জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত চিত্রগ্রাহক আনোয়ার হোসেন মারা গেছেন

শেয়ারবাজার ডেস্কঃ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত ৃচিত্রগ্রাহক ও মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। আজ শনিবার রাজধানীর পান্থপথের একটি হোটেল ওলিও’র একটি কক্ষে তাকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

সূর্যদীঘল বাড়ি সিনেমার মধ্যদিয়ে চলচ্চিত্রে তার অভিষেক ঘটে। তাতেই মাত করেন তিনি, স্থিরচিত্রগ্রাহক থেকে সিনেমাটোগ্রাফার হিসেবে দুর্দান্ত অভিষেক ঘটে তার। গুণী এই শিল্পী অনেক বছর ধরে ফ্রান্সে থাকছিলেন। দেশে এলে থাকতেন শরীয়তপুর জেলা সদরে, ডিসি বাসভবন সংলগ্ন এলাকায়। মাঝে মাঝে তিনি দেশে আসতেন। কদিন আগে ঢাকা এসেছিলেন একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিতে।

শেরে বাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোপাল গণেশ বিশ্বাস জানান, হোটেল রুমের দরজা ভেঙে তারা আনোয়ার হোসেনকে মৃত অবস্থায় পান। বিছানায় তার লাশের পাশে ইনহেলার ও হৃদরোগের জরুরি ওষুধ পাওয়া গেছে। মৃত্যুর কারণ জানতে লাশ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ওসি আরো জানান, ঢাকায় আনোয়ার হোসেনের ছোট ভাই ও ভাতিজী থাকেন বলে জানা গেছে।  তাদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা চলছে।

হোটেল ম্যানেজার সোহেল হায়দার চৌধুরী জানান, আনোয়ার হোসেন গত ২৮ নভেম্বর বেলা ১১টা ১৭ মিনিটে হোটেলের ৮ তলার ৮০৯ নাম্বার কক্ষে চেকইন করেন। এরপর থেকে সেখানেই ছিলেন। ফিনিক্স ফটোগ্রাফিক সোসাইটি আয়োজিত চিত্রপ্রদর্শনীর বিচারক হিসেবে ঢাকায় আসেন। গত দুদিন তিনি ওই প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণও করেছেন। আজ সকাল সাতটায় আয়োজক সংগঠনের লোকজন এসে তার কক্ষ বন্ধ দেখতে পান। পরে তার মোবাইল নম্বরে ফোন দেয়া হয়, কিন্তু তিনি ফোন রিসিভ করছিলেন না। এভাবে প্রায় তিন ঘণ্টা পার হয়। তখন তারা হোটেল কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানালে তারা পুলিশে খবর দেন। শেরে বাংলা নগর থানার পুলিশে এসে রুমের দরজা ভেঙ্গে বিছানায় তাকে মৃত দেখতে পায়।

সিনেমাটোগ্রাফার হিসেবে তার খ্যাতি থাকলেও বাংলাদেশের আন্তর্জাতিকমানের একজন আলোকচিত্রীও ছিলেন আনোয়ার হোসেন। বেশকিছু দিন ধরেই তিনি প্যারিসে থাকতেন। সূর্যদীঘল বাড়ী ছাড়াও আনোয়ার হোসেন ‘এমিলের গোয়েন্দা বাহিনী’,‘পুরস্কার’, ‘অন্য জীবন’ এবং ‘লালসালু’র জন্য শ্রেষ্ঠ সিনেমাটোগ্রাফার হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেছিলেন।

আপনার মন্তব্য

Top