আজ: বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১ইং, ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১৮ জুলাই ২০২১, রবিবার |



kidarkar

সাত বছরের সর্বোচ্চ অবস্থানে ডিএসইএক্স সূচক

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ২০১৪ সালের ২৯ জানুয়ারি চালু হয় ডিএসইএক্স বা প্রধান সূচক। এরপর উঠা-নামা করেছে কতোবার তার ইয়ত্তা নেই। ডিএসইএক্স সূচকের তারতম্যের উপর বাজারের গতিবিধি নির্ভরশীল। সেই সূচক গত সাড়ে সাত বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থানে পৌঁছাল আজ রোববার। এদিন ৩টা ২৮ মিনিট পর্যন্ত সূচকটি ৬৩ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৬ হাজার ৩৭১ পয়েন্টে।

এর আগে রোববার ইতিহাস থেকে মাত্র ২৭ পয়েন্ট পিছিয়ে থেকে লেনদেন শুরু হয়। সকাল ১০টায় লেনদেন শুরুর পর ১৫ পয়েন্ট বেড়ে গেলে পরে সূচক কিছুটা কমে যায়। পরে ৬ হাজার ৩৩১ পয়েন্টে উঠে বেলা ১১টায়। তবে ১১টা ৯ মিনিটে ডিএসইতে কারিগরি জটিলতায় লেনদেন বন্ধ হয়ে যায়। এক ঘণ্টা ২০ মিনিট পর লেনদেন শুরু হয়।

এরপর সূচক কিছুটা কমে ৬ হাজার ৩১৪ পয়েন্টে নেমে আসে। এর মধ্যে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ কর্তৃপক্ষ জানায়, লেনদেন আড়াইটার বদলে চলবে বেলা সাড়ে তিনটা পর্যন্ত চলবে।

লেনদেন শেষে ৫৭ পয়েন্ট বেড়ে ডিএসইএক্স সূচক দাঁড়ায় ৬ হাজার ৩৬৫ পয়েন্টে। বেলা দুইটা ২৬ মিনিটে সূচক পৌঁছে ছয় হাজার ৩৩৭ এ। সঙ্গে সঙ্গে ভেঙে যায় ২০১৭ সালের ২৬ নভেম্বরের রেকর্ড। সেদিন সূচক ছিল ছয় হাজার ৩৩৬ পয়েন্ট।

ডিএসইএক্স সূচক চালুর আগে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের সূচকের নাম ছিল ডিএসই সূচক। সেই সূচকের সঙ্গে তুলনায় করলেও পুঁজিবাজারের এই অবস্থানকে সাড়ে ১০ বছরের সর্বোচ্চ বলা যায়।

এদিন শরিয়াহ সূচক ৬ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে এক হাজার ৩৫৯ পয়েন্টে। আর ডিএসই-৩০ সূচক সামান্য বেড়ে দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ২৭৪ পয়েন্টে।

এদিন প্রধান বাজার ডিএসইতে লেনদেন হওয়া অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারদর বেড়েছে। লেনদেন হওয়া কোম্পানির মধ্যে ২১০টির দর বেড়েছে। কমেছে ১৫০টির। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৩টি কোম্পানির দর।

টাকার অঙ্কেও এদিন লেনদেন বেড়েছে। এদিন এক হাজার ৭৯৩ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। আগের কার্যদিবস গত বৃহস্পতিবার লেনদেন হয়েছিলো এক হাজার ৭৮৯ কোটি টাকার।

বাজারের ইতিবাচক প্রবণতা সম্পর্কে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পরিচালক ও সাবেক সভাপতি মোঃ রকিবুর রহমান শেয়ারবাজার নিউজকে বলেন, সূচকের এই অবস্থা বলে দিচ্ছে বাজার সামনে আরও ভালো হবে। তবে সার্ভার ত্রুটি না হলে আজ সূচক আরও বাড়তো।

তিনি বলেন, নিয়ন্ত্রক সংস্থা বারবার বলার পরও ডিএসইর সার্ভার, ওয়েবসাইটে কেনো এতো প্রবলেম? ম্যানেজমেন্ট কি করে তা নিয়েও তিনি প্রশ্ন করেন। সার্ভার ত্রুটির কারণে বিনিয়োগকারীরা বেশ ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) প্রেসিডেন্ট ছায়েদুর রহমান শেয়ারবাজারনিউজকে বলেন, সার্ভার ত্রুটির কারণে লেনদেন কম হয়েছে। এটা না হলে লেনদেন আরও বাড়তো। বাজারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের যেহেতু আস্থা তৈরি হয়েছে তাই এই সমস্যাগুলো সমাধানের উদ্যোগ নেয়া জরুরি।

তিনি বলেন, স্টক এক্সচেঞ্জ কর্তৃপক্ষের উচিত হবে সার্ভার, ওয়েবসাইটসহ অ্যাপের ত্রুটি চিহ্নিত করে স্থায়ীভাবে সমাধান করা। এটা করা না গেলে বিনিয়োগকারীরা আশহত হবে।

বাজার আরও ভালো হবে জানিয়ে তিনি বলেন, সূচকের বর্তমান অবস্থা বলে দিচ্ছে সামনের সময়ও দেশের পুঁজিবাজারের জন্য ইতিবাচক হবে।

এদিকে অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৬০.৯৭ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ৩৭৯.৫৪ পয়েন্টে। সিএসইতে আজ ৩২০টি প্রতিষ্ঠান লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৭০টির দর বেড়েছে, কমেছে ১৩৭টির আর ১৩টির দর অপরিবর্তিত রয়েছে। সিএসইতে ৭১ কোটি ৭৯ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

২ উত্তর “সাত বছরের সর্বোচ্চ অবস্থানে ডিএসইএক্স সূচক”

  • এস এম আসাদুজ্জামান says:

    সুচকের এই বৃদ্ধিতে ভাল কোন শেয়ারের অবদান আছে বলে মনে হয় না বরং বস্তাপঁচা কতগুলি শেয়ারের দাম অতি মূল্যায়িত হয়ে সুচক এ অবস্থায় এসে পৌছেছে। এধারা অব্যাহত থাকলে অচিরেই আরেকটি বড় ধরনের ধ্বস অবশ্যম্ভাবী। সুতরাং বিনিয়োগকারীদের স্বার্থে এখনই এসব বস্তাপঁচা শেয়ারের লাগাম টেনে ধরার জন্য কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।

  • Anonymous says:

    ঠিক কথা বলেছেন ধন্যবাদ

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.