শেয়ারবাজার শিক্ষা: করপোরেট গভর্ন্যান্স কোড

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর মধ্যে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় ২০১৮ সালের ৩ জুন গেজেট আকারে করপোরেট গভর্ন্যান্স কোর্ড জারি করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। তালিকাভুক্ত প্রতিটি কোম্পানিকেই বাধ্যতামূলকভাবে এই করপোরেট গভর্ন্যান্স কোড নিয়মিত পরিপালন করতে হবে। শেয়ারবাজার শিক্ষার এই কলামে আজকে করপোরেট গভর্ন্যান্স কোডের ধারাবাহিক প্রতিবেদনের প্রথম অংশ দেওয়া হলো:

করপোরেট গভর্ন্যান্স কোড:

০১. পরিচালনা পর্ষদ:

(১) পরিচালনা পর্ষদের আকার: কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদের বোর্ড মেম্বার ৫ জনের কম এবং ২০ জনের অধিক হবে না।

(২) স্বাধীন পরিচালক:

(ক) কোম্পানির বোর্ডে (পরিচালনা পর্ষদের বোর্ড) প্রতি ৫ জন পরিচালকদের ন্যূনতম একজন (এক পঞ্চমাংশ) স্বাধীন পরিচালক থাকতে হবে। যদি ফ্রাকশন (ভগ্নাংশ) হয় তাহলে পরের পূর্ণসংখ্যা হবে। অর্থাৎ যদি কোনো বোর্ডে ১২ জন পরিচালক থাকে সেক্ষেত্রে ৩ জন স্বাধীন পরিচালক থাকতে হবে।

(খ) স্বাধীন পরিচালক বলতে, (১) যিনি কোম্পানির কোনো শেয়ার ধারণ করেননি অথবা পরিশোধিত মূলধনের ১ শতাংশের নিচে শেয়ার ধারণ করেছেন।

(২) যিনি কোম্পানির স্পন্সর নন অথবা কোম্পানি বা তার সহযোগী, সিস্টার কনসার্ন, সাবসিডিয়ারি এবং প্যারেন্ট কোম্পানির স্পন্সর/পরিচালক/নমিনি পরিচালক/শেয়ারহোল্ডার যাদের হাতে কোম্পানির পরিশোধিত মূলধনের ১ শতাংশের বেশি শেয়ার রয়েছে তাদের সঙ্গে ফ্যামিলিগত সম্পর্ক রয়েছে। উল্লেখ্য, স্ত্রী, পুত্র, কন্যা, বাবা, মা, ভাই,বোন, জামাই এবং বউকে পরিবারের সদস্য হিসেবে গন্য করা হবে।

(৩) যিনি গত দুই অর্থবছরে সংশ্লিষ্ট কোম্পানির কোনো এক্সিকিউটিভ ছিলেন না।

(৪) অর্থনৈতিক কিংবা অন্যকোনভাবে যার সঙ্গে কোম্পানি বা তার সাবসিডিয়ারি বা সহযোগী কোম্পানির কোনো সম্পর্ক নেই।

(৫) যিনি স্টক এক্সচেঞ্জের কোনো মেম্বার, ট্রেকহোল্ডার, পরিচালক অথবা অফিসার নন।

(৬) যিনি ক্যাপিটাল মার্কেটের কোনো মধ্যস্থতাকারী বা স্টক এক্সচেঞ্জের ট্রেকহোল্ডারের কোনো শেয়ারহোল্ডার, স্বাধীন পরিচালক বাদে অন্য পরিচালক অথবা অফিসার নন।

(৭) যিনি কোম্পানির অভ্যন্তরীণ অডিট/বিশেষ অডিট/এই কোডের কমপ্লায়েন্সের প্রফেশনাল সার্টিফিকেট ইস্যুকারী কোনো বিধিবদ্ধ নিরীক্ষা ফার্ম অথবা নিরীক্ষা ফার্মের কোনো পার্টনার বা এক্সিকিউটিভ নন অথবা অডিট ফার্মের গত তিন বছরে কোনো পার্টনার বা এক্সিকিউটিভ ছিলেন না।

(৮) যিনি তালিকাভুক্ত ৫টির বেশি কোম্পানিতে স্বাধীন পরিচালক নন।

(৯) যিনি কোনো ব্যাংক অথবা নন-ব্যাংক ফিন্যান্সিয়াল ইন্সটিটিউশনের (এনবিএফআই) ঋণ কিংবা যেকোন অগ্রীম পরিশোধে ব্যর্থ হয়ে আদালত কর্তৃক খেলাপকারী (ডিফল্টার) হয়েছেন।

(১০) যিনি অনৈতিকভাবে ফৌজদারী অপরাধে অপরাধী হয়েছেন।

(গ) স্বাধীন পরিচালক বোর্ড কর্তৃক নিযুক্ত এবং বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) শেয়ারহোল্ডারদের মাধ্যমে অনুমোদিত হবেন।

