প্রথমদিনে ভিএফএস থ্রেড ডাইং-এ ২১৩ শতাংশ মুনাফা

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: লেনদেনের শুরুর প্রথম দিনেই চমক দেখিয়েছে শেয়ারবাজারে সদ্য তালিকাভুক্ত হওয়া কোম্পানি ভিএফএস থ্রেড ডাইং লিমিটেড। আজ রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় দেশের উভয় শেয়ারবাজারে আনুষ্ঠিানিকভাবে শুরু হয় এ কোম্পানির লেনদেন। আর লেনদেনের প্রথম দিনেই ২১৩ শতাংশ মুনাফা পেয়েছেন এ কোম্পানির বিনিয়োগকারীরা। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বিশ্লেষণে দেখা গেছে, রোববার ডিএসইতে ভিএফএস থ্রেড ডাইং-এর শেয়ার দর বেড়েছে ২১.৩০ টাকা বা ২১৩ শতাংশ। এদিন এ শেয়ারের দর ৩৫ টাকায় ওপেন হলেও সর্বশেষ লেনদেনটি হয় ৩১.৩০ টাকায়। দিনভর এ কোম্পানির শেয়ার দর ২৯.৫০ টাকা থেকে ৩৯ টাকায় ওঠানামা করে। দিনশেষে এ কোম্পানির ৭০ লাখ ৫০ হাজার ১৪৪টি শেয়ার মোট ১৪ হাজার ২২৪ বার হাত বদল হয়। যা টাকার অংকে লেনদেন হয় ২২ কোটি ৫০ লাখ ৬০ হাজার টাকা।

এদিকে দিনশেষে সিএসইতে কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে ২০.৪০ টাকা বা ২০৪ শতাংশ। দিনভর এ কোম্পানির শেয়ার দর ২৯ টাকা থেকে ৩৫ টাকা পর্যন্ত ওঠানামা করে এবং সর্বশেষ লেনদেনটি হয় ৩০.৪০ টাকায়। দিনশেষে এ কোম্পানির মোট ২২ লাখ ৪৯ হাজার ১৬৮টি শেয়ার মোট ৫ হাজার ৬০৩ বার হাত বদল হয়। যা টাকার অংকে লেনদেন হয় ৬ কোটি ৯৮ লাখ ৭৪ হাজার ৯৩৮ টাকায়।

আজ দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে এন ক্যাটাগরির আওতায় লেনদেন শুরু করতে যাওয়া ভিএফএস থ্রেড ডাইং লিমিটেডের ট্রেডিং কোড-VFSTDL এবং ডিএসইতে কোম্পানি কোড-17478। চট্টগ্রাম স্টক একচেঞ্জে (সিএসই) কোম্পানি কোড-12066।

জানা যায়, গত ১৩ আগস্ট ভিএফএস থ্রেড ডাইং লিমিটেডের আইপিও লটারিতে বরাদ্দ পাওয়া শেয়ার সিডিবিএলের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের নিজ নিজ বিও হিসাবে জমা দেয়। আর গত ৬ আগষ্ট শেয়ারবাজারে লেনদেনে শুরুর জন্য তালিকাভুক্তির অনুমোদন পেয়েছিলো কোম্পানিটি।

এর আগে বাংলাদেশ সিকিউরিটজ অ্যান্ড একচেঞ্জে কমিশনের ৬৩৮তম সভায় কোম্পানিকে আইপিও অনুমোদন দেওয়া হয়। গত ২৪ জুন থেকে ২ জুলাই পর্যন্ত এ কোম্পা‌নির আই‌পিও‌ আ‌বেদন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর গত ৯ জুলাই সকাল সাড়ে ১০টায় ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউট, আইইবি মিলনায়তন, রমনা, ঢাকায় কোম্পানির আইপিও লটারী ড্র অনুষ্ঠিত হয়।

কোম্পানিটি ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ২ কোটি ২০ লাখ শেয়ার ইস্যু করে ২২ কোটি টাকা উত্তোলনের অনুমোদন পায়। এ টাকা দিয়ে কোম্পানিটি প্ল্যান্ট ও মেশিনারিজ ক্রয়, ব্যাংক ঋণ পরিশোধ ও আইপিও খরচে ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৯.৯০ টাকা। এ সময়ের কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২.০২ টাকা।

এদিকে কোম্পানির সর্বশেষ প্রকাশ করা ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, জানুয়ারি’১৮ থেকে মার্চ’১৮ পর্যন্ত অর্থাৎ তিন মাসে কোম্পানিটির কর পরিশোধের পর প্রকৃত মুনাফা হয়েছে ৪ কোটি ৬০ লাখ ৭০ হাজার টাকা। আইপিও শেয়ার হিসাব করে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৪ টাকা। আইপিও শেয়ার হিসাব না করে ইপিএস হয়েছে ০.৭৩ টাকা।

এদিকে জুলাই’১৭ থেকে মার্চ’১৮ পর্যন্ত নয় মাসে কোম্পানিটির কর পরিশোধের পর প্রকৃত মুনাফা হয়েছে ৯ কোটি ৪০ লাখ ৫০ হাজার টাকা। আইপিও শেয়ার হিসাব করে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.১১ টাকা। আইপিও শেয়ার হিসাব না করে ইপিএস হয়েছে ১.৫০ টাকা। আইপিও শেয়ার হিসাব করে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৮.৪৪ টাকা। আইপিও শেয়ার হিসাব না করে এনএভি হয়েছে ২১.৪০ টাকা।

কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে সিটিজেন সিকিউরিটিজ লিমিটেড ও ফার্স্ট সিকিউরিটিজ ক্যাপিটাল অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মন্তব্য

Top