বাড়ছে অস্থিরতা: ৫ টাকার নিচে ১৮ কোম্পানির শেয়ার দর

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজার উন্নয়নে এতো কাজ করার পরও একটি গতিশীল বাজার তৈরি করতে পারেনি নীতি নির্ধারণী মহল। বারংবার হোঁচট খাওয়ার পর ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলেও পুঁজিবাজারকে অদৃশ্য চক্রের কাছে পরাজিত হতে হচ্ছে। সাম্প্রতিক বাজারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আস্থা এতোটাই চির ধরেছে যে কোম্পানির শেয়ার দর একটি কম দামি চকলেটের সমমূল্যে চলে এসেছে। ফেসভ্যালুর নিচে মিউচ্যুয়াল ফান্ডগুলোর করুণ অবস্থার চিত্র বিগত ৬ বছর থেকেই বিনিয়োগকারীরা দেখে আসছে। কিন্তু একটি লিস্টেড কোম্পানির শেয়ার দর ৫ টাকা কিংবা তারও নিচে চলে আসবে সেই চিত্র দেখার ইচ্ছে কেউ করে না।

প্রতিনিয়ত পুঁজি হারাচ্ছেন বিনিয়োগকারীরা। কিছু জাঙ্ক শেয়ার ছাড়া ভালো মৌলভিত্তি কোম্পানির শেয়ার দর তলানিতে এসে ঠেকেছে। তালিকাভুক্ত ৬ কোম্পানির শেয়ার দর ৫ টাকার নিচে চলে এসেছে।

ডিএসই সূত্রে জানা যায়, ব্যাংকিং খাতের আইসিবি ইসলামী ব্যাংকের শেয়ার দর ৩.৪০ টাকা। প্রকৌশল খাতের অ্যাপোলা ইষ্পাতের শেয়ার দর ৪ টাকা। নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ৪ কোম্পানির শেয়ার দর ৫ টাকার নিচে। এর মধ্যে বিআইএফসি ২.৪০ টাকা, ফারইষ্ট ফাইন্যান্স ৩.৯০ টাকা, ফার্স্ট ফাইন্যান্স ৩.৯০ টাকা, পিএলএফ ৩ টাকা। ওষুদ ও রসায়ন খাতের দুই কোম্পানির মধ্যে বেক্সিমকো সিনথেটিকসের শেয়ার দর ৩.৬০ টাকা এবং কেয়া কসমেটিকসের শেয়ার দর ৩.৬০ টাকা। বস্ত্রখাতের ১০ কোম্পানির শেয়ার দর ৫ টাকার নিচে অবস্থান করছে। এর মধ্যে সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইলস লিমিটেডের শেয়ার দর ২ টাকায় লেনদেন হচ্ছে। এছাড়া ঢাকা ডাইংয়ের শেয়ার দর রয়েছে ৩.২০ টাকা, ডেল্টা  স্পিনার্সের শেয়ার দর ৩.৮০ টাকা,  ফ্যামিলিটেক্সের শেয়ার দর ২.৬০ টাকা, জেনারেশন নেক্সট ২.৬০ টাকা, ম্যাকসন স্পিনিং ৪.৫০ টাকা, আরএন স্পিনিং ৩ টাকা, তাল্লু স্পিনিং ৩.৩০ টাকা, তুংহাই নিটিং ২.২০ টাকা এবং জাহিন টেক্সের শেয়ার দর অবস্থান করছে ৩.৬০ টাকায়।

উল্লেখিত কোম্পানির বিদ্যমান বিনিয়োগকারীরা দিনের পর লোকসান বয়ে বেড়াচ্ছে। অন্যদিকে কোম্পানির আর্থিক গ্রোথ ভালো না থাকায় নতুন বিনিয়োগকারীরাও এসব কোম্পানিতে বিনিয়োগে আস্থা পাচ্ছেন না। তারওপরে সার্বিক বাজার মন্দায় এগুলোর শেয়ার দর দিনের পর দিন তলানিতে এসে পড়ছে। তবে বাজার পরিস্থিতি ইতিবাচক থাকলে বিনিয়োগকারীরা ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পেতেন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

৪ Comments

  1. UZZAL said:

    যেহেতু প্রতিটি শেয়ারের ফেইজভেলু কোম্পানি 10 টাকা করে নিচ্ছে সেহেতু কোন শেয়ার 10 টাকার নিচে এলে ঐ কোম্পানিকে ডি,এস.ইর চাপ দেওয়া উচিত যাতে শেয়ার এর মূল্যটা 10 টাকার উপরে থাকে,

    • Anonymous said:

      ডিএসসি ত টাকা খাইয়া এগুলি অনুমোদনদিছএ

  2. Anonymous said:

    আইন করা উচিৎ কোন শেয়ার ১০ টাকার নিচে নামলে কোম্পানিকে শেয়ার কিনে নিতে হবে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top