আজ: শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১ইং, ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১২ জুলাই ২০২১, সোমবার |



kidarkar

ভারতে ভয়াবহ বজ্রপাতে নিহত ৬৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতে তীব্র বৃষ্টিপাতের মধ্যে ভয়াবহ বজ্রপাতে ৬৮ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে নারী ও শিশুও রয়েছে। রোববার (১১ জুলাই) দেশটির উত্তরপ্রদেশ, রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে তীব্র বৃষ্টিপাতের মাঝে বজ্রপাতে এসব প্রাণহানির ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

এছাড়া বজ্রপাতে গুরুতর আহত হয়েছেন ১৭ জন। এ ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সংবাদমাধ্যমটি বলছে, রোববার বজ্রপাতে উত্তরপ্রদেশে নিহত হয়েছেন মোট ৪১ জন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি নিহতের ঘটনা ঘটেছে রাজ্যটির প্রায়াগরাজ জেলায়। সেখানে ১৪ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া ফিরোজাবাদ জেলায় নিহত হয়েছেন তিন জন।

টানা কয়েকদিন ধরে ব্যাপক গরমের পরে রোববার বৃষ্টি শুরু হলে স্বাভাবিক ভাবেই মানুষ খুশি হয়ে ওঠেন। তবে তখন কেউ ভাবতেও পারেননি যে, সেই বৃষ্টির সঙ্গী বজ্রপাত এমন বিপর্যয় ডেকে আনবে। ফিরোজাবাদের তিনটি গ্রামে বজ্রপাতে প্রাণ হারান তিনজন।
এছাড়া রাজ্যটির শিকোহাবাদের নাগলা উমর গ্রামে দু’জন কৃষক মাঠে কাজ করছিলেন, এসময় হঠাৎ করে বৃষ্টি আসায় তারা একটি নিমগাছের নিচে আশ্রয় নেন। একপর্যায়ে সরসারি নিম গাছে বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই ওই দু’জনের মৃত্যু হয়।

অপর একটি গ্রামেও অমর সিং নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়। শুধু মানুষ না, বজ্রপাতে মারা গেছে গরু-ছাগলও। বৃষ্টির সময় হওয়া বজ্রপাতের কারণে মাঠে থাকা ৪২টি ছাগল ও একটি গরুর মৃত্যু হয়।

এদিকে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজ জানিয়েছে, রোববার বজ্রপাতে দেশটির রাজস্থান রাজ্যে কমপক্ষে ২০ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে ৭ জন শিশুও রয়েছে। এর মধ্যে রাজ্যটির রাজধানী জয়পুরে একটি ওয়াচটাওয়ারে সেলফি তুলতে গিয়ে ১১ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া মধ্যপ্রদেশে বজ্রপাতে সাত জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমগুলো।

রাজস্থানে নিহতদের মধ্যে ১১ জন জয়পুর, চার জন কোটা, তিন জন ঢোলপুর, এক জন ঝালওয়ার ও এক জন বারানের বাসিন্দা। জয়পুরের আমের এলাকায় একটি ওয়াচটাওয়ারে ৪০ মিনিটের মধ্যে পর পর দু’বার বজ্রপাতে ১১ জনের মৃত্যু হয়। তারা সেখানে সেলফি তুলতে উঠেছিলেন বলে জানা গেছে। এছাড়া আহতদের উদ্ধার করে জয়পুরের সওয়াই মানসিং হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে মধ্যপ্রদেশে বজ্রাঘাতে প্রাণহানি হয়েছে ৭ জনের। তার মধ্যে দু’জন শেওপুর, দু’জন গোয়ালিয়র, একজন করে শিবপুরি, অনুপপুর, বেতুলের একজন করে বাসিন্দা রয়েছেন।

এ ঘটনায় শোক প্রকাশের পাশাপাশি মৃতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ বাবদ ৫ লাখ টাকা করে দেওয়ার ঘোষণা করেছেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত।

এছাড়া এই ঘটনায় শোকপ্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান তিনি।

টুইট বার্তায় মোদি বলেন, ‘রাজস্থানের কিছু জায়গায় বজ্রপাতে প্রাণ হারিয়েছেন অনেকে। এতে অনেক ক্ষতি হয়েছে। আমি নিহতদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।’

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.