমিটেডের শেয়ারের বিধি বহির্ভূত লেনদেনের মাধ্যমে ৩ ব্যক্তি ও ৪ প্রতিষ্ঠান সিকিউরিটিজ ও এক্সচেঞ্জ অর্ডিন্যান্স,১৯৬৯ এর কতিপয় বিধান ভঙ্গ করেছে। এরা হলেন: বিশ্বজিৎ দাস ও এসোসিয়েটস, ইয়াকুব আলী খান ও এসোসিয়েটস, ইফাদ গ্রুপ, মো: ফজলুর রহমান জামালী, প্রাইম ইসলামী সিকিউরিটিজ লিমিটেড, আনিস উদ্দিন এবং মো: শফিকুল ইসলাম। সিকিউরিটিজ আইন লংঘনের জন্য তাদেরকে সর্তক করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বিএসইসি।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর/ম.সা

আপনার মন্তব্য

Top