৭ তলা পুরো বাড়ির ভাড়া মওকুফ করলেন কুয়েত প্রবাসী আব্দুর রহমান

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: মানবতার আরেক দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন কুয়েত প্রবাসী ব্যবসায়ী আব্দুর রহমান। তার বাড়ি চাঁদপুর। ঢাকার টঙ্গী, গাজীপুরায় তার নিজস্ব ৭ তলা ভবন রয়েছে। করোনাভাইরাস আতঙ্কে পুরো দেশ যখন আতঙ্কিত তখন নিজের বাড়ির ভাড়াটিয়াদের কিছুটা স্বস্তিতে রাখতে ৭ তলা বাড়ির ১৯টি ফ্লাটের সম্পূর্ণ একমাসের ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছেন এই কুয়েত প্রবাসী।

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ঢাকার শেখ শিউলি হাবিব নামের এক ভবন মালিক নিজের ভাড়াটিয়াদের চলতি মাসের ভাড়া মওকুফ করার ঘোষণা দেওয়ার পরপরই আরো বাড়িওয়ালারা এগিয়ে এসেছেন। হাজারিবাগ বেড়িবাধ এলাকায় বাড়িওয়ালা মুহিব রহমান তার বাড়ির ভাড়া মওকুফ করার পর ফেনীতে নিজামউদ্দিন পুলক নামে এক সৌদি প্রবাসী তার বাড়ির ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছেন।

এবার এগিয়ে এসেছেন টঙ্গী,গাজীপুরের আরেক উদার বাড়িওয়ালা আব্দুর রহমান। তিনি তার ১৯টি ফ্লাটের ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছেন। যদিও এ বিষয়ে তিনি নিজেকে প্রকাশ করতে রাজি হননি। কিন্তু তাকে দেখে অন্যান্য বাড়িওয়ালারা এই দু:সময়ে দেশবাসীর পাশে থাকার উৎসাহ পাবেন এমন আশ্বাসের পর তিনি জানান, সারা বিশ্বে যেভাবে করোনা ছড়িয়ে পড়েছে তাতে আমার বাংলাদেশের মানুষ খুবই উদ্বিগ্ন এবং আতঙ্কিত। দেশে যারা না থাকেন তারা দেশের প্রতি টান ভালোবাসা অনুভব করতে পারেন। বর্তমান এই আতঙ্কিত সময়ে দেশের সবাইকে খুব সতর্কতার সঙ্গে এগিয়ে যেতে হবে। না হলে একজনের কারণে বাকি দশজনের ভয়ানক ক্ষতি হয়ে যাবে। এই অবস্থায় সবাই যার যার অবস্থান থেকে সামর্থ্য অনুযায়ী সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলে সকলে মিলে এই করোনা দ্রুত প্রতিরোধ করা সম্ভব। যদি সম্ভব হয় দেশের অন্যান্য বাড়িওয়ালারা ভাড়া মওকুফ করে ভাড়াটিয়াদের এই আতঙ্ক থেকে কিছুটা মুক্তি আর স্বস্তি দিতে পারে বলে জানান আব্দুর রহমান।

অন্যান্য প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে আব্দুর রহমান জানান, আপনারা-আমরা যারা প্রবাসে অবস্থান করছি এ মূহূর্ত্বে দেশে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়াটা হবে আত্মঘাতি। কারণ আমার আপনার কারণে দেশের মানুষ, আমাদের পরিবারের সদস্যরা আক্রান্ত হবে। তাই পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত যে যে দেশেই থাকেন না কেন সেখানেই অবস্থান করুন।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top