পেরুকে গুঁড়িয়ে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল

শেয়ারবাজার ডেস্ক: পরিসংখ্যান থেকে শুরু করে দুই দলের শক্তিমত্তা—সবকিছুতেই পেরুর চেয়ে কয়েক কদম এগিয়ে ব্রাজিল। অন্তত এই কোপা আমেরিকায় তো বটেই! এর আগে যে চারবার (১৯১৯, ১৯২২, ১৯৪৯ ও ১৯৮৯) নিজেদের মাটিতে কোপা আমেরিকা আয়োজন করেছিল ব্রাজিল, প্রতিবারই শিরোপাটা নিজেদের করে নিয়েছে স্বাগতিকেরা। এবারও তার হেরফের হলো না। পেরুকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ২০১৯ কোপা আমেরিকার শিরোপা জিতেছে ব্রাজিল।

রোববার (৭ জুলাই) দিবাগত রাতে রিও ডি জেনেরিও’র ঐতিহাসিক মারাকানা স্টেডিয়ামে কোপা আমেরিকা ২০১৯ এর ফাইনালে মুখোমুখি হয় স্বাগতিক ব্রাজিল ও পেরু।

ম্যাচের প্রথম সুযোগ পেয়েই গোল করে ব্রাজিল। ম্যাচ শুরুর মাত্র ১৫তম মিনিটেই ডান প্রান্তে ফাঁকা খুঁজে নেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস। সুযোগ বুঝে দারুণ এক ডেলিভারিতে বল পেরুর গোল পোস্টের দূরের প্রান্তে থাকা এভারটনের দিকে বাড়িয়ে দেন এই ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার। সেখানে আন-মার্ক থাকা মিডফিল্ডার এভারটন দারুণ দক্ষতায় বল জালে জড়িয়ে দেন। পেরুর বিপক্ষে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় ব্রাজিল আর উল্লাসে ফেটে পড়ে পুরো মারাকানা স্টেডিয়াম।

তবে ৪৪তম মিনিটে পাওলো গেরেরার গোলে ১-১ সমতায় চলে আসে পেরু। কোপার পুরো আসরে এবার এই একটি গোলই হজম করেছে ব্রাজিল।

পেরুর সমতায় ফেরার স্বস্তি অবশ্য বেশিক্ষণ থাকেনি। বিরতির ঠিক আগে যোগ করা সময়ে আর্থারের পাস ধরে ডি-বক্সে ঢুকে নিচু কোনাকুনি শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন জেসুস। আসরে ম্যানচেস্টার সিটির ফরোয়ার্ডের এটি দ্বিতীয় গোল। সেমি-ফাইনালে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ২-০ গোলের জয়ে দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন তিনি।

দ্বিতীয়ার্ধের প্রথম ১০ মিনিটে দুটি সুযোগ পেয়েছিলেন ফিরমিনো। ডি-বক্সের ভেতরে বল পেয়ে কোনাকুনি শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি। একটু পর বাঁ দিক থেকে ক্রসে তার হেড পোস্টের বাইরে দিয়ে যায়।

৭০তম মিনিটে বড় ধাক্কা খায় ব্রাজিল। প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডার কার্লোস সামব্রানোকে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন জেসুস।

প্রতিপক্ষে একজন কম থাকার সুযোগ অবশ্য কাজে লাগাতে পারেনি পেরু। উল্টো নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে তারা হজম করে তৃতীয় গোল।

ডিফেন্ডার সামব্রানো ডি-বক্সে এভেরতনকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিলে পেনাল্টি দেন রেফারি। ভিএআর প্রযুক্তিতে যাচাই করেও সিদ্ধান্ত অপরিবর্তিত রাখেন তিনি। ফিরমিনোর বদলি নামা রিশার্লিসন স্পট কিকে স্কোরলাইন ৩-১ করেন।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top