আজ: শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১ইং, ১লা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১লা শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০৩ মে ২০২১, সোমবার |


বড় ব্যবধানে হারল বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক: পাল্লেকেলেতে গতকাল থেকেই হার চোখ রাঙাচ্ছিল বাংলাদেশকে। আজ সোমবার সকালে পাঁচ উইকেট হাতে নিয়ে ব্যাট করতে নেমে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি বাংলাদেশ। প্রায় পৌনে দুই ঘণ্টার মধ্যেই ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংস গুটিয়ে নেয় মুমিনুলরা।

তাই ম্যাচে ২০৯ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ। এদিন অবশ্য কিছুটা আশা ছিল লিটন দাসকে নিয়ে। কিন্তু তিনি দিনের তৃতীয় ওভারেই এলবিডাব্লিউ হয়ে ফিরে যান। তার আগে করেন ৪৬ বল খেলে করেন ১৭ রান। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ সংগ্রহ মুশফিকুর রহিমের। তিনি ৪০ রান করেন ৬৩ বল খেলে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মেহেদী হাসান মিরাজের। তিনি ৮৬ বল খেলে ৩৯ রান করে শেষ দিনে কিছুটা লড়াই করেন। কিন্তু অন্য প্রান্ত থেকে সহযোগিতা না পাওয়ায় পারেননি দলকে এগিয়ে নিতে।

এ ছাড়া সাইফ ৩৪, মুমিনুল ৩২, শান্ত ২৬ ও তামিম ২৪ রান করে সাজঘরে ফিরেন।

অবশ্য টেস্ট ইতিহাসে ৪৩৭ বা তার চেয়ে বেশি রানের লক্ষ্য কখনোই স্পর্শ করতে পারেনি বাংলাদেশ। তাই পাল্লেকেলেতে এই লক্ষ্য টপকাতে পারলে রেকর্ড গড়তো বাংলাদেশ।

টেস্ট ইতিহাসে এত রান তাড়া করে জয়ের কোনো নজির নেই। বাংলাদেশ তো কখনও ২১৫ রানের বেশি তাড়া করেও জিততে পারেনি। দেশের বাইরে চতুর্থ ইনিংসে তাদের ২৮২ রানের বেশি নেই।

এর আগে বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে ব্যাট করে ২৫১ রানে অলআউট হয়েছিল। স্বাগতিকরা প্রথম ইনিংসে ৪৯৩ রান করেছিল। তারা দ্বিতীয় ইনিংসে ১৯৪ রান করে। তাই বাংলাদশকে ৪৩৭ রানের লক্ষ্য দেয় তারা।

এই হারে ১-০ ব্যবধানে সিরিজ হেরেছে বাংলাদেশ। এর আগে প্রথম টেস্ট ড্র হয়েছিল। আবশ্য সে ম্যাচে দারুণ কিছু সাফল্য পেয়েছিলেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস : ১৫৯.২ ওভারে ৪৯৩/৭ (ডি.) (করুনারত্নে ১১৮, থিরিমান্নে ১৪০, ফার্নান্দো ৮১, ডিকভেলা ৭৭*, মেন্ডিস ৩৩; তাসকিন ৩৪.২-৭-১২৭-৪, মিরাজ ৩৬-৭-১১৮-১, শরিফুল ২৯-৬-৯১-১, তাইজুল ৩৮-৭-৮৩-১)।

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস : ৮৩ ওভারে ২৫১ (তামিম ৯২, সাইফ ২৫, শান্ত ০, মুমিনুল ৪৯, মুশফিক ৪০, লিটন ৮, মিরাজ ১৬, তাইজুল ৯, তাসকিন ০, শরিফুল ০, আবু জায়েদ ; লাকমল ১০-০-৩০-২, বিশ্ব ৭-১-১৯-০, ম্যাথিউস ২-০-৭-০, মেন্ডিস ৩১-৭-৮৬-২, জয়াবিক্রমা ৩২-৭-৯২-৬, ধনাঞ্জয়া ১ -০-৬-০)।

শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় ইনিংস: ৪২.২ ওভারে ১৯৪/৯ (ডি.) (করুনারত্নে ৬৬, ম্যাথিউস ১২, ধনাঞ্জয়া ৪১, নিসানকা ২৪, ডিকভেলা ২৪, মেন্ডিস ৮, লাকমল ১২, জয়াবিক্রমা ৩*; মিরাজ ১৪-৩-৬৬-২, শরিফুল ১-০-৮-০, তাইজুল ১৯.২-২-৭২-৫, তাসকিন ৪-০-২৬-১, সাইফ ৪-০-২২-১)।

বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংস : (লক্ষ্য ৪৩৭) ৭১ ওভারে ২২৭/১০ (তামিম ২৪, সাইফ ৩৪, শান্ত ২৬, মুমিনুল ৩২, মুশফিক ৪০, লিটন ১৭*, মিরাজ ৩৯*; লাকমল ৪-২-১৪-০, মেন্ডিস ২৮-০-১০৩-৪, জয়াবিক্রমা ৩২-৫-৮৬-৫, ধনাঞ্জয়া ৭-০-১৯-১)।

ফল : বাংলাদেশের ২০৯ রানে হার।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.