ডিভিডেন্ড না দিয়ে রিটেইনড আর্নিংস-রিজার্ভ ভারি করার দিন শেষ: গুণতে হবে বাড়তি ট্যাক্স

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: বিনিয়োগকারীদের প্রত্যাশিত ডিভিডেন্ড না দিয়ে রিটেইনড আর্নিংস, রিজার্ভ ভারি করার দিন শেষ। যদি কোম্পানির কোনো আয় বছরে রিটেইনড আর্নিংস, রিজার্ভ ইত্যাদির সমষ্টি পরিশোধিত মূলধনের ৫০ শতাংশের বেশি হয় তাহলেই কো্ম্পানিকে গুণতে হবে অতিরিক্ত ১৫ শতাংশ ট্যাক্স। আজ প্রকাশিত প্রস্তাবিত বাজেট ২০১৯-২০২০’এ পুঁজিবাজার প্রণোদনা হিসেবে এই বাড়তি ১৫% ট্যাক্স আরোপের প্রস্তাব করা হয়েছে।

প্রস্তাবিত বাজেটে এ সংক্রান্ত বিষয়ে বলা হয়েছে, কোম্পানির অর্জিত মুনাফা থেকে শেয়ার হোল্ডারগণ তথা বিনিয়োগকারীদেরকে ডিভিডেন্ড দেওয়ার পরিবর্তে রিটেইনড আর্নিংস বা বিভিন্ন ধরণের রিজার্ভ হিসাবে রেখে দেওয়ার প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়। এতে প্রত্যাশিত ডিভিডেন্ড প্রাপ্তি থেকে বিনিয়োগকারীগণ বঞ্চিত হচ্ছেন এবং পুঁজিবাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। এ ধরণের প্রবণতা রোধে করা প্রয়োজন। এজন্য কোনো কোম্পানির কোনো আয় বছরে রিটেইনড আর্নিংস, রিজার্ভ ইত্যাদি সমষ্টি যদি পরিশোধিত মূলধনের ৫০ শতাংশের বেশি হয় তাহলে যতটুকু বেশি হবে তার ওপর সংশ্লিষ্ট কোম্পানিকে ১৫ শতাংশ কর প্রদানের বিধান প্রস্তাব করা হয়েছে।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

Top