ইউটিউবের সার্চ কিভাবে কাজ করে

শেয়ারবাজার ডেস্ক: অনেক ইউটিউবারের কাছে একপ্রকার রহস্যই থেকে গেছে ইউটিউবের সার্চ প্রক্রিয়াটি। হালে এ সম্পর্কে খোলাসা করে কথা বলেছে গুগল। শুধু তা-ই নয়, বিষয়টি নিয়ে আলাদা এক ওয়েবসাইট ‘হাউ ইউটিউব ওয়ার্কস’ও তৈরি করেছে তারা। বিস্তারিত আশরাফুল ইসলামের কাছে

গুগলের ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম ইউটিউবে সার্চ রেজাল্টে এগিয়ে থাকার চেষ্টা করেন সব ইউটিউবারই। আর এতে সফল হলে ভিডিওর ভিউ বেশি হয়। কিন্তু প্রশ্ন হলো, হাজারো ভিডিওর ভিড়ে কিভাবে সার্চ ফলাফলে এগিয়ে থাকা যাবে?

যদি জানা যায়, ইউটিউবের সার্চ অ্যালগরিদম কিভাবে কাজ করে, তাহলে কাজটা একটু সহজ হয় বৈকি!

প্রাসঙ্গিক ভিডিও
সার্চ প্রাসঙ্গিক ভিডিও নির্ধারণের সময় ইউটিউবের র‌্যাংকিং অ্যালগরিদম অনেক বিষয়ের ওপর কাজ করে। ধরুন, আপনি কোনো ভিডিও ইউটিউবে সার্চ করলেন, তখন সবার আগে ভিডিওর শিরোনাম, ট্যাগ ও বর্ণনায় যুক্ত করা টেক্সট কনটেন্ট যাচাই করে দেখবে ইউটিউবের নিউরাল নেটওয়ার্ক সিস্টেম। তারপর সার্চের কি-ওয়ার্ডের সঙ্গে মিল আছে এমন ভিডিওগুলো দেখাবে সবার প্রথমে।

এনগেজমেন্ট
দ্বিতীয় ধাপে ইউটিউবের অনুসন্ধান অ্যালগরিদম ব্যবহারকারীদের থেকে পাওয়া তথ্য গবেষণা করে। ইউটিউবের সার্চ রেজাল্ট একেক ব্যবহারকারীর জন্য এক এক রকম হতে পারে। অর্থাৎ কোন ব্যবহারকারী কোন ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিও সবচেয়ে বেশি দেখেন, কোন কি-ওয়ার্ড নিয়ে ভিডিও আগে সেই ব্যবহারকারী দেখছেন। সেই সব তথ্য আছে ইউটিউবের কাছে। অ্যালগরিদম সেই তথ্য যাচাই-বাছাই করে ব্যবহারকারীকে সেই অনুযায়ী ভিডিও সাজেশন করে থাকে সার্চ রেজাল্টে।

ভিডিও মানসম্মত কি না
কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের সব সময় মানসম্মত ভিডিও তৈরিতে উৎসাহ দিয়ে থাকে ইউটিউব। ভিডিওর মান যদি ভালো হয়, সেই ভিডিওটি সার্চ রেজাল্টের সবার ওপর দেখাবে। গুগলের পক্ষ থেকে এই সম্পর্কে বলা হয়েছে, ‘আমাদের অ্যালগরিদম কোন ভিডিও মানসম্মত তা যাচাই করতে পারে। অর্থাৎ ব্যবহারকারী যে কি-ওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করেছে সেই কি-ওয়ার্ড আছে এমন ভিডিওগুলো মুহূর্তের মধ্যেই গুগলের অ্যালগরিদম যাচাই করে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলে কোনটি মানসম্মত আর কোনটি মানসম্মত নয়। তারপর সে অনুযায়ী মানসম্মত ভিডিওটিকে সার্চ রেজাল্টের সবার ওপর দেখায়। তাই সার্চ রেজাল্টে ভিডিও দেখাতে হলে ভিডিওয়ের মান ঠিক রাখাটা জরুরি। সবচেয়ে ভালো হয় টাইটেলের সঙ্গে ভিডিও কনটেন্টের মিল রাখা, ৪কে বা এইচডিতে ভিডিও শুট করা এবং ভিডিওতে যথেষ্ট পরিমাণ তথ্য থাকা। যেন ব্যবহারকারী যে কি-ওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করে আপনার ভিডিওটিতে এসেছিল তা দেখে যেন নিরাশ না হন।

সাজেশন ভিডিও
ইউটিউবে ভিডিও দেখার সময় পাশে দেখবেন কিছু সাজেশন ভিডিও দেখা যায়। এ ছাড়া নেক্সট বাটনেও সাজেশন ভিডিও দেখিয়ে থাকে। কোন ভিডিও সাজেশনে দেখা তা মূলত সেই ব্যবহারকারীর কয়েকটি বিষয়ের ওপর নির্ভর করে। এসবের মধ্যে থাকে—ব্যবহারকারীর ভিডিও দেখা ও সার্চের ইতিহাস, কোন কোন চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করা আছে, লোকেশন, সময়, সাজেশন থাকা বিষয়টির ভিডিও কতজন দেখেছে প্রভৃতি।

চাইলে সাজেশন আসা কোনো ভিডিওতে যদি ব্যবহারকারী ‘not interested’ বাটনে ক্লিক করে, তাহলে সেই ধরনের ভিডিও সাজেশন দেখাবে না আর।

ইউটিউবে ভিডিও আপলোডের সময় এসব বিষয় মাথায় রাখলে সার্চ রেজাল্টে এগিয়ে থাকা যাবে।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

Top