যেসব কোম্পানির শেয়ার কিনে বিপাকে আইসিবি

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ১৭ কোম্পানির শেয়ার কিনে বিপাকে রয়েছে ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি)। যে দরে কোম্পানির শেয়ার কেনা হয়েছে তার অর্ধেকেরও কম দরে বর্তমানে এসব কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হচ্ছে। এতে আইসিবি ব্যাপক ক্ষতির মধ্যে রয়েছে। কোম্পানিগুলো হলো: এবি ব্যাংক , গোল্ডেন সন, ন্যাশনাল ফিড, তিতাস গ্যাস, সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইল, ফ্যালিমিটেক্স (বিডি), মিথুন নিটিং, মোজাফফর হোসেন স্পিনিং, তাল্লু স্পিনিং, দ্য ঢাকা ডাইং, তুং হাই নিটিং, সানলাইফ ইন্স্যুরেন্স, বেক্সিমকো লিমিটেড, ফার্স্ট ফাইন্যান্স, পিপলস লিজিং, প্রাইম ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেষ্টমেন্ট এবং ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ।

আইসিবি সূত্রে জানা যায়, প্রতিষ্ঠানটি তার ১নং পোর্টফোলিওতে এবি ব্যাংকের লিমিটেডের ২ কোটি ৬০ লাখ ৩৫ হাজার ৮৫৩টি শেয়ার কিনেছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ২৮.৪৩ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ৭৪ কোটি ১ লাখ ৬৮ হাজার ৮২৩.৪৭ টাকা। আর বর্তমানে এবি ব্যাংকের শেয়ার দর ১১.৫০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৯ কোটি ৯৪ লাখ ১২ হাজার ৩০৯.৫০ টাকা। এক্ষেত্রে এবি ব্যাংকের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ ৪৪ কোটি ৭ লাখ ৫৬ হাজার ৫১৩.৯৭ টাকা।

গোল্ডেন সনের ১ কোটি ৬ লাখ ১৮ হাজার ৭২০টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ৩২.০৬ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ৩৪ কোটি ৪ লাখ ৪১ হাজার ২৮৭.৪০ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৯.৩০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৯ কোটি ৮৭ লাখ ৫৪ হাজার ৯৬ টাকা। এক্ষেত্রে গোল্ডেন সনের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৪ কোটি ১৬ লাখ ৮৭ হাজার ১৯১.৪০ টাকা ।

ন্যাশনাল ফিডের ৪৪ লাখ ৩ হাজার ৮৬২টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ২২.৪৭ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ৯ কোটি ৮৯ লাখ ৬০ হাজার ২৫.৪৩ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ১১.৪০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৫ কোটি ২ লাখ ৪ হাজার ২৬.৮০ টাকা। এক্ষেত্রে ন্যাশনাল ফিডের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪ কোটি ৮৭ লাখ ৫৫ হাজার ৯৯৮.৬৩ টাকা।

তিতাস গ্যাসের ৩ কোটি ২৫ লাখ ৮৯ হাজার ১৫৭টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ৭২.৯৯ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ২৩৭ কোটি ৮৬ লাখ ২২ হাজার ৫৯০.৭৭ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৩৬.৪০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ১১৮ কোটি ৬২ লাখ ৪৫ হাজার ৩১৪.৮০ টাকা। এক্ষেত্রে তিতাস গ্যাসের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১১৯ কোটি ২৩ লাখ ৭৭ হাজার ২৭৫.৯৭ টাকা।

সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইলের ১৬ লাখ ৬৭ হাজার ৮৫৫টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ১০.৭৮ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ১ কোটি ৭৯ লাখ ৭৮ হাজার ৮৭.৯৭ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৪.৩০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৭১ লাখ ৭১ হাজার ৭৭৬.৫০ টাকা। এক্ষেত্রে সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইলের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ৮ লাখ ৬ হাজার ৩১১.৪৭ টাকা।

ফ্যামিলিটেক্সের ১ কোটি ৭৪ লাখ ৭৭ হাজার ২৮৯টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ১২.২৫ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ২১ কোটি ৪১ লাখ ৪৭ হাজার ৮১৫.২০ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৫.৩০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৯ কোটি ২৬ লাখ ২৯ হাজার ৬৩১.৭০ টাকা। এক্ষেত্রে ফ্যামিলি টেক্সের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১২ কোটি ১৫ লাখ ১৮ হাজার ১৮৩.৫০ টাকা।

মিথুন নিটিংয়ের ২৯ লাখ ৭৯ হাজার ৮৩০টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ৫০.৮৫ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ১৫ কোটি ১৫ লাখ ২৪ হাজার ২২৩.৫৪ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ১৬.৯০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৫ কোটি ৩ লাখ ৫৯ হাজার ১২৭ টাকা। এক্ষেত্রে মিথুন নিটিংয়ের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১০ কোটি ১১ লাখ ৬৫ হাজার ৯৬.৫৪ টাকা।

