শুদ্ধাচার ও দুর্নীতি প্রতিরোধ প্রচারে সিএসআর ব্যয়

bangladeshbankশেয়ারবাজার রিপোর্ট: শুদ্ধাচার ও দুর্নীতি প্রতিরোধ কার্যক্রমের প্রচারণায় ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ব্যয় কর্পোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতা (সিএসআর) কর্মসূচির মধ্যে অর্ন্তভুক্ত হবে।

একইসঙ্গে অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান এ ধরনের সচেতনতামূলক কাজের প্রচারণায় আর্থিক সহায়তা দিলেও তা এ খাতে ব্যয় হয়েছে বলে ধরতে হবে।

মঙ্গলবার (২৩ জুন) বাংলাদেশ ব্যাংকের গ্রিন ব্যাংকিং অ্যান্ড সিএসআর ডিপার্টমেন্টের মহাব্যবস্থাপক মনোজ কুমার বিশ্বাস স্বাক্ষরিত একটি প্রজ্ঞাপন সব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে কার্যকর করতে প্রধান নির্বাহীদের পাঠানো হয়েছে।

এতে গত ১০ জুনের প্রজ্ঞাপনপত্রের মাধ্যমে জারি করা ফরম্যাটের ‘অন্যান্য’ খাতে এ ব্যয়কে প্রদর্শনের জন্য ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে বলা হয়েছে।

২০০৮ সালে করা বাংলাদেশ ব্যাংকের নীতিমালা অনুযায়ী, ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে তার সিএসএর কার্যক্রমের জন্য বরাদ্দ করা অর্থের ৩০ শতাংশ শিক্ষাখাতে এবং ২০ শতাংশ স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা খাতে ব্যয় করতে হবে।

বাকি অর্থ তাৎক্ষণিক দুর্যোগ মোকাবেলা, পরিবেশবান্ধব টেকসই জীবণশৈলী, শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতির বিকাশ, খেলাধুলা ও সুবিধাবঞ্চিতদের বিনোদন, অগ্নি নির্বাপনী সংস্থার মতো জীবন রক্ষাকারী সংস্থার প্রযুক্তির উন্নয়নসহ নির্দিষ্ট কিছু খাতে ব্যয় করা যাবে। এসবের সঙ্গে এখন যুক্ত হলো শুদ্ধাচার ও দুর্নীতি প্রতিরোধ কার্যক্রমে প্রচারের ব্যয়।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/অ/মু

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top