ভয়াবহ দরপতনে বিশ্ব শেয়ারবাজার

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: আমেরিকা, ইউরোপ ও এশিয়ার বেশিরভাগ শেয়ারবাজার ভয়াবহ দরপতন হয়েছে। গেল সপ্তাহে বিশ্ব শেয়ারবাজারে যে পরিমাণ দরপতন হয়েছে আগে খুব কমই এরকম হয়েছে। মূলত বিশ্ব পরিস্থিতি মন্দাবস্থার কারণে ইউরোপ, আমেরিকার বড় বড় শেয়ারবাজারে ব্যাপক দরপতন চলছে। যার বিশাল একটি প্রভাব পড়েছে এশিয়ার শেয়ারবাজারে।

নিম্নে যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ ও এশিয়ার শেয়ারবাজারের চিত্র তুলে ধরা হলো:

যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজার:  ব্যাপক দরপতনে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বেশিরভাগ শেয়ারবাজার। যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজার ডাউ জোন্সের সূচক সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ১.৩৯ শতাংশ বা ৩৫৭.২৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২৫৪০৯.৩৬ পয়েন্ট। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ১২.৩৬ শতাংশ কমেছে। এসঅ্যান্ডপি ৫০০ ইনডেক্স ০.৮২ শতাংশ বা ২৪.৫৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২৯৫৪.২২ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে এসঅ্যান্ডপি’র সূচক ১১.৪৯ শতাংশ কমেছে। নাসডাক কম্পোজিট সূচক আগের দিনের চেয়ে ০.০১ শতাংশ বা ০.৮৯ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৫৬৭.৩৭ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে নাসডাকের সূচক ১০.৫৪ শতাংশ কমেছে। এছাড়া নিউইয়র্ক স্টক এক্সচেঞ্জের কম্পোজিট ইনডেক্সে সূচক আগের দিনের চেয়ে ১.৩৩ শতাংশ বা ১৬৬.২৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১২৩৮০.৯৭ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে নিউইয়র্ক কম্পোজিট সূচক ১১.৪১ শতাংশ বেড়েছে।

ইউরোপের শেয়ারবাজার:   আমেরিকার মতো ইউরোপের শেয়ারবাজারেও ভয়াবহ দরপতন হয়েছে। যুক্তরাজ্যের এফটিএসই-১০০ ইনডেক্স গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ৩.১৮ শতাংশ বা ২১৫.৭৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৬৫৮০.৬১ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে এফটিএসই-১০০ সূচক ১১.১২ শতাংশ কমেছে। জার্মানির শেয়ারবাজার ডেক্স ইনডেক্স এর সূচক আগের দিনের চেয়ে ৩.৮৬ শতাংশ বা ৪৭৭.১১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১১৮৯০.৩৫ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ১২.৪৪ শতাংশ কমেছে। ফ্রান্সের সিএসি-৪০ ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৩.৩৮ শতাংশ বা ১৮৫.৭০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫৩০৯.৯০ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ১১.৯৪ শতাংশ কমেছে। ইতালির স্টক এক্সচেঞ্জ এফটিএসই এমআইবি ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৩.৫৮ শতাংশ বা ৮১৫.১৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২১৯৮৪.২১ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ১১.২৬ শতাংশ কমেছে।

এশিয়ার শেয়ারবাজার:  ইউরোপ ও আমেরিকার শেয়ারবাজারের নেতিবাচক প্রভাব থেকে বাদ যায়নি এশিয়ার শেয়ারবাজারও। গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে জাপানের শেয়ারবাজার নিক্কি ২২৫ এর সূচক আগের দিনের চেয়ে ৩.৬৭ শতাংশ বা ৮০৫.২৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২১১৪২.৯৬ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ৯.৫৯ শতাংশ কমেছে। হংকংয়ের শেয়ারবাজার হ্যাং সেং এর সূচক আগের দিনের চেয়ে ২.৪২ শতাংশ বা ৬৪৮.৬৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২৬১২৯.৯৩ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ৪.৩২ শতাংশ কমেছে। চীনের শেয়ারবাজার সাংহাই সী কম্পোজিটের সূচক আগের দিনের তুলনায় ৩.৭১ শতাংশ বা ১১১.০৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২৮৮০.৩০ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ৫.২৪ শতাংশ কমেছে। ভারতের বোম্বে স্টক এক্সচেঞ্জের সেনসেক্স-৩০ ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৩.৬৪ শতাংশ বা ১৪৪৮.৩৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৩৮২৯৭.২৯ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ৬.৯৮ শতাংশ কমেছে। এছাড়া সিঙ্গাপুরের এফটিএসই স্ট্রেট টাইম ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৩.২৩ শতাংশ বা ১০০.৬২ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৩০১১.০৮ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ৫.৩৪ শতাংশ কমেছে।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top