আজ: শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১ইং, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৬ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২০ জানুয়ারী ২০১৫, মঙ্গলবার |


kidarkar

সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইলের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ: লেনদেন শুরু

ca_texttileশেয়ারবাজার ডেস্ক: অনিরিক্ষীত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির অনুমোদন পাওয়া সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইল। এদিকে বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় দেশের উভয় শেয়ারবাজারে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয় এ কোম্পানির লেনদেন। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, হিসাব বছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে (জুলাই১৩-মার্চ ১৪) কোম্পানিটির নিট মুনাফা হয়েছে ২৯ কোটি ৭৩ লাখ টাকা। প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) পরবর্তী শেয়ার সংখ্যার নিরীখে কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস ১.৭০ টাকা । যা আইপিও পূর্ববর্তী ইপিএস ছিল ৬.৬১ টাকা।

হিসাব বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) কোম্পানি মুনাফা করেছে ৬ কোটি ৬৩ লাখ ৬০ হাজার টাকা। এ সময়ে আইপিও পূর্ববর্তী শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১.৪৮ টাকা । আর আইপিও পরবর্তী ইপিএস হয়েছে দাঁড়িয়েছে ০.৩৮ টাকা।

জানা যায়, ২১ জানুয়ারি, বুধবার কোম্পানিটির লেনদেন দেশের উভয় শেয়ারবাজারে ‘এন’ ক্যাটাগরি আওতায় শুরু হবে। উভয় বাজারের ট্রেডিং কোড: ‘CNATEX’ এবং ডিএসই কোম্পানি কোড হচ্ছে: ১৭৪৬৫ আর সিএসইতে কোম্পানি কোড হচ্ছে: ১২০৫৩।

এর আগে কোম্পানিটির আইপিওতে আবেদনকারীদের মধ্যে শেয়ার বরাদ্দ দেয়ার জন্য লটারির ড্র গত ১১ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। আর কোম্পানির আইপিওতে আবেদন গ্রহণ করা হয় ৯ নভেম্বর থেকে ১৩ নভেম্বর পর্যন্ত। আর প্রবাসি বিনিয়োগকারীদের জন্য এ সুযোগ ছিলো ২২ নভেম্বর পর্যন্ত।

কোম্পানিটির আইপিওতে ৯১০ কোটি ১৫ লাখ ৭০ হাজার টাকার আবেদন জমা পড়ে। যা উত্তোলনকৃত অর্থে ২০.২২ গুণ। এর মধ্যে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ৬১২ কোটি ৫০ লাখ ৩০ হাজার টাকার, ক্ষতিগ্রস্তদের কাছ থেকে ৬৪ কোটি ৯১ লাখ ৫০ হাজার টাকার, মিউচ্যুয়াল ফান্ড খাতে ১৮৮ কোটি ৮৮ লাখ ২০ হাজার টাকার এবং প্রবাসি বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ৪৩ কোটি ৮৫ লাখ ৭০ হাজার টাকার আবেদন জমা পড়ে।

কোম্পানিটি শেয়ারবাজার থেকে ৪৫ কোটি টাকা উত্তোলনের জন্য ৪ কোটি ৫০ লাখ শেয়ার ছাড়ে। এ জন্য প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা। ৫০০টি শেয়ারে মার্কেট লট।

ব্যাংক ঋণ পরিশোধ, ভবন নির্মাণ এবং আইপিও খরচ খাতের ব্যয় করতে শেয়ারবাজার থেকে অর্থ উত্তোলন করে।

৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ অর্ধবার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৯৭ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৮.৩৮ টাকা।

আইপিওতে কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে এএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেড এবং ইম্পেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড।

 

শেয়ারবাজার/অ

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.