(ঘ) স্বাধীন পরিচালকের পদ ৯০ দিনের বেশি খালি রাখা যাবে না।

(ঙ) স্বাধীন পরিচালকের মেয়াদ হবে ৩ বছর যা একবার বৃদ্ধি করা যাবে। তবে শর্ত থাকে যে, একজন প্রাক্তন স্বাধীন পরিচালক টানা ৬ বছর (দুই মেয়াদে) দায়িত্ব পালন করার পর এক মেয়াদ (৩ বছর) বিরতি দিয়ে পুনরায় নিয়োগকৃত হওয়ার যোগ্য হবেন। স্বাধীন পরিচালক কোম্পানি আইন ১৯৯৪ অনুসারে পরিচালকদের রোটেশনাল অবসরের আওতার বাইরে থাকবেন।

(৩) স্বাধীন পরিচালকের যোগ্যতা:

(ক) স্বাধীন পরিচালক ন্যায়পরায়ণ জ্ঞানসম্পন্ন ব্যক্তি হবেন যিনি ফিন্যান্সিয়াল আইন, রেগুলেটরদের প্রয়োজনীয়তা এবং করপোরেট আইন পরিপালন নিশ্চিত করবেন এবং ব্যবসায়ে অর্থপূর্ণ অবদান রাখবেন।

(খ) স্বাধীন পরিচালকের নিম্নোক্ত যোগ্যতা থাকতে হবে:

(১) বিজনেস লিডার যিনি ন্যূনতম ১০ কোটি টাকা পরিশোধিত মূলধনের অ-তালিকাভুক্ত কোম্পানি/যেকোন তালিকাভুক্ত কোম্পানির প্রবর্তক (প্রমোটার) বা পরিচালক ছিলেন অথবা আছেন অথবা যেকোন জাতীয় বা আর্ন্তজাতিক চেম্বার অব কমার্স বা বিজনেস এ্যাসোসিয়েশনের মেম্বার।

(২) করপোরেট লিডার যিনি ন্যূনতম ১০ কোটি টাকা পরিশোধিত মূলধনের অ-তালিকাভুক্ত কোম্পানি/যেকোন তালিকাভুক্ত কোম্পানির টপ লেবেল এক্সিকিউটিভ। টপ লেবেল এক্সিকিউটিভ বলতে, ব্যবস্থাপনা পরিচালক অথবা চীফ এক্সিকিউটিভ অফিসার (সিইও), অতিরিক্ত বা উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক, চীফ অপারেটিং অফিসার (সিওও), চীফ ফিন্যান্সিয়াল অফিসার (সিএফও), কোম্পানি সেক্রেটারি (সিএস), হেড অব ইন্টার্নাল অডিট অ্যান্ড কমপ্লায়েন্স (এইচআইএসি), হেড অব অ্যাডমিনিস্ট্রেশন এবং হিউম্যান রিসোর্স অথবা সমকক্ষ পজিশন এবং কোম্পানির একই লেবেল অথবা র‌্যাঙ্ক অথবা বেতনভুক্ত কর্মচারী।

(৩) অর্থনীতি/কমার্স/বিজনেস/আইন বিষয়ক ডিগ্রীধারী সরকারি, স্ট্যাচুটরি, স্বায়ত্বশাসিত অথবা রেগুলেটরি বডি’র প্রাক্তন কর্মকর্তা যিনি জাতীয় পে স্কেলের ৫ম গ্রেডের নিচে নন।

(৪) অর্থনীতি/কমার্স/বিজনেস/আইনী বিষয়ক শিক্ষাগত ব্যাকগ্রাউন্ডের ইউনিভার্সিটি টিচার।

(৫) প্রফেশনাল যিনি কমপক্ষে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশনে ওকালতি প্রাকটিস করেছেন বা করছেন অথবা চ্যাটার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট/ কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্ট/চ্যার্টার্ড ফিন্যান্সিয়াল এনালিস্ট/চ্যার্টার্ড সার্টিফাইড অ্যাকাউন্ট্যান্ট/সার্টিফাইড পাবলিক অ্যাকাউন্ট্যান্ট/চ্যার্টার্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্ট/চ্যার্টার্ড সেক্রেটারি/সমজাতীয় যোগ্যতা।

(গ) স্বাধীন পরিচালককে  ক্লজ (খ) তে উল্লেখিত ফিল্ডে কমপক্ষে ১০ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

(ঘ) বিশেষ ক্ষেত্রে কমিশনের অনুমোদনক্রমে উল্লেখিত যোগ্যতা বা অভিজ্ঞতা শিথিল করা যেতে পারে।

চলবে……….

 

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

Top