ডিএসই লিস্টিং রেগুলেশনস: পর্ব-৬

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: শেয়ারবাজারের সঙ্গে সম্পৃক্ত সকলকেই লিস্টিং রেগুলেশনস মেনে চলতে হয়। শেয়ারবাজার শিক্ষা এই বিভাগে আজকের পর্বটি সাজানো হয়েছে “ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (লিস্টিং) রেগুলেশনস,২০১৫” এই প্রবিধানটি নিয়ে। পাঠকের ধৈর্য্যচ্যুতির বিষয়টি লক্ষ্য রেখে সম্পূর্ণ এই প্রবিধানটি বিভিন্ন পর্বে প্রকাশ করা হবে। আজ ৬ষ্ঠ পর্ব দেওয়া হলো: (নিচে প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম পর্বের লিঙ্ক দেওয়া হয়েছে)।

৭. আন্ডারটেকিংস (দায়িত্ব/প্রতিশ্রতি)

(১)  সিকিউরিটিজ ইস্যুয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক/প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা/অথরাইজড ব্যক্তির দ্বারা এই আইন (ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (লিস্টিং) রেগুলেশনস,২০১৫) যথাযথভাবে পরিপালন করবে এমন প্রতিশ্রুতি (কমন সিল ও স্বাক্ষরসহ) না দেওয়া পর্যন্ত সিকিউরিটিজ তালিকাভুক্তির জন্য অনুমোদন পাবে না।

(২) ইস্যুয়ারের পক্ষে ইস্যুয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক/প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা/অথরাইজড ব্যক্তি আরো প্রতিশ্রুতি দেবে-

(ক) যে দ্য এক্সচেঞ্জের বিবেচনায় বা ইচ্ছায় সিকিউরিটিজ তালিকাভুক্ত হবে।

(খ)  যে তালিকাভুক্ত সিকিউরিটিজের ইস্যুয়ারের অনুরোধে দ্য এক্সচেঞ্জের ট্রেডিং সিস্টেম থেকে ইস্যুয়ারের সিকিউরিটিজ বাদ দিতে দ্য এক্সচেঞ্জ বাধ্য হবে না।

(গ) যে যথাযথ লিখিত কারণ থাকলে জনগনের স্বার্থের দিক বিবেচনা করে যেকোন সময় কোনো প্রকার নোটিশ ছাড়াই কোনো সিকিউরিটিজ দ্য এক্সচেঞ্জের ট্রেডিং সিস্টেম থেকে সাসপেন্ড করার জন্য দ্য এক্সচেঞ্জ ক্ষমতা প্রাপ্ত হবে এবং অধিকার থাকবে।

(ঘ) যে নন-কমপ্লায়েন্স অথবা এই প্রবিধানে যেসব আন্ডারটেকিং বা প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে তা ভঙ্গ করলে দ্য এক্সচেঞ্জ সিকিউরিটিজ/মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট/ কালেক্টিভ ইনভেস্টমেন্ট স্কীম তালিকাচ্যুত করতে পারবে।

(ঙ) যে দ্য এক্সচেঞ্জে একই শ্রেণীর তালিকাভুক্ত সকল সিকিউরিটিজ অভিন্ন এবং সমান সুযোগ-সুবিধা ভোগ করবে।

(চ) যে সিকিউরিটিজের ইস্যুয়ার তার আর্থিক প্রতিবেদন সিকিউরিটিজ ও এক্সচেঞ্জ কমিশন,১৯৮৭ এবং বাংলাদেশে গৃহীত ইন্টারন্যাশনাল রিপোর্টিং স্ট্যান্ডার্ডস/ইন্টারন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিং স্ট্যান্ডার্ডস অনুযায়ী প্রস্তুত করবে এবং নিরীক্ষাও বাংলাদেশে গৃহীত ইন্টারন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ডস অন অডিটিং অনুযায়ী করবে।

(ছ) যে কমিশন কর্তৃক সময়ে সময়ে প্রণীত কর্পোরেট গভর্ন্যান্স গাইডলাইন ইস্যুয়ার (মিউচ্যুয়াল ফান্ড ও কালেক্টিভ ইনভেষ্টমেন্ট স্কীমের ইস্যুয়ার ছাড়া) পরিপালন করবে।

(জ) যে জনগনের স্বার্থের দিক বিবেচনায়, দ্য এক্সচেঞ্জ তালিকাভুক্ত ইস্যুয়ার অথবা ইস্যুয়ারের সাবসিডিয়ারি/এসোসিয়েটস এর কাছ থেকে যেকোনো তথ্য বা ডকুমেন্টস যেকোন সময় লিখিত আকারে চাইতে পারে।

(ঝ) যে বিশেষ প্রকারের সিকিউরিটিজের ক্ষেত্রে উপরোল্লেখিত আন্ডারটেকিংস প্রযোজ্য হবে না, দ্য এক্সচেঞ্জ প্রয়োজন অনুসারে আন্ডারটেকিংসের উপযুক্ত ফর্ম চাইতে পারে।

(৩) সাব-রেগুলেশনস (২) এ উল্লেখিত আন্ডারটেকিংস ছাড়াও ইস্যুয়ার (মিউচ্যুয়াল ফান্ড ও কালেক্টিভ ইনভেষ্টমেন্ট স্কীমের ইস্যুয়ার ছাড়া) নিম্নোক্ত নির্দেশনা পরিপালন করবে।

(ক) প্রাথমিক গণ প্রস্তাব (আইপিও)/পুন: গণ প্রস্তাব (আরপিও)/রাইট শেয়ার ইস্যুর মাধ্যমে উত্তোলিত অর্থের উদ্দেশ্য ও তার ব্যবহারের অবস্থা ইস্যুয়ার তার পরিচালকদের প্রতিবেদনে যতদিন না অর্থ ব্যবহার সম্পূর্ণ হয় ততদিন পর্যন্ত উল্লেখ করবে।

(খ) প্রাথমিক গণ প্রস্তাব (আইপিও)/পুন: গণ প্রস্তাব (আরপিও)/রাইট শেয়ার ইস্যুর মাধ্যমে উত্তোলিত অর্থের উদ্দেশ্য ও তার ব্যবহারের অবস্থা সম্পর্কে ইস্যুয়ার কমিশন ও এক্সচেঞ্জে যতদিন না অর্থ ব্যবহার শেষ হয় ততদিন রিপোর্ট প্রদান করবে।

পরবর্তী পর্বে থাকছে, “ডিরেক্ট লিস্টিং”

০১. প্রথম পর্বের লিঙ্ক 

০২. দ্বিতীয় পর্বের লিঙ্ক

০৩. তৃতীয় পর্বের লিঙ্ক

০৪. চতুর্থ পর্বের লিঙ্ক:

০৫. পঞ্চম পর্বের লিঙ্ক:

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

 

 

আপনার মন্তব্য

Top