মানুষের বিলুপ্তির কারন হবে ধূমকেতু!

images (14)শেয়ারবাজার ডেস্ক: কী ভাবে অন্ত ঘটবে মানুষের? কী ঘটতে পারে শেষের সেই ভয়ানক দিনে? এতদিন বিজ্ঞানীরা অনুমান করেছেন দু’ধরনের সম্ভাবনার কথা৷ বলেছেন, হয় বড় মাপের কোনও গ্রহাণুর সঙ্গে সংঘর্ষে মানুষের অস্তিত্ব বিলুপ্ত হবে৷ এই ভাবেই বিলুপ্ত হয়েছিল ডাইনোসররা৷ অন্য ধারণা, একদিন সব জ্বালানি শেষ হয়ে গিয়ে নিভে যাবে সূর্য৷ তাতেই বিলুপ্ত হয়ে যাবে পৃথিবী থেকে প্রাণের অস্তিত্ব৷

এ বার বিজ্ঞানীদের একাংশ তৃতীয় আরও একটি সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন৷ এই ধারণায় বিশ্বাসী বিজ্ঞানীরা বলছেন, অসংখ্য ধূমকেতুর আঘাতে প্রাণ বিলুপ্ত হবে পৃথিবী থেকে৷ আগামী কয়েক লক্ষ বছরের মধ্যে সৌরজগতের খুব কাছে আসবে বেশ কয়েকটি নক্ষত্র৷ এর মধ্যে দু’টি বামন নক্ষত্রও থাকবে৷

আকারে সূর্যের মতো মাঝারি মাপের নক্ষত্রের চেয়ে অনেক ছোট হলেও এই ধরনের তারকাদের ভর অনেক বেশি হয়৷ সেই কারণেই এদের মহাকর্ষও অত্যন্ত শক্তিশালী৷ প্রধানত এদেরই আকর্ষণে সৌরজগতের শেষ প্রান্তে থাকা উর্ট কমেট ক্লাউড বা ধূমকেতুদের আস্তানা থেকে পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসতে থাকবে এক ঝাঁক ধূমকেতু৷ এ ভাবেই নাকি অন্তিম মুহূর্ত ঘনিয়ে আসবে মানব জাতির৷

আপনার মন্তব্য

Top