যেভাবে লো-প্রাইসে শেয়ার কেনা যায়

Top to bottom. এই বাক্যটি শুনে থাকবেন। আমাদের রাজনীতিতে অতীতের বহুল ব্যবহৃত একটি শব্দ। শব্দটির অর্থ উপর থেকে নিচে।
আমি বারবার বটম শব্দটা ব্যবহার করেছি কিন্তু শব্দটির অর্থ পরিষ্কার হওয়া উচিত।
মনে করুন এসিআই কোম্পানির শেয়ার আমার পছন্দ হয়েছে এখন এনট্রি দিব। বর্তমান মার্কেট প্রাইজ ৩০৮ টাকা , কিন্তু আমরা জানি এটার ফেসভ্যালু ১০ টাকা। এখন আপাত দৃষ্টিতে এটার বটম প্রাইজ হওয়া উচিত ১০ টাকা,তাই না?
তো এখন কি আমি ১০ টাকায় এসিআই এর শেয়ার পাব? উত্তর হচ্ছে না, পাব না । কারণ এই কোম্পানির শেয়ার পরিবর্তন হতে হতে বটম প্রাইজও পরিবর্তন হয়ে গেছে।
যারা এনালাইসিস করে তারা সহজেই বটম প্রাইজ পেয়ে যায়, কিন্তু আমরা যারা এনালাইসিস জানি না তাদের কি হবে ?
আমরা প্রথমে এই শেয়ারের গত দুই বছরের হাই প্রাইজ- লো প্রাইজ দেখে নেব। তারপর শেষ তিন মাসের last trade price(LTP) চার্ট এবং ভলিউম চার্ট ভালো ভাবে দেখে নিতে হবে। ভালো ভাবে দেখতে হবে তিন মাসের উঠা নামা। উঠতে উঠতে কোথায় আটকিযে যাচ্ছে, আর উঠতে পারছে না। মনে রাখতে হবে, এই খানে কোথাও রেসিটেন্স আছে। নামতে নামতে এক জায়গায় এসে থেমে গেছে, আর নামে না। এখান থেকে রিভার্স সুইং করে আবার উঠে যাচ্ছে। মনে করতে হবে , এখানে বড় কোন সাপোর্ট পাচ্ছে। এখানের আসে পাশে কোথাও সাপোর্ট লেভেল আছে। এখানেই কোথাও বটম প্রাইজ অবস্থান করছে, এবং এখানেই হবে আমাদের এনট্রি পয়েন্ট।

আপনি যদি বটম প্রাইজের কাছাকাছি এন্ট্রি নিতে পারেন,তাহলে সময় হয়ত একটু বেশি লাগবে। কিন্তু আপনি সিউর লাভ করতে পারবেন। এখানে এন্ট্রি নিলে stop loss এর ঝামেলা নেই। আর এই শেয়ার নিয়ে আপনার টেনশন করতে হবে না।
এভাবে কিছু দিন করলে আপনি নিজে অভিজ্ঞ হয়ে যাবেন, পরে দেখবেন অটোমেটিক বুঝতে পারছেন বটম প্রাইজ কোথায় আছে।

***অতিরিক্ত ট্রেড করা থেকে বিরত থাকবেন।এতে আপনার লাভের পথ প্রশস্ত হবে।
***বিশৃঙ্খল ট্রেড করা থেকে বিরত থাকুন। এতে আপনার লসের বোঝা কমবে।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

Top