করোনাভাইরাসের রোগী শনাক্ত চীনে স্মার্ট হেলমেট

শেয়ারবাজার ডেস্ক: করোনাভাইরাসের সংক্রমণের শিকার হওয়া নতুন রোগী শনাক্তে অভিনব ব্যবস্থা নিয়েছে চীন সরকার। সম্প্রতি দেশটির কিছু পুলিশ অফিসারকে নতুন হেলমেট দিতে শুরু করেছে চীনের কমিউনিস্ট সরকার। এই হেলমেট দারুণ টেকসই বলে সহজে ভাঙবে না। এতে থাকছে বিশেষ স্মার্ট ফিচার। হেলমেটের মাধ্যমেই থার্মাল ইমেজ দেখা যাবে। এ ছাড়া রাস্তায় গাড়ির রেজিস্ট্রেশন প্লেট চিনতে সাহায্য করবে স্মার্ট হেলমেট। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো করোনাভাইরাসের রোগী শনাক্তে চীনে স্মার্ট হেলমেট ব্যবহার করা শুরু হচ্ছে।

সম্প্রতি চীনের সিনহুয়া নিউজ ওই হেলমেটের একটি ভিডিও টুইট করেছে। ভিডিওতে ইতিমধ্যেই দেশটির সেনঝেনের রাস্তায় হেলমেট পরা পুলিশ সদস্যদের দেখা গিয়েছে। যদিও বাইরে থেকে এই স্মার্ট হেলমেট দেখে বিশেষ কিছু বোঝার উপায় নেই; হেলমেটের কাচের পেছনে বিশেষ ক্যামেরার মাধ্যমে এই হেলমেট কাজ করবে।

নতুন এই স্মার্ট হেলমেটের মাধ্যমে মানুষের দিকে তাকালে তার শরীরের তাপমাত্রা দেখে নেওয়া যাবে, যা দেখে সামনের ব্যক্তির করোনাভাইরাস সংক্রমণ হয়েছে কি না, বুঝে নিতে পারবেন পুলিশ কর্মকর্তা।

হেলমেট সম্পর্কে বিশেষ কোনো তথ্য সামনে না এলেও বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ফেসিয়াল রিকগনিশনেও কাজে লাগতে পারে এই হেলমেট। ইতিমধ্যেই গাড়ির নম্বর প্লেট দেখে যেকোনো গাড়িতে চিহ্নিত করতে পারবে এই হেলমেট, যা দেখে রাস্তায় দ্রুত অপরাধী চিহ্নিত করা যাবে। ফেসিয়াল রিকগনিশনের মাধ্যমে নির্দিষ্ট মানুষকে চিহ্নিত করার পর তার শরীরের তাপমাত্রা রেকর্ড করে রাখতে পারবে এই হেলমেট।

উল্লেখ্য, চেহারা শনাক্তকরণসহ ইলেকট্রনিক সারভেইলেনস বা নজরদারির কাজে বিশ্বসেরা প্রযুক্তি ব্যবহার করে চীন। সম্প্রতি চীনা প্রতিষ্ঠান হানওয়াং টেকনোলজি লিমিটেড মাস্ক পরিধানকারীকেও তাদের প্রযুক্তি শনাক্ত করতে পারবে বলে ঘোষণা দেয়। করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে শুরু করলে গত জানুয়ারিতে কাজ শুরু করে হানওয়াং। এক মাসের মধ্যেই প্রযুক্তিটি বাজারজাত শুরু করে তারা।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top