ইউনাইটেড পাওয়ারের সাবসিডিয়ারী কোম্পানীর বৈদেশিক ঋণ অগ্রিম পরিশোধের অনুমোদন

শেয়ারবাজার ডেস্ক: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানীলিমিটেড (ইউপিজিডিসিএল) এর সাবসিডিয়ারি কোম্পানি ইউনাইটেড এনার্জি লিঃ (ইউ.ই.এল) এর সাবসিডিয়ারি কোম্পানী ২০০ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতা সম্পন্ন ইউনাইটেড আশুগঞ্জ এনার্জি লিঃ (ইউএইএল) এর বৈদেশিক ঋণ pre-payment তথা মেয়াদোত্তীর্নের পূর্বেই পরিশোধের নিমিত্তে বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট ডেভলোপমেন্ট অথরিটি (বিডা) এর অনুমোদন পাওয়া গেছে।

৩১ জানুয়ারী ২০১৭ তারিখে মোট ৬১.৭৮ মিলিয়ন ইউএস ডলার ১০ বছর মেয়াদী বৈদেশিক ঋণ নিয়েছিল। যার মধ্যে ইন্টারন্যাশনাল ফাইন্যান্স কর্পোরেশন (আই.এফ.সি) থেকে ২০.৫০ মিলিয়ন ইউএস ডলার, DeutscseInvestitions-und EntwicklungsgesellschaftmbH (DEG) থেকে ২০.৫০ মিলিয়ন ইউএস ডলার এবং Export Credit Agency (ECA) থেকে ২০.৭৮ মিলিয়ন ইউএস ডলার।বাংলাদেশি মুদ্রায় যার মূল্য প্রায় ৪৯৩ কোটি টাকা। ঐ সময় টাকার বিপরীতে ইউএস ডলারের মূল্যমান কম থাকায় এ ঋণ কোম্পানীর জন্য অত্যন্তলাভ জনক ছিল।

ঋণ নেওয়ার পর থেকে UAEL নিয়মিত ভাবে কিস্তি পরিশোধ করে আসছে। গত ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ হিসাব অনুযায়ী মোট ৪৬.৪৫ মিলিয়ন ইউএস ডলার বকেয়া রয়েছে। যারমধ্যে IFC ১৬.০৬ মিলিয়ন ইউএস ডলার, DEG ১৬.০৬ মিলিয়ন ইউএস ডলার এবং ECA ১৪.৩৩  মিলিয়ন ইউএস ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার মূল্য প্রায় ৩৯৫ কোটি টাকা। বর্তমানে ইউএস ডলারের বাজারমূল্য মানের উর্ধগতির পাশাপাশি উল্লেখিত ঋণ সমূহের মূল সূচক তথা Libor হার বৃদ্ধি ইত্যাদির প্রেক্ষাপটে UAEL বোর্ড এই ঋণসমূহ মেয়াদোত্তীর্নের পূর্বেই পরিশোধের সিদ্ধান্ত নেয়।

গত ২০ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে UAEL ঋণ পরিশোধের অনুমোদনের জন্য Bangladesh Investment Development Authority (BIDA) নিকট আবেদন করে। তদপ্রেক্ষিতে BIDA গত ০৭ মার্চ ২০১৯ তারিখে ৩২.১২ মিলিয়ন ইউএস ডলার পরিশোধের জন্য অনুমোদন দেয়। যার মধ্যে IFC  ১৬.০৬ মিলিয়ন ইউএস ডলার, DEG এর ১৬.০৬ মিলিয়ন ইউএস ডলার রয়েছে। ECA থেকে নেওয়া ২২.৯৩ মিলিয়ন ইউএস ডলার এর অনুমোদন দেয়নি BIDA। কোম্পানী পুনরায় ECA এর ঋণ পরিশোধের জন্য BIDA এর নিকট আবেদন করেছে। যা অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ইউনাইটেড গ্রুপের সি.এফ.ও মোঃ ইবাদত হোসেন ভূঁইয়া, এফসিএ বলেন, “কোম্পানীর নিজস্ব তহবিল থেকে এ ঋণ পরিশোধ করা হবে। মেয়াদোত্তীর্নের পূর্বেই ঋণ পরিশোধ করার ফলে বৈদেশিক বিনিময়ের হার জনিত ক্ষতিও ঋণের সুদের টাকা সাশ্রয় হবে এবং UAEL এর নীট মুনাফা উল্লেখযোগ্য পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে”।

উল্লেখ্য, গত ১ জুলাই ২০১৮ তারিখে UEL, UAEL অধিগ্রহণ করে এবং একই তারিখে ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিমিটেড (ইউপিজিডিসিএল), UEL কে অধিগ্রহণ করে। গত ১ জুলাই ২০১৮ থেকে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত অনিরীক্ষিত অর্ধবার্ষিক প্রতিবেদন অনুযায়ী ইউনাইটেড পাওয়ার এর সমন্বিত ইপিএস হয়েছিল শেয়ার প্রতি ৭.৬৯ টাকা। ঋণ পরিশোধের ফলে UAEL এর নীট লাভ বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাব্যতার প্রেক্ষিতে UPGDCL  এর সমন্বিত ইপিএস বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

Top