আজ: মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১ইং, ১১:০৩ পূর্বাহ্ন, ২৫ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সর্বশেষ আপডেট:

২০ ফেব্রুয়ারী ২০২১, শনিবার |

সপ্তাহজুড়ে সূচকের পতন শেয়ারবাজারে: লেনদেনে ডিএসই-সিএসইতে মিশ্র অবস্থা

শেয়ারবাজার ডেস্ক : গত সপ্তাহে পতনের মধ্য দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে দেশের উভয় শেয়ারবাজারের। সপ্তাহে শেয়ারবাজারের প্রধান প্রধান সূচক কমেছে। গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সূচক কমলেও টাকার পরিমাণে লেনদেন বেড়েছে। আর চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকের ও লেনদেন উভয়ই কমেছে। গত সপ্তাহে ডিএসইতে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট দর বাড়লেও সিএসইতে কমেছে। গত সপ্তাহে ডিএসইর বাজার মূলধন কমেছে ৪ হাজার কোটি টাকা।

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে ডিএসইতে বাজার মূলধন ছিল ৪ লাখ ৬৯ হাজার ৭১০ কোটি ৭৯ লাখ ১৭ হাজার টাকায়। আর সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে বাজার মূলধন দাঁড়ায় ৪ লাখ ৬৫ হাজার ৬৫৮ কোটি ২৮ লাখ টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ৪ হাজার ৫২ কোটি ৫১ লাখ ১৭ হাজার টাকা বাজার মূলধন কমেছে।

গত সপ্তাহে পাঁচ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৪ হাজার ৪৩৭ কোটি ৬৬ লাখ ৯৭ হাজার ২৫৭ টাকার লেনদেন হয়েছে। যা আগের সপ্তাহ থেকে ৩৫১ কোটি ৫৪ লাখ ৩৩ হাজার ৭৭ টাকা বা ৮.৬০ শতাংশ বেশি হয়েছে। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৪ হাজার ৮৬ কোটি ১২ লাখ ৬৪ হাজার ১৮০ টাকার।

ডিএসইতে গত সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছে ৮৮৭ কোটি ৫৩ লাখ ৩৯ হাজার ৪৫১ টাকার। আগের সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছিল ৮১৭ কোটি ২২ লাখ ৫২ হাজার ৮৩৬ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে গড় লেনদেন ৭০ কোটি ৩০ লাখ ৮৬ হাজার ৬১৫ টাকা বেশি হয়েছে।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৯.০৩ পয়েন্ট বা ০.১৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৪৭৫.৯৯ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ৫.১২ পয়েন্ট বা ০.২৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২১০৫.৫৮ পয়েন্টে। তবে শরিয়াহ সূচক ৬.১৬ পয়েন্ট বা ০.৫০ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২৪২.৪৯ পয়েন্টে।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৩৬৬টি প্রতিষ্ঠান শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ১২৭টির বা ৩৪.৭০ শতাংশের, কমেছে ১২২টির বা ৩৩.৩৩ শতাংশের এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১১৭টির বা ৩১.৯৭ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গত সপ্তাহে টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ১৬৯ কোটি ৪৫ লাখ ২১ হাজার ৫৫৬ টাকার। আর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ২৪৭ কোটি ৪৯ লাখ ৮৪ হাজার ১৯২ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে লেনদেন ৭৮ কোটি ৪ লাখ ৬৩ হাজার ১৩৬ টাকা কমছে।

সপ্তাহটিতে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৬২.৭১ পয়েন্ট বা ০.৩৯ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৮২১.২৬ পয়েন্টে। সিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে সিএসসিএক্স ৪০.৭০ পয়েন্ট বা ০.৪২ শতাংশ, সিএসই-৩০ সূচক ১৫০.৫২ পয়েন্ট বা ১.২১ শতাংশ এবং সিএসই-৫০ সূচক ০.৪২ পয়েন্ট বা ০.০৩ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ৯ হাজার ৫৪৪.৩৭ পয়েন্টে, ১২ হাজার ২৬৯.২৯ পয়েন্টে এবং ১ হাজার ২১৭.৯১ পয়েন্টে। অপর সূচক সিএসআই ৬.২২ পয়েন্ট বা ০.৬৩ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৯২.৭৩ পয়েন্টে।

সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে ২৯৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ৯০টির বা ৩০.৫১ শতাংশের দর বেড়েছে, ১৩০টির বা ৪৪.০৭ শতাংশের কমেছে এবং ৭৫টির বা ২.৪২ শতাংশের দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.