নভেম্বরে ক্রিকেটে ফিরছেন সাকিব, অনিশ্চিত মাশরাফী

শেয়ারবজার ডেস্ক: সাকিব আল হাসানের ফেরার জন্য চাতক পাখির মতো প্রতীক্ষায় ক্রিকেট পিয়াসুরা। দেশের ক্রিকেটের নয়নমনির ফেরার সময় ঘনিয়ে আসছে। আর চার সপ্তাহও বাকি নেই নিষেধাজ্ঞার শেকল ভেঙে ফিরবেন সাকিব। শ্রীলঙ্কা সিরিজ আঁধারে ঢাকা পড়ায় ক’দিন আগেই যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের কাছে আবারো ফিরে গেছেন মিস্টার সেভেন্টি ফাইভ। যতটা জানা গেছে, এ মাসের শেষের দিকে দেশে ফিরবেন সাকিব। কোয়ারেন্টিন শেষে যোগ দেবেন নভেম্বরে ৫ থেকে ৬টি দল নিয়ে বিসিবি আয়োজিত কর্পোরেট টি-টোয়েন্টি লিগে।

এ বিষয়ে বিসিবি’র ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেন, নভেম্বরের মাঝামাঝিতে আমরা একটা টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট করবো। সাকিবের নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলে ওই আসরে অবশ্যই ফিরবে সে।

তবে, নভেম্বরে টি-টোয়েন্টির ওই আসরে সাকিবের ফেরার খবর নিশ্চিত হলেও, গেল মার্চ থেকে ক্রিকেটের বাইরে থাকা মাশরাফীর ব্যাপারে কোনো নিশ্চয়তা দিতে পারেননি আকরাম খান। কারণ করোনার মাঝে ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত অনুশীলনে সবাইকে দেখা গেলেও, অনুশীলনের দৃশ্যপটে নেই সাবেক অধিনায়ক মাশরাফী। স্বাভাবিকভাবেই ম্যাশের ফিটনেস বোর্ডের ভাবনায়। তবে টি-টোয়েন্টি আসরে নাকি খেলার ইচ্ছে আছে মাশরাফীরও!

আকরাম খান আরো বলেন, মাশরাফী খেলবে কিনা এটা নির্বাচক ও তার ব্যাপার। নির্বাচকরাই ওর ব্যাপারটা দেখবে।

এদিকে, সামনের সপ্তাহে জাতীয় দল ও এইচপি দলের ক্রিকেটারদেরকে নিয়ে তিন দলের একটি ওয়ানডে সিরিজ আয়োজনের পরিকল্পনা আছে বোর্ডের। বিসিবি’র এই শীর্ষ কর্তা জানালেন, সিরিজটিতে দিবারাত্রির ম্যাচ আয়োজনের কথা ভাবছে তারা।

এ বিষয়ে আকরাম খান বলেন, আমরা যে টুর্নামেন্ট করছি, সেটা এ মাসের ১০ তারিখের পর শুরু করছি ডে-নাইট ওয়ানডে টুর্নামেন্ট। সবগুলো ম্যাচ হবে মিরপুরে।

আগামী বছরের জানুয়ারিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে সমান তিনটি করে টেস্ট ও ওয়ানডে ছাড়াও, ২ টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচের সিরিজ খেলতে আসার কথা ওয়েষ্ট ইন্ডিজের। মূলত সেই সিরিজের জন্য ক্রিকেটারদেরকে এখনই প্রস্তুত করে রাখতে চায় বোর্ড।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

Top