মোজাফফর হোসেন স্পিনিংয়ের ১ কোটি ২৩ লাখ ৩২ হাজার ৬৮১টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ২৮.৫৭ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ৩৫ কোটি ২৩ লাখ ৮৭ হাজার ১৪.৯০ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ১২.২০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৫ কোটি ৪ লাখ ৫৮ হাজার ৭০৮.২০ টাকা। এক্ষেত্রে মোজাফফর হোসেন স্পিনিংয়ের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২০ কোটি ১৯ লাখ ২৮ হাজার ৩০৬.৭০ টাকা।

তাল্লু স্পিনিংয়ের ৫৯ লাখ ৩৮ হাজার ২৮১টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ২৬.১৬ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ১৫ কোটি ৫৩ লাখ ৩৩ হাজার ৬১২.৯৭ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৬.৩০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ৭৪ লাখ ১১ হাজার ১৭০.৩০ টাকা। এক্ষেত্রে  তাল্লু স্পিনিংয়ের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১১ কোটি ৭৯ লাখ ২২ হাজার ৪৪২.৬৭ টাকা।

দ্য ঢাকা ডাইংয়ের ৩ লাখ ৩০ হাজার ৭৫৩টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ২০.৫৯ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ৬৮ লাখ ৯ হাজার ৪৫০ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৫.৭০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮ লাখ ৮৫ হাজার ২৯২.১০ টাকা। এক্ষেত্রে ঢাকা ডাইংয়ের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪৯ লাখ ২৪ হাজার ১৫৭.৯০ টাকা।

তুং হাই নিটিংয়ের ৪ লাখ ৪৪ হাজার ১৪০টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ১৭.১৮ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ৭৬ লাখ ৩১ হাজার ৬২ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৫.৩০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৩ লাখ ৫৩ হাজার ৯৪২  টাকা। এক্ষেত্রে তুং হাই নিটিংয়ের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫২ লাখ ৭৭ হাজার ১২০ টাকা।

সানলাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৫৭ লাখ ৩৫ হাজার ৯টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ৫৪.১৬ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ৩১ কোটি ৬ লাখ ১৫ হাজার ৬২৩.৭০ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ২৩ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৩ কোটি ১৯ লাখ ৫ হাজার ২০৭ টাকা। এক্ষেত্রে সানলাইফ ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৭ কোটি ৮৭ লাখ ১০ হাজার ৪১৬ টাকা।

বেক্সিমকো লিমিটেডের ৪ কোটি ১৯ লাখ ৪৯ হাজার ৭৩টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ৪৬.৪০ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ১৯৪ কোটি ৬৬ লাখ ৩৫ হাজার ৬২০.৩৫ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ২২ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৯২ কোটি ২৮ লাখ ৭৯ হাজার ৬০৬ টাকা। এক্ষেত্রে বেক্সিমকো লিমিটেডের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১০২ কোটি ৩৭ লাখ ৫৬ হাজার ১৪.৩৫ টাকা।

ফার্স্ট ফাইন্যান্সের ৯৩ লাখ ৭০ হাজার ৭০৪টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ১৮ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ১৬ কোটি ৮৬ লাখ ৬১ হাজার ৮৭৬.৭৩ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৫.৮০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৫ কোটি ৪৩ লাখ ৫০ হাজার ৮৩.২০ টাকা। এক্ষেত্রে ফার্স্ট ফাইন্যান্সের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৬ কোটি ৮৬ লাখ ৬১ হাজার ৮৬০.৭৩ টাকা।

পিপলস লিজিংয়ের ৪ লাখ ৯১ হাজার ৩১০টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ১৮.৬০ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ৯১ লাখ ৩৭ হাজার ৮১৪.৫৯ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৫.৩০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৬ লাখ ৩ হাজার ৯৪৩ টাকা। এক্ষেত্রে পিপলস লিজিংয়ের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৬৫ লাখ ৩৩ হাজার ৮৭১.৫৯ টাকা।

প্রাইম ফিন্যান্সের ৩ লাখ ৬৯ হাজার ৩০৯টি শেয়ার কেনা হয়েছে। প্রতিটি শেয়ার কেনা পড়েছে ১১১.৬৪ টাকা করে যার মোট মূল্য হচ্ছে ৪ কোটি ১২ লাখ ৩১ হাজার ২১৩.০৩ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৯ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩৩ লাখ ২৩ হাজার ৭৮১ টাকা। এক্ষেত্রে প্রাইম ফিন্যান্সের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ৭৯ লাখ ৭ হাজার ৪৩২.০৩ টাকা।

সর্বশেষ ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ কোম্পানির ২ কোটি ১৫ লাখ ৭৫ হাজার ৯৪০টি শেয়ার প্রতিটি ১৩.৭১ টাকা করে কিনেছে আইসিবি। যার মোট মূল্য হচ্ছে ২৯ কোটি ৫৮ লাখ ৪৮ হাজার ৫৫৭.৪০ টাকা। আর বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ২.৭০ টাকা অর্থাৎ বর্তমান মোট শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৫ কোটি ৮২ লাখ ৫৫ হাজার ৩৮ টাকা। এক্ষেত্রে ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের শেয়ার কিনে আইসিবি’র লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৩ কোটি ৭৫ লাখ ৯৩ হাজার ৫১৯.৪০ টাকা।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

Top