৬৩ বছর ধরে বালি খান এই নারী

শেয়ারবাজার ডেস্ক: দিনে পাঁচ থেকে ছয়বার দুই মুঠো করে বালি খেয়ে আসছেন ভারতের বারাণসী নিবাসী ৭৮ বছর বয়সী কুসমাবতী। ৬৩ বছর ধরে বালি খেয়ে শরীর অসুস্থ হওয়ার কথা থাকলেও উল্টো নীরোগ আছেন তিনি। সমবয়সী অন্য যে কোনো বৃদ্ধ বা বৃদ্ধার তুলনায় অনেক শক্তপোক্ত দেহ কুসমাবতীর। এখনো কৃষি কাজ করেন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত। তবে কুসমাবতী নামের এই বৃদ্ধার এমন সুস্বাস্থ্যের রহস্যটা বড়ই অদ্ভুত। বৃদ্ধার নিজের দাবি, প্রতি দিন নিয়মিত বালি খাওয়ার অভ্যাসই তার এই বার্ধক্যরূপী তারুণ্যের মূল।

এমন অদ্ভুত অভ্যাসের কারণ সম্পর্কে কুসমাবতী দেবী জানান, কুসমসবতীর বয়স যখন পনেরো বছর,তখন এক বার দুরারোগ্য পেটের অসুখে শয্যাশায়ী হয়ে পড়েন তিনি। কোনো এক আত্মীয় পরামর্শ দেন, বালি খেলেই রোগমুক্তি ঘটবে। পরামর্শ শিরোধার্য করে বালি খেতে শুরু করেন কুসমাবতী। কয়েক দিনের মধ্যেই সেরে যায় রোগ। সেই শুরু। তারপর ৬৩ বছর কেটে গিয়েছে, কিন্তু বালি খাওয়ার অভ্যাস কুসমাবতী ছাড়েননি। কুসমাবতীর ছেলে রমেশ জানান, ‘আপত্তি করব কেন? ছোটবেলা থেকেই তো মা কে বালি খেতে দেখছি। আর কোনো দিন তো এর জন্য মায়ের শরীর খারাপ হয়েছে বলে দেখিনি। আর মা যে শুধু বালিই খান, তা তো নয়। অন্যান্য খাবার-দাবারের পাশাপাশি কয়েক মুঠো বালিও খেয়ে নেন, অনেকটা ওষুধের মতোই। মায়ের বিশ্বাস, বালি খেলে শরীর ভাল থাকে।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

Top