শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করলেই কর ছাড়: আজ থেকে কার্যকর

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: চীনের সেনঝেন ও শানহাই এই দুই স্টক এক্সচেঞ্জের স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার হওয়ার মধ্য দিয়ে ট্রেকহোল্ডাররা যে পরিমাণ অর্থ পাবে তা শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করলেই ব্যাপক কর ছাড় দেওয়া হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

আজ ১২ সেপ্টেম্বর বুধবার সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) রজতজয়ন্তী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, সিকিউরিটিজ কমিশনের বয়স ২৫ বছর। ইতোমধ্যে আমার দু’টি বিপর্যয় পর্যবেক্ষণ করেছি। এই ধস আমরা ভালোভাবেই বুঝতে পেরেছি। তবে ২০১৮ সালে আমরা এখন তৃপ্তিবোধ করতে পারি। এই তৃপ্তিবোধের কারণ হলো আমাদের সিকিউরিটিজ মার্কেটটি সত্যিকার অর্থে সুপ্রতিষ্ঠিত এবং এর অগ্রযাত্রা কেউ থামাতে পারবে না।

অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, এরই মধ্যে চীনা কনসোর্টিয়ামের কাছ থেকে প্রাপ্ত অর্থের ক্ষেত্রে ক্যাপিটাল গেইন টেক্স মওকুফের জন্য আবেদন করা হয়েছে। এক্ষেত্রে ওই অর্থ শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিতে বিনিয়োগের শর্তে কর সুবিধা দেওয়া হবে। এতে ১৫ শতাংশের পরিবর্তে ৫ শতাংশ গেইন টেক্স চার্জ করা হবে। স্টক এক্সচেঞ্জের কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে চীনের দু’টি স্টক মার্কেট ইতোমধ্যে ঠিক করেছি। এদের কাছে শেয়ার বিক্রি থেকে পাওয়া অর্থ পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করতে হবে। এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনা যখনই আমাদের কাছে দেবেন, আমরা তখনই সেক্ষেত্রে কর ব্যাপক হারে হ্রাস করে দেব। সেটাকে আমরা ৫ শতাংশে করে দেব। কিন্তু শর্ত যে টাকা পেলেন তা আগামী ৩ বছরের জন্য সিকিউরিটিজ মার্কেটে রাখবেন। এই সিদ্ধান্তের উদ্দেশ্য হচ্ছে সিকিউরিটিজ মার্কেটকে শক্তিশালী করা এবং একটি আকর্ষণীয় মার্কেট হিসেবে সকলের সামনে তুলে ধরা। আজ থেকেই এ ঘোষণা কার্যকর হবে। এর জন্য সব কাগজপত্র তৈরি হয়ে আছে বলেও জানান তিনি।

 

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

 

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top