আজ: বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১ইং, ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, শনিবার |


উত্থান-পতনে সপ্তাহ পার শেয়ারবাজারের: বাজার মূলধন কমেছে ৫ হাজার কোটি টাকা

শেয়ারবাজার ডেস্ক : গত সপ্তাহের প্রথম তিন কার্যদিবস পতন আর শেষের দুই কার্যদিবস উত্থান হয়েছে শেয়ারবাজারে। উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে সপ্তাহটিতে সব সূচক কমেছে। সেই সাথে কমেছে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর এবং টাকার পরিমাণে লেনদেনও। গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৪ হাজার ৭০০ কোটি টাকা মূলধন কমেছে।

জানা গেছে, সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে ডিএসইতে বাজার মূলধন ছিল ৪ লাখ ৮৪ হাজার ১২ কোটি ৬৯ লাখ ৬৫ হাজার টাকায়। আর সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে বাজার মূলধন দাঁড়ায় ৪ লাখ ৭৯ হাজার ৩০৪ কোটি ৪২ লাখ ৩৬ হাজার টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর বিনিয়োগকারীরা ৪ হাজার ৭০৮ কোটি ২২ লাখ ৩৯ হাজার টাকা বাজার মূলধন কমেছে।

গত সপ্তাহে পাঁচ কার্যদিবসে ডিএসই ৬ হাজার ১৬ কোটি ২৯ লাখ ৬৩ হাজার ৬০৫ টাকার লেনদেন হয়েছে। যা আগের সপ্তাহ থেকে ২ হাজার ২৬৩ কোটি ৮৭ লাখ ২১ হাজার ১০৫ টাকা বা ৩৭.৬৩ শতাংশ কম হয়েছে। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৬ হাজার ১৬ কোটি ২৯ লাখ ৬৩ হাজার ৬০৫ টাকার।

ডিএসইতে গত সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছে ৭৫০ কোটি ৪৮ লাখ ৪৮ হাজার ৫০০ টাকার। আগের সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ২০৩ কোটি ২৫ লাখ ৯২ হাজার ৭২১ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে গড় লেনদেন ৪৫২ কোটি ৭৭৭ লাখ ৪৪ হাজার ২২১ টাকা কম হয়েছে।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৭৬.৬৮ পয়েন্ট বা ১.৩৪ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৬৪৭.৬৭ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ২০.০৯ পয়েন্ট বা ১.৫৭ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৭.৪৭ পয়েন্ট বা ০.৮০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১২৬১.৩০ পয়েন্টে এবং ২১৭৩.৭৩ পয়েন্টে।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৩৬৫টি প্রতিষ্ঠান শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ৫৭টির বা ১৫.৬১ শতাংশের, কমেছে ২১৯টির বা ৬০ শতাংশের এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৮৯টির বা ২৪.৩৯ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বিদায়ী সপ্তাহে টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ২৮৯ কোটি ৯০ লাখ ১৫ হাজার ৯৭৪ টাকার। আর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ২৬৬ কোটি ৫০ লাখ ৮৪ হাজার ৬৮৮ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে লেনদেন ২৩ কোটি ৩৯ লাখ ৩৫ হাজার ২৮৬ টাকাবা ৮.৭৮ শতাংশ বেড়েছে।

সপ্তাহটিতে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩৪৪.২৫ পয়েন্ট বা ২.০৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৩৩১.১৪ পয়েন্টে। সিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে সিএসসিএক্স ২১২.২৮ পয়েন্ট বা ২.১০ শতাংশ, সিএসই-৩০ সূচক ৩৩৪.৯৩ পয়েন্ট বা ২.৫৩ শতাংশ, সিএসই-৫০ সূচক ১৮.৯৯ পয়েন্ট বা ১.৪৯ শতাংশ এবং সিএসআই ২১.৭৪ পয়েন্ট বা ২.০৯ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ৯ হাজার ৮৫৩.৬৮ পয়েন্টে, ১২ হাজার ৮৭৩.৪২ পয়েন্টে, ১ হাজার ২৫৬.৫৫ পয়েন্টে এবং ১ হাজার ১৯.৭৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে ২৯৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ৫২টির বা ১৭.৬৩ শতাংশের দর বেড়েছে, ১৮৩টির বা ৬২.০৩ শতাংশের কমেছে এবং ৬০টির বা ২০.৩৪ শতাংশের দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.