আজ: বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১ইং, ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৫ মার্চ ২০২১, শুক্রবার |



kidarkar

বাজারে বিশ্বমানের গাড়ির বডি তৈরী করার লক্ষ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু ইফাদ অটোসের

শেয়ারবাজার ডেস্ক:

বিগত কয়েক বছরে বাংলাদেশে ভারী যানবাহনের ক্ষেত্রে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন সাধিত হয়েছে। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বেড়েছে মানুষের ক্রয়ের ক্ষমতা। মানুষ এখন আরামদায়ক ভ্রমণ করতে চায়। ভালো মানের বাসের চাহিদা থাকা সত্ত্বেও আমদানী ব্যয়ের কারণে পরিবহন মালিকগণ খুব বেশী গাড়ি রাস্তায় চালাতে পারছিলেন না। আমদানী বাবদ প্রতি বছর বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা ব্যয় হচ্ছে। বিষয়টি বিবেচনায় রেখে ইফাদ অটোস লিমিটেড এক দু:সাহসিক কাজে হাত দিয়েছে। এতোদিনে যা ছিলো স্বপ্ন, আজ তা বাস্তবে রুপ নিয়েছে। এখন থেকে এই কারখানায় তৈরী হবে আধুনিক ও বিশ্বমানের এসি এবং নন-এসি বাস। এতে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয়ের পাশাপাশি দেশে শিল্পায়ণ বৃদ্ধি ও কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে।

ইফাদ গ্রুপের মাননীয় চেয়ারম্যান জানাব ইফতেখার আহমেদ টিপু সাহেবের বক্তব্য-

আজকের অনুষ্ঠানে আগত সম্মানিত প্রধান অতিথি- গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় শিল্পমন্ত্রী জনাব নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন এমপি, সম্মানিত বিশেষ অতিথি মাননীয় দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী জনাব ডাক্তার মো: এনামুর রহমান এমপি, সম্মানিত বিশেষ অতিথি ঢাকা-২০ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব জনাব বেনজির আহমেদ এমপি, বাংলাদেশ ট্রেড এন্ড ট্যারিফ কমিশনের মাননীয় চেয়ারম্যান জনাব মুন্সী শাহাবুদ্দিন আহমেদ, অর্থলগ্নি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাবৃন্দ, ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ, মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের নেতা-কর্মিবৃন্দ, ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ- আসসালামুআলাইকুম।

আজ এই বিশেষ দিনে ইফাদ অটোস লিমিটেডের আহবানে এখানে সমবেত হওয়ায় আমাদের প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। নি:সন্দেহে আজ একটি স্মরনীয় মূহুর্ত। আজ আমরা বাংলাদেশের বাজারে বিশ্বমানের গাড়ির বডি তৈরী করার লক্ষ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করছি।

আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শি চিন্তধারায় ২০২০ সালকে “লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং বর্ষ” হিসেবে ঘোষণা করেছেন। এটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অকল্পনীয় বৈপ্লবিক চিন্তাধারা। অলটারনেটিভ এক্সপোর্ট মার্কেট হিসেবে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং-এর সম্ভাবনা অপরিশীম। গ্লোবালি যাহা ৭ ট্রিলিয়ন ইউএস ডলার-এর অধিক। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের সাথে তাল মিলিয়ে ইফাদ গ্রুপ অটোমোবাইলের কম্পোনেন্ট ম্যানুফ্যাকচারিং-এর লক্ষ্যে চট্টগ্রামের মীরেরসরাইতে বঙ্গবন্ধু ইকোনমিক জোনে ৩০ একর জমির আবেদন করেছে। যেখানে আমরা অটোমোবাইলের হাব তৈরীর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। যা অদূর ভবিষ্যতে দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রপ্তানীর পরিকল্পনা রয়েছে।

মাননীয় শিল্পমন্ত্রী, আপনার দূরদর্শি নেতৃত্বে শিল্প মন্ত্রণালয় এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের শিল্পায়ন বৃদ্ধিতে আপনি নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। কিন্তু কিছু বাধা-বিপত্তির কারনে শিল্পের স্থানীয়করণ সেভাবে সম্ভব হচ্ছে না। একজন ব্যবসায়ী হিসেবে অনুরোধ করবো- এ সব বাধা দূর করলে আমরা আমদানী নির্ভর থেকে বিদেশে রপ্তানী করতে সক্ষম হবো।

গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ের কারনে তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ কারনে বাংলাদেশে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বাসের চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমি বিশ্বাস করি- আমাদের ব্যবসার সহযোগি অর্থলগ্নিকারী প্রতিষ্ঠানগুলো অর্ধেক মূল্যে বাংলাদেশের তৈরী বিশ্বমানের এসি বাস আমাদের মালিক ভাইদের সহজ কিস্তিতে প্রদান করতে পারবো।

চার বছর আগে এই কারখানায় বাস ও ট্রাকের সংযোজন শুরু হয়েছিলো। এবার এখানেই তৈরী হবে অত্যাধুনিক এসি, নন-এসি বাস ও ট্রাকের কেবিন। যেহেতু এই কারখানায় বিভিন্ন মডেলের বডি তৈরী করা হবে, তাই উৎপাদন খরচ আমদানীকৃত গাড়ির চেয়ে কম হবে। এর সুবিধা বাস মালিক ও যাত্রীগণই ভোগ করবেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য আপনাদের সকলকে আবারও ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.