আজ: বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১ইং, ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৯ এপ্রিল ২০২১, শুক্রবার |


ভ্যাট অফিস খোলা, দেওয়া যাবে রিটার্ন

শেয়ারবাজার ডেস্ক: করোনা সংক্রমণের মধ্যে সারাদেশে ভ্যাট অফিস খোলা রেখেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। যেসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এখনও মাসিক ভ্যাট রিটার্ন জমা দেয়নি, সরাসরি আফিসে গিয়ে জমা দিতে পারবে তারা। বৃহস্পতিবার এনবিআর এ বিষয়ে আদেশ জারি করেছে।

এনবিআর বলেছে, যথাসময়ের মধ্যে মাসিক ভ্যাট রিটার্ন জমা না দিলে প্রচলিত আইনে জরিমানা করা হবে। সব ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের নিয়মিত মাসিক ভ্যাট রিটার্ন জমা দেয়া বাধ্যতামূলক। প্রত্যেক মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে রিটার্ন জমা দিতে হয়।

নির্ধারিত সময়ে তা দাখিল না করলে জরিমানা দিতে হয়। জরিমানার পরিমাণ মোট ভ্যাটের অতিরিক্ত ২ শতাংশ। সারাদেশে বর্তমানে তিন শতাধিক ভ্যাট অফিস আছে,যারা সরাসরি আদায়ের সঙ্গে জড়িত। এনবিআর মাঠ পর্যায়ের সব ভ্যাট অফিস চালু রাখতে নির্দেশ দিয়েছে।

এনবিআর বছরে যে পরিমাণ রাজস্ব আহরণ করে তার ৩৯ শতাংশ আসে ভ্যাট থেকে। বাকি রাজস্ব আদায় হয় আয়কর এবং আমদানি শুল্ক থেকে। মাসিক ভ্যাট রিটার্নের ভিত্তিতে ভ্যাট আদায় করে এনবিআর। এ জন্য আইনে রিটার্ন জমা দেয়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মাসিক বিক্রি বা লেনদেনের তথ্য উল্লেখ করা হয়।

এখন দুইভাবে ভ্যাট রিটার্ন জমা দেয়া যায়। ঘরে বসে অনলাইনে এবং সরাসরি ভ্যাট আফিসে গিয়ে দাখিলের সুযোগ আছে। তবে এখনও বেশির ভাগ ব্যবসায়ী সনাতনী প্রথায় জমা দেন।

বর্তমানে অনলাইনে ভ্যাট নিবন্ধন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা প্রায় ১ লাখ ৭৫ হাজার। তাদের মধ্যে নিয়মিত রিটার্ন জমা দেয় এমন প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা প্রায় ৩৬ হাজার।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.