শতভাগ দর বৃদ্ধিতে তথ্য প্রযুক্তি খাত

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক একচেঞ্জে (ডিএসই) সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে আইটি/তথ্য প্রযুক্তি খাতের ১০০ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে। আজ বৃহস্পতিবার এ খাতে থাকা ১০ কোম্পানির সবগুলোরই দাম বেড়েছে। এ খাতে শতভাগ কোম্পানির শেয়ার দর বৃদ্ধি পাওয়ায় শেষদিকে সূচকে ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে। বাজার বিশ্লেষণ করে এ তথ্য জানা গেছে।

এদিকে দরবৃদ্ধির তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে পেপার অ্যান্ড প্রিন্টিং খাত।  এ খাতের ৪টি কোম্পানির মধ্যে ৩টি কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে এবং ১টি কোম্পানির শেয়ার দর অপরিবর্তীত রয়েছে।

দাম বাড়ার তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছে মিউচুয়াল ফান্ড খাত। এ খাতের দর বেড়েছে ৮৬.৪৯ শতাংশ বা ৩২টি কোম্পানির। দর কমেছে ২ দশমিক ৭০ শতাংশ বা ১ কোম্পানির। অপরিবর্তীত রয়েছে ১০.৮১ শতাংশ বা ৪টি কোম্পনির।

তালিকায় চতুর্থ স্থানে রয়েছে খাদ্য ও আনুষঙ্গিক খাত। এ খাতের দর বেড়েছে ৭৬.৪৭ শতাংশ বা ১৩ কোম্পানির। অপরিবর্তীত রয়েছে ২৩.৫৩ শতাংশ বা ৪টি কোম্পানির।

এরপরেই রয়েছে সেবা ও আবাসন খাত। এ খাতের দর বেড়েছে ৭৫ শতাংশ বা ৩টি কোম্পানির। আর কমেছে ২৫ শতাংশ বা ১টি কোম্পানির।

দাম বাড়ার তালিকায় ষষ্ঠ স্থানে ওষুধ ও রসায়ন খাত। এ খাতে দর বেড়েছে ৬৮.৭৫ শতাংশ বা ২২টি কোম্পানির। কমেছে ২৫ শতাংশ বা ৮ কোম্পানির। অপরিবর্তীত রয়েছে ৬.২৫ শতাংশ বা ২ কোম্পানির।

এরপর রয়েছে প্রকৌশল খাত। এ খাতে দর বেড়েছে ৬৬.৬৭ শতাংশ বা ২৬টি কোম্পানির। কমেছে ২৩.০৮ শতাংশ বা ৯ কোম্পানির। অপরিবর্তীত রয়েছে ১০.২৬ শতাংশ বা ৪ কোম্পানির।

অষ্টম স্থানে রয়েছে চামড়া খাত। এ খাতে দর বেড়েছে ৬৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ বা ৪টি কোম্পানির। কমেছে ৩৩.৩৩ শতাংশ বা ২ কোম্পানির।

এরপর রয়েছে পেপার অ্যান্ড প্রিন্টিং খাত। এ খাতে দর বেড়েছে ৬৬.৬৭ শতাংশ বা ২টি কোম্পানির। অপরিবর্তীত রয়েছে ৩৩.৩৩ শতাংশ ১টি কোম্পানির।

এরপরেই রয়েছে আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাত। এ খাতে দর বেড়েছে ৬৩.৬৬ শতাংশ বা ১৪টি কোম্পানির। কমেছে ১৮.১৮ শতাংশ বা ৪ কোম্পানির। অপরিবর্তীত রয়েছে ১৮ দশমিক ১৮ শতাংশ বা ৪টি কোম্পানির।

তালিকায় একাদশ স্থানে রয়েছে সিরামিক খাত। এ খাতে দর বেড়েছে ৬০ শতাংশ বা ৩টি কোম্পানির। কমেছে ২০ শতাংশ বা ১ কোম্পানির। অপরিবর্তীত রয়েছে ২০ শতাংশ বা ১টি কোম্পানির।

তারপর রয়েছে বিবিধ খাত। এ খাতে দাম বেড়েছে ৫৮.৩৩ শতাংশ বা ৭ কোম্পানির। কমেছে ২৫ শতাংশ বা ৩ কোম্পানির। অপরিবর্তীত রয়েছে ১৬.৬৭ শতাংশ বা ২ কোম্পানির।

এরপর রয়েছে সিমেন্ট খাত। এ খাতে দর বেড়েছে ৫৭.১৪ শতাংশ বা ৪টি কোম্পানির। কমেছে ২৮.৫৭ শতাংশ ২ কোম্পানির। অপরিবর্তীত রয়েছে ১৪.২৯ শতাংশ বা ১টি কোম্পানির।

দাম বাড়ার তালিকায় ১৪তম স্থানে রয়েছে টেলিকমিউনেকশন খাত। এ খাতে দর বেড়েছে ৫০ শতাংশ বা ১টি কোম্পানির। কমেছে ৫০ শতাংশ বা ১ কোম্পানির।

এরপর রয়েছে ভ্রমণ ও অবকাশ খাত। এ খাতে দর বেড়েছে ৫০ শতাংশ বা ২টি কোম্পানির। কমেছে ৫০ শতাংশ বা ২ কোম্পানির।

১৬তম স্থানে রয়েছে জ্বালানি ও বিদ্যুৎখাত। এ খাতে দর বেড়েছে ৪৭.৩৭ শতাংশ বা ৯টি কোম্পানির। কমেছে ৩৬.৮৪ শতাংশ ৭ কোম্পানির। অপরিবর্তীত রয়েছে ১৫.৭৯ শতাংশ বা ৩টি কোম্পানির।

তারপর রয়েছে ব্যাংক খাত। এ খাতে দর বেড়েছে ৪৩.৩৩ শতাংশ বা ১৩টি কোম্পানির। কমেছে ২৬.৬৭ শতাংশ ৮ কোম্পানির। অপরিবর্তীত রয়েছে ৩০ শতাংশ বা ৯টি কোম্পানির।

১৮তম স্থানে রয়েছে বস্ত্র খাত। এ খাতে দর বেড়েছে ৩৮.৬০ শতাংশ বা ২২টি কোম্পানির। কমেছে ২৪.৫৬ শতাংশ ১৪ কোম্পানির। অপরিবর্তীত রয়েছে ৩৬.৮৪ শতাংশ বা ২১টি কোম্পানির।

তারপর রয়েছে পাট খাত। এ খাতে দর বেড়েছে ৩৩.৩৩ শতাংশ বা ১টি কোম্পানির। কমেছে ৬৬.৬৬ শতাংশ ৩ কোম্পানির।

তালিকার শেষে রয়েছে বীমা খাত। এ খাতে দর বেড়েছে ১২.৭৭ শতাংশ বা টি কোম্পানির। কমেছে ৮৭.২৩ শতাংশ ৪১ কোম্পানির।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

Top