সাপ্তাহিক বাজার: লেনদেন বেড়েছে ৩৩১ কোটি টাকা

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: সাপ্তাহিক ব্যবধানে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের উত্থান ঘটেছে। সপ্তাহজুড়ে লেনদেন হওয়া ৫ কার্যদিবসের মধ্যে তিন দিন কমেছে সূচক। বাকি দুই কার্যদিবস সূচক বাড়লেও এর মাত্রা তুলনা মূলক বেশি ছিলো। এদিকে সূচকের পাশাপাশি কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। আর টাকার অংকেও গত সপ্তাহে লেনদেনের পরিমান বেড়েছে। আলোচিত সপ্তাহটিতে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৭৯৩ কোটি ২ লাখ ১ হাজার ৫৪ টাকা।

সাপ্তাহিক বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, সপ্তাহ শেষে ডিএসই ব্রড ইনডেক্স বা ডিএসইএক্স সূচক কমেছে ০.৩৮ শতাংশ বা ১৯.৮১ পয়েন্ট। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসই-৩০ কমেছে ০.৮০ শতাংশ বা ১৪.৬১ পয়েন্ট। অপরদিকে শরীয়াহ বা ডিএসইএস সূচক কমেছে ০.৩৯ শতাংশ বা ৪.৬৬ পয়েন্ট। আর সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে তালিকাভুক্ত মোট ৩৫৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৭১টির কোম্পানির। আর দর কমেছে ১৪৩টির, অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির এবং লেনদেন হয়নি ২টির। এগুলোর ওপর ভর করে গত সপ্তাহে লেনদেন মোট ১ হাজার ৭৯৩ কোটি ২ লাখ ১ হাজার ৫৪ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। তবে এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয় ১ হাজার ৪৬১ কোটি ৫১ লাখ ৭৯ হাজার ৮৩৩ টাকার। সেই হিসাবে সমাপ্ত সপ্তাহে লেনদেন বেড়েছে ৩৩১ কোটি ৫০ লাখ ২১ হাজার ২২১ টাকা বা ২২.৬৮ শতাংশ।

আর সমাপ্ত সপ্তাহে ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৮৭.৫১ শতাংশ। ‘বি’ ক্যাটাগরির কোম্পানির লেনদেন হয়েছে ৭.৪৬ শতাংশ। ‘এন’ ক্যাটাগরির কোম্পানির লেনদেন হয়েছে ২.৬৫ শতাংশ। ‘জেড’ ক্যাটাগরির লেনদেন হয়েছে ২.৩৯ শতাংশ।

সপ্তাহ শেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সেচঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স ২১.৮১ পয়েন্ট বা ০.২২ শতাংশ বেড়ে সপ্তাহ শেষে দাঁড়িয়েছে ৯ হাজার ৭০৮ পয়েন্টে। আর সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে হাতবদল হওয়ার ২৯৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৪৪টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ১২২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩০টির। এগুলোর ওপর ভর করে বিদায়ী সপ্তাহে ১১২ কোটি ৩ লাখ ২৫ হাজার ৬৪৫ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top