আজ: রবিবার, ১৩ জুন ২০২১ইং, ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১লা জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২৫ এপ্রিল ২০২১, রবিবার |


kidarkar

করোনার আইপিএলের খবর প্রচার করবে না নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

স্পোর্টস ডেস্ক: করোনা মহামারির দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় ভারতের নাকাল অবস্থা। প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে রোগীর সংখ্যা, বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। শ্মশানে দিন-রাত জ্বলছে চিতা। হাসপাতালে শয্যার সংকট, অক্সিজেন সংকটসহ নানা সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করছে। এর মধ্যেই ভারতে চলছে ক্রিকেট উৎসব। জৈব-সুরক্ষা বলয় তৈরি করে আয়োজন করা হয়েছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের ১৪তম আসর।

বিভিন্ন হোটেল, স্টেডিয়ামজুড়ে জৈব-সুরক্ষা বলয়। তাতে নতুন কোনো আইসোলেশনও গড়া সম্ভব হচ্ছে না। হাসপাতালে বেড খালি না থাকায় রোগীদের ভর্তি করাতে পারছেন না স্বজনেরা। এমন করুণ পরিস্থিতি আইপিএলের খবর প্রচার না করার ঘোষণা দিয়েছে দেশটির অন্যতম শীর্ষ গণমাধ্যম নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। আজ রোববার নিজেদের সম্পাদকীয় পাতায় আইপিএলের খবর প্রচার না করার কথা জানিয়েছেন মাধ্যমটি। বিষয়টি এক টুইট বার্তায় নিশ্চিত করেছে নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

সম্পাদকীয় পাতায় গণমাধ্যমটি লিখেছে, ‘ভারতে করোনা মহামারির সবচেয়ে খারাপ পর্ব চলছে। কয়েকশ মানুষ তাদের জীবন রক্ষার জন্য লড়াই করে যাচ্ছে। এই বিপর্যয় সামাল দেওয়া চ্যালেঞ্জিং হয়ে উঠেছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় প্রতিদিন করোনায় আক্রান্তের খবর দিয়ে যাচ্ছে। অক্সিজেনের অভাব এবং ওষুধের ঘাটতি দেখা যাচ্ছে। হাসপাতালগুলো শয্যার অভাবে নতুন রোগী ভর্তি করাতে পারছে না। এমন মর্মান্তিক সময়ে ভারতে ক্রিকেট উৎসব চলছে। জৈব-সুরক্ষা বলয় তৈরি করে খেলা চালানো হচ্ছে। কিন্তু সমস্যাটি খেলা নিয়ে নয়, সমস্যা ক্রিকেট খেলার সময়টা নিয়ে। এমন পরিস্থিতিতে আজ রোববার থেকে আইপিএলের খবর প্রচার থেকে বিরত থাকবে নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। এটি আমাদের তরফ থেকে মানুষের জীবন ও মৃত্যুর বিষয়গুলোতে মনোযোগ দেওয়ার একটি ছোট প্রয়াস।’

নভেল করোনাভাইরাসের প্রকোপে ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছে ভারত। একদিনে শনাক্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়িয়ে যাচ্ছে আগের দিনের সংখ্যাকে। ফলে ভঙ্গুর হয়ে পড়ছে ভারতের চিকিৎসাব্যবস্থা। দেখা দিয়েছে তীব্র মাত্রায় অক্সিজেন সংকট। অক্সিজেন সংকটে দেশটিতে অনেক রোগীর মৃত্যু হচ্ছে বলেও উঠে এসেছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে।

গত তিন দিনে ভারতে ১০ লাখের বেশি মানুষের করোনা ধরা পড়েছে এবং সাড়ে সাত হাজারের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শনিবার দেশজুড়ে তিন লাখ ৪৯ হাজারের বেশি মানুষের করোনা শনাক্ত হয় এবং এদিন করোনায় মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ৭৬০ জনের। এর মধ্য দিয়ে টানা চতুর্থ দিন ভারতে তিন লাখের বেশি মানুষের করোনা শনাক্ত হলো আর মৃতের সংখ্যা দুই হাজারের বেশি রয়েছে টানা পাঁচদিনের মতো

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

kidarkar