আজ: শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১ইং, ৩১শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১লা শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১০ নভেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার |


পুনরায় আইপিও আবেদন করেছে কৃষিবিদ ফিড

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্তির মাধ্যমে অর্থ উত্তোলনের জন্য প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) বুক বিল্ডিং পদ্ধতি ব্যবহার করে ৩০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে কৃষিবিদ ফিড লিমিটেড। এজন্য নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কাছে পুনরায় আবেদন করেছে কোম্পানিটি।

এর আগে, কোম্পানি গত ২৮ অক্টোবর, ২০১৮ সালে কমিশনে আইপিও আবেদন জমা দিয়েছে। তবে, ২০২০ সালের ১২ আগস্ট কোভিড -১৯ উদ্বেগের বরাত দিয়ে কোম্পানি এই আবেদন প্রত্যাহার করে নিয়েছিল।

কৃষিবিদ ফিড লিমিটেড প্রাথমিকভাবে পোল্ট্রি, মাছ এবং গবাদি পশুদের জন্য বিভিন্ন প্রকারের ফিড উৎপাদন, বিক্রয় এবং বিতরণ করে। এছাড়া কোম্পানিটি বাংলাদেশ ও বিদেশে যে কোনও জায়গায় উৎপাদন, বিতরণ, রফতানি এবং আমদানি করে থাকে।

অন্যান্য অনেকের মতো বিশ্বব্যাপী কোভিড -১৯ মহামারীর কারণে, কৃষিবিদ ফিডের ব্যবসায় উল্লেখযোগ্যভাবে প্রভাবিত হয়েছে, এবং উৎপাদন ও সরবরাহকেও ধাক্কা লেগেছে। মহামারী তাদের ব্যবসায়কে আরও বিঘ্নিত করতে পারে এই ভয়ে কোম্পানি তার আইপিও আবেদন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

কৃষিবিদ ফিডের ফিন্যান্স ডিরেক্টর মোঃ সিফাত আহমেদ চৌধুরী বলেছেন, মহামারীর আমাদের ব্যবসাকে মারাত্মক ধাক্কা দিয়েছে। তবে পরিস্থিতি ধীরে ধীরে উন্নতি করছে।

তিনি বলেছিলেন, আমাদের কোম্পানি ইন্ডাস্ট্রির জন্য গুণগতমানের ফিড তৈরি করে। তাই পুনরুদ্ধারের মাধ্যমে ব্যবসায় উন্নতির লক্ষণ দেখাচ্ছে। আমরা স্থানীয় ক্রেতাদের কাছ থেকে কিছু ক্রয়ের অর্ডার পেয়েছি।

কৃষিবিদ ফিড বিল্ডিং এবং অন্যান্য নির্মাণের জন্য ৭ কোটি টাকা, প্লান্ট ও যন্ত্রপাতিগুলোর জন্য ৪.০৯ কোটি টাকা, ব্যাংক ঋণ পরিশোধে ১০ কোটি টাকা, ডিজেল জেনারেটরের জন্য ২.৮৫ কোটি টাকা এবং ডেলিভারি ভ্যানের জন্য ৪.০৭ কোটি টাকা ব্যবহার করতে চায়।

গত অর্থবছরের সময়, কৃষিবিড ফিডের সক্ষমতা ছিল প্রায় ৩৯০০০ এমটি ফিড। তবে এটি ভলিউমের ৫৫.৮৫% ব্যবহার করতে পারে।

২০২২-২৩ অর্থবছরে, কোম্পানির আনুমানিক ধারণক্ষমতা প্রায় ৪৭০০০ মে.টন হবে, এবং এটি ভলিউমের ৮২.২৫% ব্যবহার করবে বলে আশাবাদী।

কোম্পানির অনুমোদিত মূলধন ৭৫ কোটি টাকা। এর প্রি-আইপিও পরিশোধিত মূলধন ২৭.৫০ কোটি এবং আইপিও-পরবর্তী পরিশোধিত মূলধন হবে ৫৭.৫০ কোটি টাকা।

কোম্পানির নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২০ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত এর নিট মুনাফা হয়েছে ৪.৭৮ কোটি টাকা। আগের বছরের একই সময়ের ছিল ৫.৪১ কোটি টাকা। আগের বছরের একই সময়ে এর বিক্রয় আয় ছিল ৮৪.৮৭ কোটি টাকা, আগের বছর ছিল ৮৯.৯২ কোটি টাকা।

একই সময়ে, এর শেয়ার প্রতি আয় ছিল ১.৭৪ টাকা।

২০১০ সালের নভেম্বর মাসে অন্তর্ভুক্ত, কৃষিবিদ ফিড লিমিটেড ১ জানুয়ারী, ২০১২ তে কাজ শুরু করে।

 

 

শেয়ারবাজার নিউজ/এন

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.