আজ: রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১ইং, ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২১ অক্টোবর ২০২১, বৃহস্পতিবার |



kidarkar

পাপুয়া গিনিকে গুঁড়িয়ে সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক : টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম পর্বের শেষ ম্যাচে পাপুয়া নিউ গিনিকে (পিএনজি) ৮৪ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে বিশ্বকাপের মূল পর্বে খেলা নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) বিশ্বকাপে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৮১ রান করে বাংলাদেশ। জবাবে ৯৭ রানে শেষ হয় পিএনজির ইনিংস।

আল আমেরাত স্টেডিয়ামে পাপুয়া নিউগিনি শিবিরে প্রথম আঘাত হানেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। লেগা সিয়াকাকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন তিনি। ফেরার আগে ১০ বলে ৫ রান করেন লেগা। এরপর নিজের প্রথম ওভারে তাসকিন আহমেদ ফিরিয়ে দেন আসাদ ভালাকে। ৯ বলে ভালা করেন ৬ রান।

সাকিব বল হাতে নিয়েই শিকারে পরিণত করেন চার্লজ অমিনিকে। অমিনি সীমানার কাছে নাঈম শেখের হাতে ধরা পড়েন। একই ওভারে সাকিব নেন সিমন আতাইয়ের উইকেটও। শূন্য রানেই ফিরে যান আতাই। সেসে বাউকেও নাঈমের ক্যাচ বানান সাকিব। এরপর দশম ওভারে মেহেদী হাসান তুলে নেন নরম্যান ভানুয়ার উইকেট।

তবে সেখান থেকে ৪৬ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে দলের স্কোরকে একশ রানের কাছে নিয়ে যান ৮ নম্বরে নামা কিপলিন ডোরিগো। তাঁর ৩৪ বলের এই ইনিংসে ছিল দুটি করে চার ও ছক্কার মার। এছাড়া দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১১ রান আসে ৯ নম্বরে নামা চাঁদ সোপারের ব্যাট থেকে। এই দুজন ছাড়া পিএনজির বাকিরা ছিলেন আসা-যাওয়ার মিছিলে।

এদিন মাত্র ৯ রান দিয়ে ৪টি উইকেট নিয়ে আরেকটি অনন্য রেকর্ড স্পর্শ করলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৩৯টি উইকেট নিয়ে এতদিন এই রেকর্ডের মালিক ছিলেন ৩৪ ম্যাচ খেলা পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি। দুটি করে উইকেট নেন সাইফ ও তাসকিন। একটি উইকেট পান মেহেদী।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৮১ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় বাংলাদেশ। পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে ব্যাটিং তাণ্ডব চালিয়েছেন টাইগার দলপতি মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ২৭ বলে অর্ধশতক তুকে নিয়েছেন তিনি। এরপরই আউট হয়েছেন ডামিয়েন রাভুর বলে। সাকিব ফিরে গেলে ৫০ রান করতে তিনি ৩টি চার ও সমানসংখ্যক ছয়ও হাঁকিয়েছেন।

এর আগে হাফ সেঞ্চুরির আক্ষেপ নিয়ে ফিরে যান সাকিব আল হাসান। বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে সীমানার কাছে চার্লজ অমিনির হাতে ধরা পড়েন তিনি। ৩৭ বলে ৩ ছয়ে ৪৬ রান আসে তার ব্যাট থেকে। আগের ম্যাচের ধারাবাহিকতা ধরে রেখে এদিনও ব্যর্থ হন টাইগার ব্যাটার মুশফিকুর রহিম। মুশফিকও আউট হয়েছেন বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে। সিমন আতাইয়ের বল সীমানার বাইরে আছড়ে মারতে গিয়ে হিরি হিরির হাতে ধরা পড়েন তিনি। মুশফিকের আগে বিদায় নেন নাঈম শেখ ও লিটন দাসও।

শেষ দিকে দুটি ক্যামিও ইনিংস আসে আফিফ হোসেন ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের ব্যাট থেকে। ১৪ বলে ৩ চারে ২১ রান করেন আফিফ। সাইফ ৬ বলে তিন শ’র বেশি স্ট্রাইকরেটে করেন ১৯ রান। পাপুয়া নিউগিনির হয়ে দুটি করে উইকেট নেন কাবুয়া, রাভু, ও আসাদ ভালা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ : ২০ ওভারে ১৮১/৭ (নাঈম ০, লিটন ২৯, সাকিব ৪৬, মুশফিক ৫, মাহমুদউল্লাহ ৫০, আফিফ ২১, সোহান ০, সাইফউদ্দিন ১৯, মেহেদী ২; মরেয়া ৪-০-২৬-২, রাভু ৪-০-৪০-২, সোপের ৪-০-৫৩-০, বাউ ২-০-২০-০, ভালা ৩-০-২৬-২, আমিনি ২-০-৯-০, আটাই ১-০-৬-১)।

পাপুয়া নিউগিনি : ১৯.৩ ওভারে ৯৭/১০ (সিয়েকা ৫, আসাদ ৬, আমিনি ১, সেসে ৭, সিমন ০, হিরি ৮, নরম্যান ০, কিপলিন ৪৬*, চ্যাড ১১, কাবুয়া ৩, ড্যামিয়েন ৫; তাসকিন ৩.৩-১-১২-২, মুস্তাফিজ ৪-০-৩৪-০, সাকিব ৪-০-৯-৪, মেহেদী ৪-০-২০-১, সাইফউদ্দিন ৪-০-২১-২)।

ফল : ৮৪ রানে জয়ী বাংলাদেশ।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ : সাকিব আল হাসান

১ টি মতামত “পাপুয়া গিনিকে গুঁড়িয়ে সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশ”

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.