পালিয়ে বিয়ে করেছিলেন কলকাতার দাদা খ্যাত মহারাজা

শেয়ারবাজার ডেস্ক: ‘পালিয়ে বিয়ে করেছেন সৌরভ গাঙ্গুলী!’ একটা সময় গণমাধ্যমে কড়া রং মেখে এমনি নিউজ প্রকাশ করা হয়েছে। কিন্তু ঘটনাটা আসলেই তেমন ছিল না। এরপর সৌরভ নিজেই জানিয়েছিলেন- ধুমধাম করেই তাদের বিয়ে হয়েছিল। সানাই বাজিয়ে সবাইকে জানান দিয়েই বাবা চণ্ড গাঙ্গুলী পুত্রের বিয়ে দিয়েছিলেন। ১৯৯৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে ডোনার সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল কলকাতার মহারাজার।

তবে এটা সত্যি যে, ডোনাকে ভালোবেসেই বিয়ে করেছিলেন গাঙ্গুলী। শুরুর দিকে তাতের সম্পর্ক নিয়ে পরিবারের আপত্তি থাকলেও ঘরের ছোটছেলের ভালবাসার পাত্রীকেই বউ হিসেবে মেনে নিয়েছিলেন চণ্ডী গাঙ্গুলী।

ভারতের সাবেক এই সফল অধিনায়কের বিয়ে নিয়ে বিভিন্ন সময় সংবাদমাধ্যমে রং চড়া খবর প্রকাশ হলেও সৌরভ জানান, তার আগে গাঙ্গুলি পরিবারে কেউ লাভ ম্যারেজ করেনি। আর সেই কারণেই বাড়িতে ডোনার কথা বলতে খানিক ভয়ই হয়েছিল তার। কিন্তু পরে তার আর ডোনার সম্পর্কের কথা জানতে পেরে চন্ডী গাঙ্গুলি সৌরভকে বলেছিলেন, ‘মন দিয়ে ক্রিকেট খেল, বাকিটা আমি সামলে নেবো।’

মূলত ফুটবলপ্রেমী সৌরভের ক্রিকেটে ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল কাকতালীয়ভাবেই। টাইফয়েডের কারণে সেবার বাংলা দলের ৭ জন ক্রিকেটার ছিটকে গিয়েছিলেন। তখনই ক্রিকেট খেলার সুযোগ আসে সৌরভের। আর সেই সুযোগের সদ্ব্যবহার করে শতরান করেছিলেন কলকাতার দাদা খ্যাত সৌরভ। আর পরে দাদা স্নেহাশিষের বদলি হিসেবে রঞ্জি দলে ডাক পেয়ে সৌরভ ছড়িয়েছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলী।

উপমহাদেশের বাইরে গাঙ্গুলীই প্রথম ভারতকে ম্যাচ জেতাতে শিখিয়েছেন। ভারতের দলগত পারফরম্যান্সের মন্ত্রটাও তারই দেয়া। একদিনের ম্যাচ আর টেস্ট মিলিয়ে ২০ হাজারের বেশি আছে সৌরভের ঝুলিতে। আছে ৩৮টি সেঞ্চুরি।

শেয়ারবাজারনিউজ/মা

আপনার মন্তব্য

Top