করোনায় কুপোকাত বিশ্ব শেয়ারবাজার: ব্যাপক ধস

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: গেল দুই সপ্তাহ ধরে করোনার কুপোকাতে বিশ্ব শেয়ারবাজারে ব্যাপক দরপতন হয়েছে। তবে সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে আমেরিকা ও ইউরোপের শেয়ারবাজারের সূচকের ব্যাপক উত্থান হওয়ায় করোনার আতঙ্ক কিছুটা কমেছে। তবে আতঙ্ক কাটেনি এশিয়ার শেয়ারবাজারে।

নিম্নে যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ ও এশিয়ার শেয়ারবাজারের চিত্র তুলে ধরা হলো:

যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজার: করোনার আতঙ্ক কাটিয়ে ব্যাপক উত্থানে সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস পার করেছে যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজার। তবে সারা সপ্তাহজুড়ে যে পতন হয়েছে তাতে গড়ে সাপ্তাহিক সূচকের ব্যাপক পতন হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজার ডাউ জোন্সের সূচক সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ৯.৩৬ শতাংশ বা ১৯৮৫. পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৩১৮৫.৬২ পয়েন্ট। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ১০.৩৬ শতাংশ কমেছে। এসঅ্যান্ডপি ৫০০ ইনডেক্স ৯.২৯ শতাংশ বা ২৩০.৩৮ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৭১১.০২ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে এসঅ্যান্ডপি’র সূচক ৮.৭৯ শতাংশ কমেছে। নাসডাক কম্পোজিট সূচক আগের দিনের চেয়ে ৯.৩৫ শতাংশ বা ৬৭৩.০৭ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৮৭৪.৩৭ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে নাসডাকের সূচক ৮.১৭ শতাংশ কমেছে। এছাড়া নিউইয়র্ক স্টক এক্সচেঞ্জের কম্পোজিট ইনডেক্সে সূচক আগের দিনের চেয়ে ৭.৮৬ শতাংশ বা ৭৯১.২১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১০৮৫১.৯৮ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে নিউইয়র্ক কম্পোজিট সূচক ১২.১৪ শতাংশ বেড়েছে।

ইউরোপের শেয়ারবাজার:   আমেরিকার মতো ইউরোপের শেয়ারবাজারেও একই অবস্থা বিরাজ করছে। সপ্তাহজুড়ে ইউরোপের শেয়ারবাজাগুলোতে ভয়াবহ দরপতন হয়েছে। তবে শেষ কার্যদিবসে সূচকের উত্থানে কিছুটা প্রাণ ফিরে পেয়েছে। যুক্তরাজ্যের এফটিএসই-১০০ ইনডেক্স গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ২.৪৬ শতাংশ বা ১২৮.৬৩ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৩৬৬.১১ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে এফটিএসই-১০০ সূচক ১৬.৯৭ শতাংশ কমেছে। জার্মানির শেয়ারবাজার ডেক্স ইনডেক্স এর সূচক আগের দিনের চেয়ে ০.৭৭ শতাংশ বা ৭০.৯৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯২৩২.০৮ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ২০.০১ শতাংশ কমেছে। ফ্রান্সের সিএসি-৪০ ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ১.৮৩ শতাংশ বা ৭৪.১০ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪১১৮.৩৬ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ১৯.৮৬ শতাংশ কমেছে। ইতালির স্টক এক্সচেঞ্জ এফটিএসই এমআইবি ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৭.১২ শতাংশ বা ১০৫৯.৮৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫৯৫৪.২৯ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ২৩.৩০ শতাংশ কমেছে।

এশিয়ার শেয়ারবাজার:  ইউরোপ ও আমেরিকার শেয়ারবাজারে সপ্তাহের শেষদিনে ঘুরে দাঁড়ালেও আতঙ্ক কাটেনি এশিয়ার শেয়ারবাজারে। ভারতের সেনসেক্স ছাড়া অন্যান্য শেয়ারবাজারে রয়েছে বেহাল অবস্থা। গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে জাপানের শেয়ারবাজার নিক্কি ২২৫ এর সূচক আগের দিনের চেয়ে ৬.০৮ শতাংশ বা ১১২৮. পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৭৪৩১.০৫ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ১৫.৯৯ শতাংশ কমেছে। হংকংয়ের শেয়ারবাজার হ্যাং সেং এর সূচক আগের দিনের চেয়ে ১.১৪ শতাংশ বা ২৭৬.১৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২৪০৩২.৯১ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ৮.০৮ শতাংশ কমেছে। চীনের শেয়ারবাজার সাংহাই সী কম্পোজিটের সূচক আগের দিনের তুলনায় ১.২৩ শতাংশ বা ৩৬.০৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২৮৮৭.৪৩ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ৪.৮৫ শতাংশ কমেছে। ভারতের বোম্বে স্টক এক্সচেঞ্জের সেনসেক্স-৩০ ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৪.০৪ শতাংশ বা ১৩২৫.৩৪ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৪১০৩.৪৮ পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ৯.২৪ শতাংশ কমেছে। এছাড়া সিঙ্গাপুরের এফটিএসই স্ট্রেট টাইম ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ১.৬৭ শতাংশ বা ৪৪.৬৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২৬৩৪. পয়েন্টে। সপ্তাহজুড়ে স্টক এক্সচেঞ্জটির সূচক ১১.০৪ শতাংশ কমেছে।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top