৮ কোম্পানির ডিভিডেন্ড ঘোষণা

শেয়ারবাজার ডেস্ক: সপ্তাহজুড়ে বিনিয়োগকারীদের জন্য ৩০ জুন, ২০১৮ সমাপ্ত অর্থবছরে ডিভিডেন্ড ঘোষণা করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৮ কোম্পানি। এগুলো হলো: যমুনা অয়েল, কাট্টলি টেক্সটাইল, এ্যাম্বি ফার্মাসিটিক্যাল, ন্যাশনাল টিউবস, পদ্মা অয়েল, ইষ্টার্ণ লুব্রিক্যান্টস, এলআর গ্লোবাল মিউচ্যুয়াল ফান্ড ওয়ান এবং ভ্যানগার্ড এএমএল বিডি ফাইন্যান্স মিউচ্যুয়াল ফান্ড ওয়ান। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

নিম্নে কোম্পানিগুলোর প্রকাশিত প্রতিবেদন তুলে ধরা হলো:

যমুনা অয়েল লিমিটেড:

কোম্পানিটি ৩০ জুন, ২০১৮ সমাপ্ত অর্থবছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য ১৩০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। সমাপ্ত অর্থবছরে কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৫.৪৫ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ২০.৩১ টাকা।এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৫১.২৩ টাকা আর শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৭০.৩৪ টাকা।

ঘোষিত ডিভিডেন্ড বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য এ কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা(এজিএম) ২০১৯ সালের ২ ফেব্রুয়ারী সকাল ১১টায় ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টাল, চট্টগ্রাম অনুষ্ঠিত হবে। আর এসংক্রান্ত রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২৭ ডিসেম্বর।

কাট্টলি টেক্সটাইল লিমিটেড:

কোম্পানিটি ৩০ জুন, ২০১৮ সমাপ্ত অর্থবছরে ১০ শতাংশ স্টক ডিভিডেন্ড দেওয়ার সুপারিশ করেছে। সমাপ্ত অর্থবছরে কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৯৫ টাকা। এছাড়া শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৬৭ টাকা এবং শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ২২.৪৩ টাকা।

ঘোষিত ডিভিডেন্ড বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য এ কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আগামী ১৯ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ১০টায় ভাটিয়ারি গলফ ক্লাব, চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া মূলধন বাড়ানো সংক্রান্ত বিশেষ সাধারণ সভা (ইজিএম) অনুষ্ঠিত হবে সকাল ১০টায়। আর এ সংক্রান্ত রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১৫ নভেম্বর।

এ্যাম্বি ফার্মাসিটিক্যাল লিমিটেড:

কোম্পানিটি ২০১৭-২০১৮ হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের ৩০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দেওয়ার সুপারিশ করেছে। সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৪৪ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩.০২ টাকা। এছাড়া শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ২৫.৬৮ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর অর্থ প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৭.৭৬ টাকা।

ঘোষিত ডিভিডেন্ড অনুমোদনের জন্য কোম্পানিটি আগামী ২৭ ডিসেম্বর, সকাল ১০টায় তেজগাঁও ইন্ডাস্ট্রিজ এলাকায়, ঢাকায় করবে। এর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ হয়েছে ৪ ডিসেম্বর।

ন্যাশনাল টিউবস লিমিটেড:

কোম্পানিটি ৩০ জুন, ২০১৮ সমাপ্ত অর্থবছরের জন্য ১০ শতাংশ স্টক ডিভিডেন্ড দেওয়ার সুপারিশ করেছে। সমাপ্ত অর্থবছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ২.০৫ টাকা। গত অর্থবছরে যার পরিমাণ ছিল ২.৭১ টাকা। কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) ১৯৩.৬২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৬৯ টাকা।

ঘোষিত ডিভিডেন্ড বিনিয়োগকারীদের অনুমোদনের জন্য কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আগামী ১৮ ডিসেম্বর সকাল ১১টায় ফ্যাক্টরী প্রাঙ্গণ, টঙ্গী শিল্প এলাকা, গাজীপুরে অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড ডেট ২৯ নভেম্বর নির্ধারণ করা হয়েছে।

পদ্মা অয়েল:

কোম্পানিটি ২০১৭-২০১৮ হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের ১৩০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দেওয়ার সুপারিশ করেছে। সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৪.১৮ টাকা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২০.৬৮ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১২৬.৭৮ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর অর্থ প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৩৬.৩৭ টাকা (ঋণাত্মক)।

ঘোষিত ডিভিডেন্ড অনুমোদনের জন্য কোম্পানিটি আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১টায় চট্টগ্রামে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) করবে। এর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ হয়েছে ১৯ ডিসেম্বর।

ইষ্টার্ণ লুব্রিক্যান্টস:

কোম্পানিটি ৩০ জুন ২০১৮ সমাপ্ত অর্থবছরের জান্য ১০০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দেওয়ার সুপারিশ করেছে।  সমাপ্ত অর্থবছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৬.২৩ টাকা। কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আগামী ১৯ জানুয়ারি,২০১৯ তারিখে অনুষ্ঠিত হবে। ডিভিডেন্ড সংক্রান্ত রেকর্ড ডেট ৩ ডিসেম্বর নির্ধারণ করা হয়েছে।

এলআর গ্লোবাল মিউচ্যুয়াল ফান্ড ওয়ান:

প্রতিষ্ঠানটি ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ সমাপ্ত বছরের ইউনিটহোল্ডারদের জন্য সাড়ে ৫ শতাংশ ডিভিডেন্ড ঘোষণা করেছে। সমাপ্ত সময় ফান্ডটির ইউনিট প্রতি আয় (ইপিইউ) হয়েছে ০.৫৫ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময় ছিল ০.৭৮ টাকা। এছাড়া আলোচিত সময় ফান্ডটির ইউনিট প্রতি কার্যকরি নগদ প্রবাহ (এনওসিএফপিইউ) হয়েছে ০.৫৭ টাকা, যা আগের বছর ছিল ১.৬৯ টাকা।

এদিকে, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ সমাপ্ত সময় বাজার মূল্য অনুযায়ী ফান্ডটির ইউনিট প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১১.০৯ টাকা, যা আগের বছর ছিল ১১.৯৮ টাকা। আর  ক্রয় মূল্য অনুযায়ী ফান্ডটির ইউনিট প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১০.৫৯ টাকা, যা আগের বছর ছিল ১০.৮২ টাকা।ঘোষিত ডিভিডেন্ড বিতরণের জন্য ইউনিটহোল্ডার নির্বাচনের জন্য ফান্ডটির রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২ ডিসেম্বর।

ভ্যানগার্ড এএমএল বিডি ফাইন্যান্স মিউচ্যুয়াল ফান্ড ওয়ান:

প্রতিষ্ঠানটির ট্রাস্টি কমিটি ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে ইউনিটহোল্ডারদের জন্য ৫ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড ঘোষণা করেছে। সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইউনিট প্রতি আয় (ইপিইউ) হয়েছে ০.৪১ টাকা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ফান্ডটির ইউনিট প্রতি সম্পদ (এনএভিপিইউ) দাঁড়িয়েছে ১০.৮৬ টাকায়। ঘোষিত ডিভিডেন্ড বিতরণের জন্য ইউনিটহোল্ডার নির্বাচনের জন্য ফান্ডটির রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২ ডিসেম্বর।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

 

আপনার মন্তব্য

Top