আইপিওতে কোটা পাচ্ছে অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড: ভেঞ্চার ক্যাপিটাল কার্যকরে ১৪ সুপারিশ

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: বিনিয়োগের বিকল্প উৎস ‘ভেঞ্চার ক্যাপিটাল’ এর বাধা দূর করতে ১৪ সুপারিশ করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ। এর মধ্যে স্ট্যাম্প ডিউটি প্রত্যাহারসহ অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডকে আইপিওতে কোটা দেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। ভেঞ্চার ক্যাপিটাল এবং ইনভেস্টমেন্ট ইকো-সিস্টেম সংক্রান্ত পলিসি গাইডলাইন প্রণয়ন কমিটির সভাপতি ও অতিরিক্ত সচিব অরিজিৎ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত সুপারিশ করা হয়েছে। অর্থমন্ত্রনালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ভেঞ্চার ক্যাপিটাল কার্যকরে যে ১৪ সুপারিশ হয়েছে সেগুলো হলো:

০১. বিনিয়োগের শুরুর আগেই প্রদেয় ২% স্ট্যাম্প ডিউটি থেকে বিকল্প বিনিয়োগ তহবিলকে (অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড) অব্যাহতি প্রদান। এই সুপারিশটি বাস্তবায়ন করতে অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ।

০২. ব্যাংক ও অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানের রিটেইনড আর্নিংস হতে অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্টে নির্দিষ্ট পরিমাণ বিনিয়োগ/ অর্থায়নের সুযোগ করা যেতে পারে। এই সুপারিশটি বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ ব্যাংক।

০৩. বীমা প্রতিষ্ঠানের লভ্যাংশ থেকে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল তথা অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডে বিনিয়োগ করা যেতে পারে। এই সুপারিশটি বাস্তবায়ন করবে আইডিআরএ।

০৪. অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিগুলোকে ১০ বছরের জন্য কর অবকাশ দেয়া যেতে পারে। এই সুপারিশটি বাস্তবায়ন করবে এনবিআর।

০৫. অন্যান্য আর্থিক সেবার তুলনায় অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড নি:সন্দেহে অধিকতর ঝুঁকি বহন করে। অথচ ফান্ডের অপ্রতুলতার কারণে এক্ষেত্রে অর্থায়নের পরিমাণ সীমিত। তাই অর্থায়নের সুযোগ বৃদ্ধির জন্য অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্টে বিনিয়োগের বিপরীতে ব্যাংকগুলোর সঞ্চিতি বর্তমানে ১৫০% এর স্থলে ২ বছরের জন্য ১০০% নির্ধারণ করা যেতে পারে। এই সুপারিশটি বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ ব্যাংক।

০৬. বিদেশি বিনিয়োগকারীরা বর্তমানে বাংলাদেশ বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে আগ্রহী। এক্ষেত্রে স্বল্পতম সময়ে অর্থ আদান প্রদান করার জন্য এনআইটিএ পদ্ধতি সংস্কারের ব্যবস্থা নেয়া যেতে পারে। এই সুপারিশটি বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ ব্যাংক।

০৭. পুঁজিবাজারে আসার জন্য বিনিয়োগ বহবিল হতে এক্সিট সংক্রান্ত রুলস বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) কর্তৃক সংশোধন করা হয়েছে। এ প্রেক্ষিতে ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে প্রয়োজনীয় কারিগরি প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে হবে। এই সুপারিশটি বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন।

০৮. অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের ঝুঁকি হ্রাসের জন্য অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্টের প্রকল্পসমূহের জন্য বিশেষ প্রিমিয়ামে বীমা প্রচলন করা যেতে পারে। এটি বাস্তবায়ন করবে আইডিআরএ।

০৯. বিকল্প বিনিয়োগ তহবিল ব্যবস্থাপকেরা বর্ধনশীল পর্যায়ে রয়েছে। কোম্পানিগুলোর আয় খুব সীমিত। এই ক্ষুদ্র আয়ের ওপর আরোপিত সকল ফি এই শিল্পের জন্য হুমকি হতে পারে। অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড ম্যানেজাররা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনকে যে বাৎসরিক ফি, আবেদন ফি ও নিজস্ব ফি প্রদান করে তা আরো সহনীয় মাত্রায় নির্ধারণ করা যেতে পারে। এটি বাস্তবায়ন করবে বিএসইসি।

১০. তহবিলের ও তহবিল ব্যবস্থাপকের ওপর আরোপিত কর ও স্ট্যাম্প ডিউটিতে অসামঞ্জস্যতা রয়েছে এবং তা ভেঞ্চার ক্যাপিটালের জন্য সহায়ক নয়। আপাতত কর ও ডিউটিমুক্ত সুবিধা প্রদান করা হলে অদূর ভবিষ্যতে সরকারের আয় বৃদ্ধির ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে। এটি বাস্তবায়ন করবে এনবিআর।

১১. এ ধরণের উদ্যোগকে উৎসাহিত করার জন্য আইপিওতে অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের কোটা নির্ধারণ করার বিষয়টি বিএসইসি পর্যালোচনা করে দেখতে পারে। এটি বাস্তবায়ন করবে বিএসইসি।

১২. রেমিটেন্স হস্তান্তরের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন নিতে হয়। এ প্রক্রিয়া সময় সাপেক্ষ। বাংলাদেশ ব্যাংক আলাদা সার্কুলার জারি বা আইন পরিবর্তনের মাধ্যমে রেমিটেন্স হস্তান্তর প্রক্রিয়া দ্রুত করতে পারে। এটি বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ ব্যাংক

১৩. ব্যক্তির ক্ষেত্রে অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট বিনিয়োগে কর রেয়াত সুবিধা প্রদানের বিষয়টি পর্যালোচনা করা যেতে পারে। এটি বাস্তবায়ন করবে এনবিআর।

১৪. সম্ভাব্য বিনিয়োগকারীগণ দেশে নতুন বিকল্প বিনিয়োগ তথা ভেঞ্চার ক্যাপিটাল সম্পর্কে ওয়াকিবহাল নন। এই সমস্যা দূরীকরণে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন বোর্ড (বিডা) এবং বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য প্রতিষ্ঠানসমূহ গণসচেতনতা বৃদ্ধির জন্য দেশি ও বিদেশি বিনিয়োগকারীর অংশগ্রহণে সচেতনতামূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে পারে। এটি বাস্তবায়ন করবে বিএসইসি ও বিডা।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top